যুক্তরাষ্ট্র ওপেন চ্যাম্পিয়ন কানাডার বিয়াঙ্কা আন্দ্রেস্কু অভিনব ভাবে সম্মানিত হলেন তাঁর শহর মিসিসগায়। সে দেশের প্রথম গ্র্যান্ড স্ল্যাম চ্যাম্পিয়নের নামে মিসিসগার একটি রাস্তার নামকরণ করা হল। অনুষ্ঠানে আয়োজিত হয়েছিল বিরাট একটি মিছিলও। সেখানে কয়েক হাজার মানুষ উপস্থিত হন। ছিলেন কানাডার প্রধানমন্ত্রী জাস্টিন ট্রুডোও। জনজোয়ারে বরণ করে নেওয়ার পরে টেনিস বিশ্বের নতুন রানির হাতে মিসিসগার মেয়র বনি ক্রম্বি শহরের একটি প্রতীকী চাবি তুলে দেন এবং বিয়াঙ্কার সম্মানে রাখা নতুন রাস্তাটির নাম ঘোষণা করেন— ‘আন্দ্রেস্কু ওয়ে’।

এক বছর আগেই যে যুক্তরাষ্ট্র ওপেনের বাছাই পর্বের প্রথম রাউন্ড থেকে বিদায় নিতে হয়েছিল বিয়াঙ্কাকে, সেখানে পরের বারই নেমে চ্যাম্পিয়ন হওয়ার স্বপ্নপূরণ করেন বিয়াঙ্কা। শুধু তাই নয়, ফাইনালে সেরিনা উইলিয়ামসের মতো মহাতারকাকে তাঁরই ঘরের মাঠে স্ট্রেট সেটে উড়িয়ে দেন। বিয়াঙ্কার এই সাফল্য তাই টেনিস রূপকথায় স্থান করে নেয়। স্বপ্নপূরণের পরে ১৯ বছর বয়সি তাঁর শহরে পাওয়া এই সম্মানে অভিভূত। ‘‘কখনও ভাবিনি আমার জন্যই একটা মিছিলের আয়োজন করা হবে, আমার হাতে শহরের চাবি তুলে দেওয়া হবে, নামকরণ করা হবে রাস্তার,’’ বলেন বিয়াঙ্কা। সঙ্গে যোগ করেন, ‘‘এই জায়গাটায় কিন্তু আমি রাতারাতি উঠে আসিনি। প্রচুর ঘাম ঝরেছে। অনেক ওঠা-নামার মুখে পড়েছি। তবে কখনই হাল ছেড়ে দিইনি। না হলে আজ আপনাদের সঙ্গে এই জায়গায় দাঁড়িয়ে থাকতে পারতাম না। যদি আমি পারি, সেরিনা পারে, রজার পারে, র‌্যাপ্টর্স পারে, তা হলে আপনিও পারবেন।’’ 

অনুষ্ঠানের ছবি সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্ট করে বিয়াঙ্কা আবার লিখেছেন, ‘‘এই দিনটা কোনও দিন ভুলতে পারব না। মিসিসগা শহরকে ধন্যবাদ। যারা এমন একটা অসাধারণ মিছিল আয়োজন করেছিল। যাঁরা উপস্থিত হয়েছিলেন তাঁদের সবাইকেও ধন্যবাদ জানাচ্ছি।’’ কানাডার প্রধানমন্ত্রী জাস্টিন ট্রুডো বলেন, ‘‘বয়স্ক বা তরুণ, সমস্ত কানাডাবাসীদের কাছে বিয়াঙ্কা অনুপ্রেরণা। বিশেষ করে তরুণদের কাছে। কারণ বিয়াঙ্কা দেখিয়ে দিয়েছে তরুণদের সামনে অসম্ভব বলে কিছু নেই।’’ সোশ্যাল মিডিয়াতে এই অনুষ্ঠানের ছবি পোস্ট করে কানাডার প্রধানমন্ত্রী লেখেন, ‘‘কানাডায় সব কি‌ছুই সম্ভব। বিয়াঙ্কা তুমি সবার প্রেরণা। তোমার জন্য গর্বিত।’’

উৎসব: রবিবার নাগরিক সংবর্ধনা দেওয়া হল বিয়াঙ্কা আন্দ্রেস্কুকে।  তাঁর নামে নতুন রাস্তা। রয়টার্স

জুন মাসে টরন্টো র‌্যাপ্টর্স এনবিএ চ্যাম্পিয়নশিপ জেতার পরে কানাডার খেলাধুলোর জগতে বিয়াঙ্কার মতো এত বড় কৃতিত্ব আর কেউ দেখাতে পারেননি। র‌্যাপ্টর্স এর একটা স্লোগানও বিয়াঙ্কার সম্মানে পাল্টে দেওয়া হয়। বিয়াঙ্কার সম্মানে আয়োজিত মিছিলে উপস্থিত থাকা টরন্টোর মেয়র জন টোরি আবার ঘোষণা করেন, এখন থেকে টরন্টোয় ১৬ সেপ্টেম্বর পালিত হবে ‘বিয়াঙ্কা আন্দ্রেস্কু দিবস’ হিসেবে।