• সংবাদ সংস্থা
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

টানা তিন ম্যাচে জয়, কিউয়িদের হারিয়ে বিশ্বকাপের শেষ চারে ভারত

Indian Women emerged victorious
মেলবোর্নে নিউজিল্যান্ডের ব্যাটসম্যানকে ফেরানোর পরে ভারতীয় মহিলাদের উচ্ছ্বাস। ছবি— এএফপি।

টি টোয়েন্টি বিশ্বকাপে ভারতের মহিলাদের দুর্দান্ত দৌড় চলছেই। বৃহস্পতিবার রুদ্ধশ্বাস ম্যাচে নিউজিল্যান্ডকে ৩ রানে হারিয়ে হরমনপ্রীতরা পৌঁছে গেলেন টুর্নামেন্টের সেমিফাইনালে। এ নিয়ে বিশ্বকাপে টানা তিনটি ম্যাচ জিতল ভারত।

অস্ট্রেলিয়াকে হারিয়ে বিশ্বকাপ অভিযান শুরু করেছিলেন স্মৃতি মান্ধানা-শেফালি ভার্মারা। দ্বিতীয় ম্যাচে বাংলাদেশকে উড়িয়ে দেওয়ার পরে তৃতীয় ম্যাচেও ভারতের দাপট চলল। 

টস জিতে এ দিন ভারতকে ব্যাট করতে পাঠায় নিউজিল্যান্ড। ২০ ওভারে ভারত তোলে আট উইকেটে ১৩৩ রান। প্রথম দুই ম্যাচের মতো কিউয়িদের বিরুদ্ধেও রান পেলেন ওপেনার শেফালি ভার্মা। এ দিন ৩৪ বলে ৪৬ রান করেন তিনি। তাঁর ইনিংসে সাজানো ছিল চারটি চার ও ৩টি ছক্কা। বুধবারই সতীর্থ স্মৃতি মান্ধানা ডানহাতির প্রশংসা করে বলেছেন, শেফালি বদলে দিয়েছেন দলকে। 

আরও পড়ুন: ওয়েলিংটনে হার বিরাট-পৃথ্বীদের যে দুর্বলতাগুলো চোখে আঙুল দিয়ে দেখিয়ে দিল

শেফালি রান পেলেও মান্ধানা এ দিন ১১ রান করেন। তিন নম্বরে নামা তানিয়া ভাটিয়া ২৫ বলে ২৩ রানের বেশি করতে পারেননি। মিডল অর্ডারও রান পায়নি। অধিনায়ক হরমনপ্রীত কউর এ দিনও ব্যর্থ।  ব্যাটসম্যানরা ভাল রান না পাওয়ায় ভারত তোলে আট উইকেটে ১৩৩ রান।

টি টোয়েন্টির নিরিখে বিচার করলে এই রান খুব একটা বেশি নয়। কিউয়িদের হাত থেকে ম্যাচ ছিনিয়ে আনতে হলে শুরু থেকে উইকেট তোলা ছাড়া দ্বিতীয় কোনও রাস্তা খোলা ছিল না ভারতের সামনে। সেই কাজটাই করেন শিখা পাণ্ডে, পুনম যাদবরা। নিয়মিত ব্যবধানে উইকেট তুলতে থাকেন তাঁরা। দুই কিউয়ি ওপেনার প্রিস্ট (১২) ও ডিভাইন (১৪) শুরুটা ভাল করতে পারেননি। তিন নম্বরে নামা বেটস করেন মাত্র ৬ রান। পরের দিকে গ্রিন (২৪), মার্টিন (২৫) ও অ্যামেলিয়া কের (৩৪ অপরাজিত) রান পেলেও তা জেতার জন্য যথেষ্ট ছিল না।

শেষ ওভারে জেতার জন্য ১৬ রান দরকার ছিল কিউয়িদের। হরমনপ্রীত বল তুলে দেন শিখা পাণ্ডের হাতে। প্রথম বলেই তাঁকে বাউন্ডারি মারেন জেনসেন। শিখার দ্বিতীয়, তৃতীয় ও চতুর্থ বলে এক রান করে নেন কিউয়ি ব্যাটসম্যানরা। শেষ দু’ বলে কিউয়িদের দরকার ছিল ৯ রান। পাণ্ডের পঞ্চম বলে কের বাউন্ডারি হাঁকান। কিন্তু শেষ বলে রান আউট হন জেনসেন। শেষ ওভারেই উত্তেজনার যাবতীয় মশলা নিয়ে হাজির হয়েছিল ভারত-নিউজিল্যান্ড ম্যাচ। শেষ পর্যন্ত ২০ ওভারে কিউয়িরা তোলে ছ’ উইকেটে ১৩০ রান।

টানা তিন ম্যাচ জিতে গ্রুপ এ-তে ভারত এখন ছয় পয়েন্ট নিয়ে এক নম্বরে। বাকি চার দলের খেলার যা ফলাফলই হোক না কেন, হরমনপ্রীতদের শেষ চারে ওঠার কোনও বাধা নেই। টুর্নামেন্টের প্রথম দল হিসাবে এ দিন শেষ চারে গেল ভারত।

আরও পড়ুন: পায়ে সমস্যা, ক্রাইস্টচার্চে পৃথ্বীর খেলা নিয়ে সংশয়

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন