সময় খারাপ যাচ্ছে হার্দিক পান্ড্য-লোকেশ রাহুলের। দুই ক্রিকেটারকেই অনির্দিষ্টকালের জন্য নির্বাসিত করেছে ভারতীয় ক্রিকেট কন্ট্রোল বোর্ড। দুইজনকেই অস্ট্রেলিয়া থেকে ফিরিয়ে আনা হচ্ছে দেশে। সম্ভবত নিউজিল্যান্ড সফরেও কাউকে রাখা হবে না দলে।

কফি উইথ কর্ণ’ অনুষ্ঠানে দু’জনের বলা মন্তব্য নিয়ে তদন্ত চালানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছে বোর্ড। নতুন করে শোকজও করা হচ্ছে দু’জনকে।প্রশাসকদের কমিটির প্রধান বিনোদ রাই দু’জনকে দুই ম্যাচ নির্বাসনের সুপারিশ করেছিলেন। কিন্তু, কমিটির আর এক সদস্য ডায়না এডুলজি চেয়েছেন আইনি পরামর্শ। বোর্ড এখন সেটাই করছে। আইনি সব দিক খতিয়ে দেখছে। কারণ, ক্রিকেটের বাইরের ব্যাপার নিয়ে শাস্তি দেওয়ার এক্তিয়ার বোর্ডের কতটা রয়েছে, সেই প্রশ্ন উঠছে।
 এই আবহেই হার্দিক-রাহুলকে আইপিএলে না খেলানোর দাবি উঠল। হার্দিক খেলেন মুম্বই ইন্ডিয়ান্সে। রাহুল কিংস ইলেভেন পঞ্জাবের সদস্য। এই দুই ফ্র্যাঞ্চাইজির কাছেই হার্দিক-রাহুলকে আইপিএলে না খেলানোর দাবি তুললেন ক্রিকেটপ্রেমীরা।

আরও পড়ুন: ভারতের হয়ে একদিনের ফরম্যাটে দশ হাজারে পৌঁছতে ধোনির চাই মাত্র ১ রান

আরও পড়ুন: এটাই আমার খেলা সেরা ভারতীয় দল, বললেন পূজারা​

নারীবিদ্বেষী মন্তব্যের জন্য হার্দিকের প্রতিই ক্ষোভ বেশি সোশ্যাল মিডিয়ায়। রাহুলের প্রতিও অসন্তোষ রয়েছে। প্রসঙ্গত, এ বারের আইপিএল শুরু হচ্ছে ২৩ মার্চ। নিউজিল্যান্ড সফর থেকে ফিরে এসে ভারতীয় দল ঘরের মাঠে অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে টি-টোয়েন্টি সিরিজ ও একদিনের সিরিজ খেলবে। আইপিএল তার পর। ভারতীয় ক্রিকেটের ৮২ বছরের ইতিহাসে এই দ্বিতীয়বার শৃঙ্খলাজনিত কারণে কোনও ক্রিকেটারকে দেশে ফেরত আনা হল। ভারত অধিনায়ক বিরাট কোহালি জানিয়েও দিয়েছেন যে হার্দিক-রাহুলের মন্তব্যে দলের কোনও সমর্থন নেই। এটা একেবারেই তাঁদের ব্যক্তিগত মতামত। আর তাতে দলের সায় নেই।

(আইসিসি বিশ্বকাপ হোক বা আইপিএল ,টেস্ট ক্রিকেট, ওয়ান ডে কিংবা টি-টোয়েন্টি। ক্রিকেট খেলার সব আপডেট আমাদের খেলা বিভাগে।