এবার গান চালিয়ে দিল্লি ট্রাফিক পুলিশের জরিমানার মুখে পড়লেন এক ব্যক্তি। পুলিশের অভিযোগ, ওই ব্যক্তি তাঁর বাইকে লাগানো স্পিকারে চড়া ভলিউমে গান চালাচ্ছিলেন। তাই তাঁর জরিমানা করা হয়েছে। অভিযুক্তের নাম রাঘব স্বাতী পুরথি। তবে রাঘবের দাবি, তিনি কোনও আইন ভাঙেননি। বিষয়টি নিয়ে তিনি ফেসবুকে পোস্ট করেছেন।

রাঘব ফেসবুকে লিখেছেন, তিলকনগর এলাকা দিয়ে বাইকে যাচ্ছিলেন। সেই সময় এক ট্রাফিক পুলিশ মাঝ রাস্তায় তাঁর বাইক থামান। লাইসেন্স, কাগজপত্র দেখতে চান। সেগুলি দেখার পর তাঁকে থানায় যেতে বলা হয়। তিনি থানায় যাওয়ার পর এক অফিসার তাঁর উপর চিত্কার করতে থাকেন। বলেন কী ভাবে আপনি বাইকে লাগানো স্পিকারে এত জোরে গান চালাতে পারেন? আর আপনার বাইকে অতিরিক্ত ব্যাগ লাগানো আছে, এটি মডিফায়েড বাইক, বেআইনি।

রাঘবের দাবি, তিনি জোরে গান চালাচ্ছিলেন না। আর এটি হার্লে ডেভিডসনের রোড গাইড স্পেশাল, যাতে কোম্পানি থেকেই স্পিকার ও ব্যাগ লাগানো থাকে, এটি রয়্যাল এনফিল্ড নয়। কিন্তু তিলকনগরের এসিপি ও এসআই সমানে তাঁর উপর চিত্কার করে বলছিলেন এটি মডিফায়েড বাইক। এটি বেআইনি বাইক। আর আপনি বেআইনি বাইকে চালাতে পারেন না।

আরও পড়ুন : মায়ের সঙ্গে ঝগড়া, গৃহশিক্ষিকাকে খুন ১২ বছরের কিশোরের

আরও পড়ুন : হেলমেট নেই, তবুও ফাইন করতে পারল না পুলিশ

রাঘবের দাবি, চালানে লেখা হয়েছে, বাইকে গান চালানোর জন্য জরিমানা। সেখানে লেখাও হয়নি চড়া সুরে গান চালানোর জন্য জরিমানার কথা। রাঘব কয়েকটি ছবি পোস্ট করেছেন, সঙ্গে একটি ভিডিয়োও। কিন্তু তিনি চালানের কোনও ছবি পোস্ট করেননি।