সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

ছবি নামাল হিমাচলও

দেশের জন্য লড়াইয়ে যেতেও রাজি, হুঙ্কার দিচ্ছেন শামি

Mohammed Shami
ক্ষুব্ধ: পুলওয়ামার হামলা ভোলা যাবে না, বলছেন শামি। ফাইল চিত্র

কাশ্মীরের পুলওয়ামায় জঙ্গি হামলার ঘটনার পরিপ্রেক্ষিতে আগের দিন হরভজন সিংহ তোপ দেগেছিলেন। এ বার মুখ খুললেন ভারতীয় দলের বর্তমান দুই ক্রিকেটার— মহম্মদ শামি এবং যুজবেন্দ্র চহাল। শামি তো এও জানিয়ে দিয়েছেন, দেশের জন্য তিনি লড়াই করতে তৈরি।  

ভারতীয় বোলিংয়ের অন্যতম অস্ত্র শামি আগের দিন প্রয়াত জওয়ানদের পরিবারদের অর্থসাহায্য করেছিলেন। সেই শামি মঙ্গলবার সর্বভারতীয় সংবাদমাধ্যমে বলেছেন, ‘‘পুলওয়ামার ঘটনা আমাদের ভুলে গেলে চলবে না। যাঁরা দেশের জন্য প্রাণ দিয়েছেন, তাঁদের কিছুতেই ভোলা যাবে না।’’ এখানেই শেষ নয়। শামি বলেছেন, ‘‘এই ঘটনায় আমি প্রচণ্ড ক্রুদ্ধ। স্তম্ভিত হয়ে গিয়েছি। দেশের সবাই নিশ্চয়ই একই রকম ভাবছেন। আমি দেশের জন্য লড়াই করতে তৈরি, আমাদের পরিবারের জন্য লড়াই করতে তৈরি। আমার মনে হয় না, দেশের কেউ না বলবে এতে। আমি যে কোনও পরিস্থিতির মোকাবিলা করার জন্য তৈরি।’’

কাশ্মীরে সাম্প্রতিক ভয়ঙ্কর জঙ্গি হামলার রেশ যে ভাবে দুই দেশের ক্রিকেটীয় সম্পর্কে পড়তে শুরু করেছে, তা বেনজির। ভারতের বিভিন্ন আন্তর্জাতিক ক্রিকেট কেন্দ্র থেকে সরিয়ে ফেলা হচ্ছে পাকিস্তানি ক্রিকেটারদের ছবি। মুম্বইয়ের ক্রিকেট ক্লাব অফ ইন্ডিয়ায় (সিসিআই) ঢেকে দেওয়া হয় প্রাক্তন পাকিস্তানি অধিনায়ক ও বর্তমান প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানের ছবি। চণ্ডীগড়ের মোহালি ও জয়পুরের সওয়াই মান সিংহ স্টেডিয়ামে পাকিস্তানি ক্রিকেটারদের ছবি নামিয়ে দেওয়া হয়। এ দিন ধর্মশালার হিমাচল প্রদেশ ক্রিকেট সংস্থার স্টেডিয়াম থেকেও সরিয়ে ফেলা হয়েছে ইমরান, ওয়াসিম আক্রম, জাভেদ মিয়াঁদাদের ছবি। 

শামিরই সতীর্থ, ভারতীয় লেগস্পিনার চহাল আবার বলে দিয়েছেন, ‘‘আর সহ্য করা যাচ্ছে না। মুখোমুখি ফয়সালা করার সময় এসেছে।’’ এ দিন চহাল বলেছেন, ‘‘তিন মাস অন্তর খবর আসে, জঙ্গিদের হাতে প্রাণ দিতে হয়েছে আমাদের জওয়ানদের। আর অপেক্ষা করা যাচ্ছে না। আমাদের এ বার কিছু করে দেখানোর সময় এসেছে। মুখোমুখি ফয়সালার পালা এ বার। সে জন্য যদি এ পার-ও পারের লড়াই হয়, তাও করতে হবে।’’

জঙ্গি হামলার ঘটনার জেরে বিশ্বকাপে ভারত-পাকিস্তান ম্যাচ বাতিলের দাবি উঠেছে। যে দাবিতে গলা মিলিয়েছেন হরভজনের মতো ক্রিকেটার। তবে বিশ্বকাপে পাকিস্তান ম্যাচ বয়কট করা হবে কি না, তা নিয়ে প্রশ্ন হলে চহাল বলেন, ‘‘বিশ্বকাপে আমরা পাকিস্তানের বিরুদ্ধে খেলব কি না, সে সিদ্ধান্ত তো বোর্ড ও সরকার নেবে। দলের দু-একজনের পক্ষে তা সম্ভব না। তবে সন্ত্রাসবাদ দমনে পদক্ষেপ করার সঠিক সময় এটাই।’’ 

একই প্রশ্নের উত্তরে শামি বলেছেন, ‘‘আমার মনে হয়, এ ব্যাপারে সরকারেরই সিদ্ধান্ত নেওয়া উচিত। যা সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে, তা আমরা মেনে চলব।’’ পাশাপাশি শামি এও যোগ করেছেন, ‘‘আমি একটা জিনিস চাইব। আসন্ন অস্ট্রেলিয়া সিরিজটা যদি আমরা জিতি, তা হলে সেটা যেন মৃত জওয়ানদের উৎসর্গ করা হয়। অস্ট্রেলিয়া সিরিজটা আমি ব্যক্তিগত ভাবে প্রয়াত জওয়ানদের জন্য জিততে চাই।’’ শামি এও বলেছেন, ‘‘প্রয়াত জওয়ানদের পরিবারকে সাহায্য করাটা আমাদের একটা কর্তব্য। আমার মতে, প্রত্যেক ভারতীয়ের উচিত আমাদের সেনাবাহিনীর পাশে দাঁড়ানো।’’ 

এ দিকে, এ দিনই ইমরান খান বলেছেন, ভারত আক্রমণ করলে তাঁরা তৈরি। ইমরানের যে বক্তব্য আবার টুইট করে শাহিদ আফ্রিদি লিখেছেন, ‘‘একেবারে পরিষ্কার কথা।’’   

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন