• নিজস্ব সংবাদতাতা
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

দেশে বাড়ল বেকারত্বের হার

unemployment
—প্রতীকী ছবি।

ফের শিরদাঁড়া দিয়ে ঠান্ডা স্রোত নামল বেকারত্বের পরিসংখ্যানে। এক দিকে সিএমআইই-র রিপোর্ট বলেছে, দেশে সেপ্টেম্বর-ডিসেম্বরে বেকারত্বের হার বেড়ে হয়েছে ৭.৫%। কাজ খুঁজতে গিয়ে সব থেকে বেশি ধাক্কা খেয়েছেন শিক্ষিত তরুণ-তরুণীরা। অন্য দিকে রাষ্ট্রপুঞ্জের আন্তর্জাতিক শ্রম সংস্থার (আইএলও) রিপোর্টে প্রকাশ, বিশ্বে অর্থনীতি ঝিমিয়ে। কাজ করার মতো লোক বাড়ছে, কিন্তু যথেষ্ট পরিমাণে নতুন কাজ তৈরি হচ্ছে না। তাদের পূর্বাভাস, এ বছর সারা বিশ্বে বেকারত্ব বাড়বে প্রায় ২৫ লক্ষ। এই মুহূর্তে প্রায় ৫০ কোটি মানুষ মাত্র কয়েক ঘণ্টা কাজ করছেন বা কাজের বাজারে পা রাখার যথেষ্ট সুযোগই পাচ্ছেন না।

সিএমআইই বলেছে, দেশে ২০১৭ সালের মে-অগস্টের পর থেকে টানা সাত দফা বেকারত্বের হার বেড়েছে। এনএসএসও-ও বলেছিল নোটবন্দির পরে ২০১৭ সালে বেকারত্ব ছিল সাড়ে চার দশকে সর্বোচ্চ (৬.১%)। পরে সামনে আসে, গ্রামে প্রকৃত (মূল্যবৃদ্ধি বাদে) আয় বাড়ছে না বললেই চলে। সিএমআইই-ও বলছে, গত চার মাসে বেকারত্ব গ্রামে ৬.৮%। আইএলও কর্তার দাবি, বিশ্বে কাজ সংক্রান্ত বৈষম্য বহু মানুষের ভাল চাকরি পাওয়ার পথে অন্তরায়। দিনে ৩.২০ ডলার খরচ করতে না পারা কর্মী ৬৩ কোটি। 

দেশের ছবি 

• সেপ্টেম্বর-ডিসেম্বরে বেকারত্বের হার বেড়ে ৭.৫%, বলছে সিএমআইই-র রিপোর্ট।
• তরুণদের ক্ষেত্রে বেড়েছে ৬০%।
• ২০১৭ সালের মে-অগস্টের পর থেকে বেকারত্বের হার এই নিয়ে টানা সাত বার বাড়ল।

বিশ্বের ছবি

• আইএলও-র রিপোর্ট অনুযায়ী, বিশ্বে বেকারের সংখ্যা ১৮.৮০ কোটি। 
• চাইলেও যথেষ্ট অর্থ পাওয়ার মতো কাজ হাতে নেই ১৬.৫০ কোটির। 
• চাকরিতে পা রাখার সুযোগ পাচ্ছেন না ১২ কোটি। 
• সব মিলিয়ে ৪৭ কোটিরও বেশি কাজের বাজারে ব্রাত্য। 
• চলতি বছরে বিশ্বে বেকারত্ব বাড়তে পারে ২৫ লক্ষ।

আরও পড়ুন: রক্তচক্ষু যোগীর পুলিশের, প্রতিবাদীদের নামে এ বার ‘দাঙ্গা’ মামলা

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন