• নিজস্ব সংবাদদাতা
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

উত্তরপ্রদেশে পুলিশের জালে ২ জইশ জঙ্গি, খতিয়ে দেখা হচ্ছে পুলওয়ামা যোগ

JEM
এই দুই জইশ জঙ্গিকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। —ফাইল চিত্র।

Advertisement

পশ্চিম উত্তরপ্রদেশের দেওবন্দ থেকে দুই সন্দেহভাজন জইশ জঙ্গিকে গ্রেফতার করল পুলিশের সন্ত্রাস দমন শাখা এটিএস। উত্তরপ্রদেশ পুলিশের ডিজি ওমপ্রকাশ সিংহ শুক্রবার জানান, পরবর্তী তদন্তের জন্য ওই দু’জনের গ্রেফতারি অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ হয়ে উঠতে পারে। ধৃতেরা দু’জনই কাশ্মীরের বাসিন্দা। পুলওয়ামার ঘটনার সঙ্গে ওই দুই সন্দেহভাজনের যোগ থাকার সম্ভাবনাও উড়িয়ে দিচ্ছেন না তিনি।

পুলিশ জানিয়েছে ধৃত শাহনওয়াজ তেলি এবং আকিব আহমেদ মালিক কাশ্মীরের কুলগাম এবং পুলওয়ামার বাসিন্দা। ধৃতদের কাছ থেকে দু’টি পিস্তল এবং ৩০ রাউন্ড বুলেট পাওয়া গিয়েছে। পুলিশের দাবি, দেওবন্দেরই কিছু ছাত্রের কাছ থেকে প্রথম খবর পাওয়া যায় যে কয়েক জন সন্দেহভাজন ওই এলাকায় থাকছে। সেই তদন্ত করতে গিয়ে ওই দু’জনকে শনাক্ত করা হয়। এর পর আইজি (এটিএস) অসীম অরুণের নেতৃত্বে বিশেষ দল ওই দুই যুবকের ঘরে হানা দেয়। এ দিন ওই দুই জঙ্গি ধরা পড়ার পর ওমপ্রকাশ বলেন, ‘‘গোপন সূত্রে খবর পেয়ে বৃহস্পতিবার বিকেলে দেওবন্দের একটি ‘ওয়ার্কিং মেন হস্টেল’-এ হানা দেয় এটিএসের বিশেষ বাহিনী। এক জন আইজি পদমর্যাদার আধিকারিকের নেতৃত্বে ওই দলটি দুই সন্দেবভাজনকে পাকড়াও করে।’’

পুলিশের দাবি, ওই দু’জন নিজেদের ছাত্র পরিচয় দিয়ে দেওবন্দের ছাত্রদের মগজ ধোলাই করে জইশের ভাবধারায় অনুপ্রাণিত করার চেষ্টা করছিল। ডিজি জানান, পুলওয়ামার ঘটনার সঙ্গে এদের যোগাযোগ আছে কি না খতিয়ে দেখা হচ্ছে। কারণ ওই সময় তারা কোথায় ছিল সেটাও জানার চেষ্টা করা হচ্ছে। ওমপ্রকাশ বলেন, ‘‘ওদের জেরা করে বিভিন্ন রাজ্যে ছড়িয়ে থাকা জইশ জঙ্গিদের এ রকম স্লিপার সেলের হদিশ পাওয়া সম্ভব। শাহনওয়াজ জেরায় স্বীকার করেছে যে, সে জইশ-এ-মহম্মদের সক্রিয় ক্যাডার। একই রকম ভাবে আকিবও যুক্ত ওই জঙ্গি সংগঠনে।” ডিজির দাবি, শাহনওয়াজ এক জন প্রশিক্ষিত জইশ জঙ্গি এবং আইইডি বিশেষজ্ঞ। পুলিশ জানিয়েছে ধৃতদের কাছ থেকে অস্ত্রের পাশাপাশি জিহাদি নথিপত্র থেকে শুরু করে ভিডিয়ো এবং ছবি উদ্ধার হয়েছে।

রাজ্যের উপ-মুখ্যমন্ত্রী কেশব প্রসাদ মৌর্যের কথায়, ‘‘রাষ্ট্রের শত্রুদের প্রতি বার্তা, জঙ্গিরা কোনও প্রান্তেই গা ঢাকা দিয়ে থাকতে পারবে না।’’ পুলিশের দাবি, ধৃত শাহনওয়াজ গ্রেনেড তৈরিতে দক্ষ। ছাত্রের ছদ্মবেশে দেওবন্দে বাড়ি ভাড়া নিয়ে থাকত সে এবং আকিব। তারা কবে ওখানে এসেছিল, তাদের পরিকল্পনা কী ছিল এ সব জানতে তদন্ত শুরু হয়েছে। এই দু’জনের ফোন থেকে উদ্ধার হওয়া ভিডিয়ো ক্লিপিংস এবং মেসেজ ফরেন্সিক তদন্তের জন্য পাঠানো হয়েছে। এর মধ্যেই আজ নিরাপত্তা বাহিনীর সঙ্গে সংঘর্ষে জম্মু-কাশ্মীরের সোপোরে নিহত হয়েছে লস্কর- ই-তইবার দুই জঙ্গি।

আরও পড়ুন: সোপোরে এক জঙ্গিকে নিকেশ করল সেনা, ডেরা ঘিরে গুলির লড়াই জারি

সবাই যা পড়ছেন

Advertisement

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন