• নিজস্ব প্রতিবেদন
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

ছ’বারে বিশ্বকাপ জয়ের কথায় সন্দেশকে উদ্বুদ্ধ করেন সচিন

Sandesh Jhingan
অকপট: উন্নতি আইএসএলের জন্য, বললেন সন্দেশ। ফাইল চিত্র

ক্রিকেট ছেড়ে ফুটবলকে বেছে নিয়েছিলেন শৈশবে। সেই সন্দেশ ঝিঙ্গানের জীবন দর্শন বদলে দিয়েছিলেন এক কিংবদন্তি ক্রিকেটারই। তিনি, সচিন তেন্ডুলকর।

এটিকে বনাম কেরল ব্লাস্টার্স প্রথম আইএসএল ফাইনাল। হারের পরে মানসিক ভাবে বিপর্যস্ত হয়ে পড়েন সন্দেশ। তখন কেরলের অন্যতম অংশীদার ছিলেন সচিন। ম্যাচের পরে তাঁর মন্ত্রেই যন্ত্রণা ভুলেছিলেন কেরল ডিফেন্ডার। সোশ্যাল মিডিয়ায় এআইএফএফ টিভিতে সন্দেশ বলেছেন, ‘‘হারের পরে সম্পূর্ণ ভেঙে পড়েছিলাম। সচিন স্যর আমার কাছে এসে শান্ত ভাবে বলেছিলেন, ছ’বারের চেষ্টায় আমি বিশ্বকাপ জিততে সফল হয়েছি। প্রথম ফাইনালে হারের পরে ভেঙে পড়লে চলবে না।’’

এই মুহূর্তে ভারতীয় ফুটবলের  অন্যতম সেরা ডিফেন্ডার সন্দেশ। চোটের জন্য দীর্ঘ দিন মাঠের বাইরে ছিলেন। সুস্থ হয়ে মাঠে ফেরার প্রস্তুতিতে যখন ব্যস্ত, তখনই শুরু হয় লকডাউন। অনুশীলন কিন্তু বন্ধ করেননি সচিনের পরামর্শে উদ্বুদ্ধ ভারতীয় ডিফেন্ডার। তাঁর কথায়, ‘‘সচিন স্যরের ইতিবাচক মানসিকতা সংক্রমণের মতো। কাছাকাছি থাকলেই নিজেকে অনেক বেশি উদ্বুদ্ধ লাগে। এই কারণেই সচিন স্যর কিংবদন্তি।’’

শুধু সচিন নন, সন্দেশ উচ্ছ্বসিত আইএসএল নিয়েও। তাঁর মতে সম্প্রতি ভারতীয় ফুটবলের যে উন্নতি হয়েছে, তার নেপথ্যে বড় ভূমিকা রয়েছে এই প্রতিযোগিতার। সন্দেশের ব্যাখ্যা, ‘‘ফিফা র‌্যাঙ্কিংয়ে ১৭৩ থেকে ৯৬তম স্থানে আমরা উঠেছিলাম। নেপাল থেকে কাতার— একাধিক  শক্ত প্রতিপক্ষের বিরুদ্ধে খেলেছি। অনেক অভিজ্ঞতা অর্জন করছি সাম্প্রতিক কালে। যদিও এখনও আমাদের অনেক দূর যাওয়া বাকি রয়েছে।’’

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন