• সংবাদ সংস্থা
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

৫৬ বলে ১০০! জন্মদিনে টি-টোয়েন্টিতে প্রথম সেঞ্চুরি ওয়ার্নারের

Warner
সেঞ্চুরির পর ওয়ার্নার। রবিবার অ্যাডিলেডে। ছবি: এএফপি।

Advertisement

জীবনের প্রথম আন্তর্জাতিক টি-টোয়েন্টি সেঞ্চুরি। আর সেটাও এল জন্মদিনে। রবিবার অ্যাডিলেডে শ্রীলঙ্কার বিরুদ্ধে সিরিজের প্রথম টি-টোয়েন্টিতে তৃতীয় অজি ব্যাটসম্যান হিসেবে শতরান করলেন ডেভিড ওয়ার্নার। তিনিই হলেন একমাত্র অজি যিনি তিন ফরম্যাটেই আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে সেঞ্চুরি করলেন। ওয়ার্নারের দাপটেই ১৩৪ রানে জিতে তিন ম্যাচের সিরিজে ১-০ এগিয়ে গেল অস্ট্রেলিয়া।

রবিবার অ্যাডিলেড টস হেরে ব্যাট করতে নেমেছিল অ্যারন ফিঞ্চের অস্ট্রেলিয়া। ওপেনিংয়েই ফিঞ্চ-ওয়ার্নার ১০.৫ ওভারে তুললেন ১২২। ফিঞ্চ ৩৬ বলে করলেন ৬৪। যাতে ছিল আটটি চার ও তিনটি ছয়। এর পর দ্বিতীয় উইকেটে গ্লেন ম্যাক্সওয়েলের সঙ্গে ওয়ার্নার যোগ করলেন ১০৭ রান। ১৯.৩ ওভারে ফিরলেন ম্যাক্সওয়েল। তিনি ২৮ বলে মারমার কাটকাট ভঙ্গিতে করলেন ৬২ রান। ইনিংসে ছিল সাতটি চার ও তিনটি ছয়।

ইনিংসের একেবারে শেষ বলে শতরানে পৌঁছলেন ওয়ার্নার। ৫৬ বলে অপরাজিত থাকলেন ১০০ রানে। যার সুবাদে নির্ধারিত ২০ ওভারে দুই উইকেটে ২৩৩ তুলল অস্ট্রেলিয়া। ওয়ার্নারের ইনিংসে ছিল ১০টি চার ও চারটি ছয়। ২৮ বলে এসেছিল তাঁর প্রথম পঞ্চাশ। পরের পঞ্চাশও এল ঠিক ২৮ বলে। 

আরও পড়ুন: ঘরের মাঠে অপ্রতিরোধ্য ভারতকে চ্যালেঞ্জ জানাতে পারে এই বিশ্ব একাদশ

আরও পড়ুন: সৌরভ সহজাত নেতা, নতুন বোর্ড প্রেসিডেন্টের উচ্ছ্বসিত প্রশংসায় রবি শাস্ত্রী

কিছুদিন আগের অ্যাশেজে জঘন্য ফর্মে ছিলেন ওয়ার্নার। ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে টেস্ট সিরিজে ১০ ইনিংসে করেন মাত্র ৯৫ রান। আর ৩৩তম জন্মদিনে শ্রীলঙ্কার বিরুদ্ধে সিরিজের প্রথম টি-টোয়েন্টিতেই নট আউট থাকলেন ১০০ রানে। টি-টোয়েন্টি ফরম্যাটে সার্বিক ভাবে তাঁর রান দাঁড়াল ৮৮০৩। ক্রিস গেল (১৩০৫১), ব্রেন্ডন ম্যাকালাম (৯৯২২), কায়রন পোলার্ড (৯৭৮০) ও শোয়েব মালিকের (৯১২০) পরেই এখন তিনি।

তবে টি-টোয়েন্টি আন্তর্জাতিকে প্রথম সেঞ্চুরি পেতে তাঁর লাগল ৭১ ইনিংস। এর চেয়ে বেশি ইনিংস লেগেছিল শুধু আয়ারল্যান্ডের কেভিন ও’ব্রায়েনের (৭৪ ইনিংস)। এই ফরম্যাটে অস্ট্রেলিয়ার হয়ে এর আগে তিন অঙ্কের রানে পৌঁছেছিলেন তিনজন। ম্যাক্সওয়েল, ফিঞ্চ ও শন ওয়াটসন। এর মধ্যে ম্যাক্সওয়েলের রয়েছে তিনটি সেঞ্চুরি। ফিঞ্চের রয়েছে দুটো সেঞ্চুরি। ওয়ার্নার হলেন চতুর্থ অজি ব্যাটসম্যান। 

২৩৪ রানের জয়ের লক্ষ্য তাড়া করতে নেমে শুরু থেকেই চাপে ছিল শ্রীলঙ্কা। শেষ পর্যন্ত ২০ ওভারে নয় উইকেট হারিয়ে তোলে মাত্র ৯৯। মিচেল স্টার্ক ও প্যাট কামিংস দুই উইকেট নিয়েছেন। তবে অস্ট্রেলিয়ার সফলতম বোলার হলেন লেগস্পিনার অ্যাডাম জাম্পা। তিনি ১৪ রানে তিন উইকেট নিয়েছেন।

সবাই যা পড়ছেন

Advertisement

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন
বাছাই খবর

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন