স্বাধীনতা দিবসেই বীরচক্র পেতে চলেছেন ভারতীয় বায়ুসেনার উইং কমান্ডার অভিনন্দন বর্তমান। শুধু অভিনন্দনই নন, পুরস্কৃত হবেন মিরাজ-২০০০ বিমান থেকে বালাকোটের জঙ্গি ঘাঁটিতে বোমাবর্ষণ করে আসা অন্য ২১ জন বায়ুসেনাও। 

গত ২৭ ফেব্রুয়ারি ভারতে আক্রমণ করতে আসা একটি এফ ১৬ বিমানের পিছু ধাওয়া করেন অভিনন্দন বর্তমান। সীমানা লঙ্ঘন করে ঢুকে পড়েন পাক উপত্যকায়। এর পরে আহত অবস্থায় পাক সেনার হাতে বন্দি হন তিনি।রক্তাক্ত অভিনন্দনের বিভিন্ন ছবি ও ভিডিয়ো সংবাদমাধ্যম ও সোশ্যাল মিডিয়ায় ফাঁস করে পাক সেনা। প্রায় ৬০ ঘণ্টার টানাপড়েনের পর অভিনন্দনকে মুক্তি দেয় পাকিস্তান। দেশে ফিরে বীরের মর্যাদা পান অভিনন্দন। গত এপ্রিল মাসেই সরকারের তরফে বীর চক্রের জন্যে অভিনন্দনের নাম প্রস্তাব করা হয়। অপেক্ষা ছিল রাষ্ট্রপতির সিলমোহরের।


অভিনন্দন সম্পর্কে এই তথ্যগুলি জানেন: প্রশ্নোত্তরে অভিনন্দন বর্তমান

সংবাদসংস্থা সূত্রে জানানো হচ্ছে, এদিনই রাষ্টপতি স্বাক্ষর করবেন ওই প্রস্তাবে। যুদ্ধক্ষেত্রে বীরত্ব প্রদর্শনের জন্যে সেনাবাহিনীর তৃতীয় সর্বোচ্চ পুরস্কার বীরচক্র। পরমবীর চক্র, মহাবীর চক্রের পরেই আসে এই সম্মান।
 


আরও পড়ুন: ৫০ টাকা রোজের দিনমজুর ছিলেন, এখন বার্ষিক আয় ৫০ লাখ! কী করে জানেন?
আরও পড়ুন: কাশ্মীরি ভাইবোনেরা, দেশ তোমাদের পাশে, আশ্বাস মোদীর​

সংবাদসংস্থা সূত্রে আরও জানানো হচ্ছে, স্বাধীনতা দিবসের অনুষ্ঠানে ভারতীয় বায়ুসেনার স্কোয়াড্রন লিডার মিনতী আগরওয়ালকেও পুরস্কৃত করা হবে। ২৭ ফেব্রুয়ারি বালাকোট অভিযানের সময়ে ফাইটার কন্ট্রোলারের গুরুদায়িত্ব সামলেছিলেন তিনি। তাঁকে দেওয়া হবে যুব সেবা মেডেল।