লকডাউন: আলুর নয়, মুরগির দমে স্বাদ বদল

নিজস্ব প্রতিবেদন
লকডাউন: আলুর নয়, মুরগির দমে স্বাদ বদল

লক ডাউনের সময়সীমা বেড়েই চলেছে। বাইরের খাবার একেবারেই বন্ধ। বাড়িতেও উপকরণ সীমিত। রোজকার ডাল তরকারি আর চিকেন কারিতে মন ওঠে না। কিন্তু উপায় তো নেই, কোভিড ১৯-কে হারাতে আরও কিছুদিন গৃহবন্দি থাকতেই হবে। সপ্তাহে একদিনের বেশি বাজার যাবার উপায় নেই। একসঙ্গে কিনে রাখা মাছ, সবজি আর চিকেনের স্বাদ বদল করতে পারেন সহজেই।

আলুর দম তো প্রায়ই খাওয়া হয়। আজ বানিয়ে ফেলুন মুরগির দম। বাড়িতেই রয়েছে, এমন কিছু উপকরণ দিয়ে ঝটপট বানিয়ে ফেলুন এই নয়া পদ। কিছু উপকরণের ঘাটতি থাকলেও অসুবিধে নেই, সূর্যমুখির বীজ কিংবা পুদিনা পাতা ছাড়াও জমে যাবে মুরগির দম। রেসিপি জানালেন আসানসোলের দ্য গ্র্যান্ডের শেফ সৌরভ বসু।   

 

উপকরণ

চিকেন – ১ কেজি, ছোট টুকরো করে কাটা

দই – ১ কাপ

বড় পেঁয়াজ – ২টি

আদা ও রসুন বাটা – ১ টেবিল চামচ করে প্রতিটি

বড় ও ছোট এলাচ – ৬টি করে প্রতিটি

পুদিনা ও ধনে পাতা – দরকার মতো  

কারিপাতা – অল্প

কাঁচা লঙ্কা – ৫ /৬টি,

পোস্ত – ১ টেবিল চামচ,

সূর্যমুখী দানা – ১ টেবিল চামচ ( না হলেও চলবে)

কাজু – ৬ -৮টি,

লবঙ্গ – ৪/৬টি

দারচিনি – ১ টুকরো

লঙ্কা গুঁড়ো – ১ চামচ

লেবুর রস – ৬ চামচ

গোলাপ জল – ১ চামচ

জাফরান – সামান্য

ভাজার জন্য তেল

নুন – স্বাদ অনুযায়ী

চিনি – সামান্য

প্রণালী: লবঙ্গ, দারচিনি ও দু’রকমের এলাচ একসঙ্গে ক্রাশ করে নিতে হবে।  গরম জলে পোস্ত, কাজু ও সূর্যমুখীর বীজ ভিজিয়ে রেখে মিহি করে  বেটে নিতে হবে। কুচোনো পেঁয়াজ সোনালি করে ভেজে তুলে রাখুন। পুদিনা ও ধনে পাতা ধুয়ে জল ঝরিয়ে রাখুন। আদা জুলিয়েন করে কেটে রাখুন, কাঁচা লঙ্কা কুচিয়ে রাখুন। এবারে দই ফেটিয়ে কাজু, পোস্ত বাটা, আদা রসুন বাটা ভাল করে মিশিয়ে নিন। এর মধ্যে নুন, লঙ্কা গুঁড়ো, পেঁয়াজ ভাজা বাটা ভাল করে মেশান। জলে জাফরান ভিজিয়ে তার মধ্যে লেবুর রস, আদা, গরম মশলা, গোলাপজল একসঙ্গে মিশিয়ে নিয়ে চিকেনে মাখিয়ে আধ ঘন্টা রেখে দিন। একটি বড় পাত্রে ভাল করে তেল মাখিয়ে মশলা মাখানো চিকেন রেখে চাপা দিন। ওভেনে আঁচ বাড়িয়ে ১০ মিনিট ও আঁচ কমিয়ে আরও ১০ মিনিট রান্না করে গরম গরম পরিবেশন করুন।

 

 

 

 

(অভূতপূর্ব পরিস্থিতি। স্বভাবতই আপনি নানান ঘটনার সাক্ষী। শেয়ার করুন আমাদের। ঘটনার বিবরণছবিভিডিয়ো আমাদের ইমেলে পাঠিয়ে দিনfeedback@abpdigital.in ঠিকানায়। কোন এলাকাকোন দিনকোন সময়ের ঘটনা তা জানাতে ভুলবেন না। আপনার নাম এবং ফোন নম্বর অবশ্যই দেবেন। আপনার পাঠানো খবরটি বিবেচিত হলে তা প্রকাশ করা হবে আমাদের ওয়েবসাইটে।)