উত্তরপ্রদেশের রায়বরেলী জেলার চক ধাউরাহরাতে রয়েছে গাঁধী সেবা নিকেতন আশ্রম। সেখানে কর্মরত এক মহিলা ওয়েলফেয়ার অফিসারকে মারধরের অভিযোগ উঠল সেখানকার পড়ুয়াদের বিরুদ্ধে। মারধরের সেই ঘটনার সিসিটিভি ফুটেজ এখন ভাইরাল। ওই মহিলা অফিসারের অভিযোগ, আশ্রম কর্তৃপক্ষের মদতেই তাঁকে মারধর করেছে ছাত্ররা।

আশ্রমের মহিলা ওয়েলফেয়ার অফিসার মমতা দুবে সংবাদমাধ্যমকে বলেছেন, ‘‘গাঁধী সেবা নিকেতন আশ্রমে কাজ করি আমি। প্রতিষ্ঠানের ম্যানেজার আমাকে মারার জন্য ছাত্রদের প্ররোচিত করেছেন। ছাত্ররা আমাকে চেয়ার দিয়ে মেরেছে। চড়ও মেরেছে আমাকে। জেলা শাসককে আমি অভিযোগ জানিয়েছি।’’ তবে ওই আশ্রমের ম্যানেজার কেন তাঁকে মারতে চান  এবং তিনি কেনই বা ছাত্রদের প্ররোচিত করেছেন। সে ব্যাপারটি এখনও স্পষ্ট নয়।

তবে ওই স্কুল কর্তৃপক্ষের বিরুদ্ধে আরও অভিযোগ করেছেন মমতা। তিনি বলেছেন, ‘‘দু’দিন আগেই আমাকে বাথরুমে আমাকে বন্ধ করে রাখা হয়েছিল। তখন অভিযোগ জানাতে গেলে কর্তৃপক্ষ বলেছিলেন, ছাত্ররা যা খুশি করতে পারে।’’ এর আগেও বেশ কয়েকবার দুর্ব্যবহারের শিকার হয়েছিলেন বলে অভিযোগ করেছেন মমতা।

এই ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ। তবে এ ব্যাপারে এখনও কোন বিবৃতি দেওয়া হয়নি পুলিশের তরফে। 

আরও পড়ুন: অন্য মিউজিক্যাল চেয়ার! বউকে কোলে তুলে চেয়ারে বসানোর খেলা, আগে দেখেছেন?

আরও পড়ুন: দেখুন কী ভাবে উঁচু গাছে উঠে কাঁঠাল পেড়ে খাচ্ছে হাতি