হোয়াটসঅ্যাপ ভিডিয়ো কলে  নগ্ন হয়েছিলেন তিনি। সেই ভিডিয়ো রেকর্ড করেছিলেন কলের বিপরীত প্রান্তে থাকা মহিলা। তার পরই সেই ভিডিয়ো কলকে হাতিয়ার করে টাকার দাবি করছেন ওই মহিলা। সম্প্রতি বেঙ্গালুরু পুলিশের কাছে এ রকমই অভিযোগ করিয়েছেন এক ইঞ্জিনিয়ার। তাঁর বাড়ি বেঙ্গালুরুর কাডুগোড়িতে।

পুলিশের কাছে ওই ব্যক্তি অভিযোগ করেছেন, সন্তানসম্ভবা স্ত্রী বাপের বাড়িতে থাকেন। সেই সময় একটি ডেটিং সাইটে ওই মহিলার সঙ্গে পরিচয় হয়েছিল তাঁর। ওই মহিলা জানিয়েছিলেন তাঁর নাম প্রিয়া সিংহ, বাড়ি রাজস্থান।  হোয়াটসঅ্যাপে মেসেজ চালাচালি করতে করতে অল্প সময়ের মধ্যেই তাঁর সঙ্গে সেক্স চ্যাট করতে রাজি হয়ে যান ওই মহিলা।

ওই মহিলাই তাঁকে ভিডিয়ো কল করার জন্য বলেছিলেন বলে পুলিশকে জানিয়েছেন বেঙ্গালুরুর ওই ব্যক্তি। পুলিশ তিনি বলেন, ‘‘২৮ অক্টোবর রাতে আমাকে ভিডিয়ো কল করে প্রিয়া। আমি নগ্ন হলে হলে সেও নগ্ন হবে বলেছিল। আমি তাঁর কথায় বিশ্বাস করে নগ্ন হই। কিন্তু তার পরই হট্টহাসিতে ফেটে পড়ে কল কেটে দেয় প্রিয়া।’’

তার পর প্রিয়া ফোন করে টাকা দাবি করে। টাকা না দিলে সেই ভিডিয়ো সোশ্যাল মিডিয়ায় ছড়িয়ে দেওয়ার ভয়ও দেখায়। ওই ব্যক্তি জানিয়েছেন, ‘‘১ নভেম্বর পেটিএমের মাধ্যমে ৩০ হাজার টাকা দিয়েছিলাম।  এর কিছুদিন পরই ফের ১৫ হাজার টাকা দাবি করেন ওই মহিলা। তখনই আমি পুলিশের দ্বারস্থ হই।’

বিষয়টি নিয়ে পুলিশের এক অফিসার বলেছেন, ‘‘বর্তমানে ওই মহিলার ফোন বন্ধ রয়েছে। তাঁর নাম প্রিয়া নয়। সাইবার বিভাগের সাহায্যে আমরা ওই মহিলাকে খোঁজার চেষ্টা চালাচ্ছি।’’ 

আরও পড়ুন: গাঁধী আশ্রম স্কুলেই মহিলা অফিসারকে চেয়ার দিয়ে পেটাল ছাত্ররা! ভিডিয়ো ভাইরাল

আরও পড়ুন: অন্য মিউজিক্যাল চেয়ার! বউকে কোলে তুলে চেয়ারে বসানোর খেলা, আগে দেখেছেন?