• নিজস্ব প্রতিবেদন
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

সিন্ধুর দুঃসময় চলছেই, বিদায় হংকং থেকেও

Sindhu
স্বপ্নভঙ্গ: হংকং ওপেনে দ্বিতীয় রাউন্ডেই হার সিন্ধুর। ফাইল চিত্র

বিশ্বচ্যাম্পিয়ন হওয়ার পরে পি ভি সিন্ধুর দুঃসময় অব্যাহত। হংকং ওপেন থেকেও তিনি বিদায় নিলেন দ্বিতীয় রাউন্ডে বিশ্বের ১৮ নম্বর খেলোয়াড় থাই বুসানান ওঙবামরাংফানের কাছে তিন গেম লড়াই করে। সিন্ধু হারলেন ১৮-২১, ২১-১১, ১৬-২১ গেমে।

হংকংয়ে বৃহস্পতিবার ভারতের জন্য আরও খারাপ খবর রয়েছে। সিন্ধুর মতোই বিদায় নিয়েছেন পারুপাল্লি কাশ্যপ এবং এইচ এস প্রণয়। কাশ্যপকে হারিয়েছেন টুর্নামেন্টের দ্বিতীয় বাছাই তাইওয়ানের চোউ তিয়েন চেন। ফল ২১-১২, ২১-২৩, ১০-২১। প্রথম গেম জিতলেও তিনি শেষরক্ষা করতে পারেননি। খেলা গড়ায় এক ঘণ্টা।

প্রণয় হেরেছেন ৪০ মিনিটে ১২-২১, ১৯-২১ গেমে ২০১৮-র এশিয়ান গেমসের সোনাজয়ী জোনাথান ক্রিস্টির কাছে। খারাপ খবর মিক্সড ডাবলসেও। দ্বিতীয় রাউন্ডেই সাত্ত্বিকসাইরাজ রানকিরেড্ডি-অশ্বিনী পোনাপ্পা জাপানের চতুর্থ বাছাই জুটি ইওতা ওয়াতানাবে-আরিশা হিগাশিনোর কাছে পরাজিত হন মাত্র ৪২ মিনিটে। ফল ১৯-২১, ১২-২১। 

সে ভাবে দেখলে ভারতের জন্য ভাল খবর একটাই। কিদম্বি শ্রীকান্তের জয়। ৫৯ মিনিটে তিনি জেতেন ভারতেরই সৌরভ বর্মার বিরুদ্ধে। তবে তিনিও স্ট্রেট গেমে জেতেননি। খেলার ফল ২১-১১, ১৫-২১, ২১-১৯। বিশ্বের প্রাক্তন এক নম্বর শ্রীকান্ত এখন ১৩ নম্বরে নেমে গিয়েছেন। আর সৌরভকে হারিয়ে শ্রীকান্ত শেষ সাত মাসে প্রথম বার কোনও টুর্নামেন্টের কোয়ার্টার ফাইনালে উঠলেন। তিনি শেষ বার এপ্রিলে সিঙ্গাপুর ওপেনের কোয়ার্টার ফাইনালে খেলেছিলেন। গুন্টুরের এই খেলোয়াড় জাপানের কেন্তো মোমোতার বিরুদ্ধে প্রথম রাউন্ডে বাই পেয়েছিলেন। তবে পরের রাউন্ডে তাঁর লড়াইটা বেশ কঠিন। শ্রীকান্তকে খেলতে হবে অলিম্পিক্স চ্যাম্পিয়ন চিনের চেং লংয়ের বিরুদ্ধে।

ভারতীয় ব্যাডমিন্টন মহলের আগ্রহ বেশি ছিল সিন্ধুর ম্যাচ নিয়েই। দেখার বিষয় ছিল, হংকংয়ে তিনি ঘুরে দাঁড়াতে পারেন কি না। কিন্তু শেষ পর্যন্ত তেমন কিছু হল না। আবার হারলেন ভারতীয় তারকা।  বিশ্বের ছ’নম্বর সিন্ধু এ দিন বুসাননের কাছে হার মানলেন ৬৯ মিনিট লড়াই করে। তাইল্যান্ডের এই প্রতিপক্ষের বিরুদ্ধে এর আগে কিন্তু দশ বার খেলে দশ বারই জিতেছিলেন সিন্ধু। হংকংয়ের আগে ভারতীয় তারকা চিন, কোরিয়া ও ডেনমার্কেও টুর্নামেন্টের প্রথম দিকে ছিটকে যান।

হঠাৎ সিন্ধুর এত খারাপ খেলা দেখে ভারতীয় ব্যাডমিন্টন মহল রীতিমতো উদ্বিগ্ন। বিশেষ করে টোকিয়ো অলিম্পিক্সের কথা ভেবে। চিন্তিত তাঁর কোচ পুল্লেলা গোপীচন্দও। তিনি বলেছেন, ‘‘রিয়ো অলিম্পিক্সের আগে সবাই ভেবেছিল সাইনাই (নেহওয়াল) পদক জিতবে। কিন্তু রুপো জেতে সিন্ধু। এ বার ছবিটা ঠিক উল্টো।’’ গোপী যোগ করেছেন, ‘‘এখন সবাই ওর খেলার ধরনটা জেনে গিয়েছে। সেটা একটা বড় সমস্যা। আমার ওকে নিয়ে বিশেষ কিছু পরিকল্পনা আছে। কিন্তু তার জন্য সময়ের দরকার। আশা করছি পরের বছরের এপ্রিল থেকে জুলাইয়ে সেই সময়টা পেয়ে যাব।’’ 

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন