সুপ্রিম কোর্টের নতুন রায়ে ভারতীয় ক্রিকেট রাজনীতিতে ভেসে উঠলেন এন শ্রীনিবাসন।

শুক্রবার সুপ্রিম কোর্ট রায় দেয় যে, সত্তরোর্ধ্বরা পদাধিকারী না হতে পারলেও তাঁদের ভোটদানের অধিকার থাকবে। ইতিমধ্যেই সিএবি-সহ বিভিন্ন রাজ্য ক্রিকেট সংস্থায় তুমুল ক্ষোভ তৈরি হয়েছিল। শ্রীনিরই রাজ্য তামিলনাড়ু গিয়েছিল সুপ্রিম কোর্টে। তার পরিপ্রেক্ষিতে সুপ্রিম কোর্ট রায় দেয় যে, পদাধিকারী হতে পারবেন না কিন্তু সত্তরোর্ধ্বদের ভোটদানের অধিকার থাকবে। পাশাপাশি, c এই আদেশ যদি বলবৎ থাকে, তার অর্থ দাঁড়াচ্ছে এটাই যে শ্রীনিবাসন বোর্ড বা রাজ্য সংস্থার কোনও পদে থাকতে পারবেন না। কিন্তু তিনিই তাঁর রাজ্য সংস্থার মুখ হিসেবে  বোর্ডের নির্বাচনে ভোট দিতে আসতে পারেন। ভারতীয় ক্রিকেটমহলে বলাবলি হচ্ছে যে, তার মানেই শ্রীনিবাসন একেবারে ক্রিকেট রাজনীতি থেকে  হারিয়ে যাবেন না। তিনি প্রভাবশালী পদে না থেকেও বোর্ড রাজনীতিতে প্রভাব বিস্তারের মতো জায়গা তৈরি করতে পারেন।

গত মঙ্গলবার বিভিন্ন ক্রিকেট সংস্থার প্রতিনিধিদের সঙ্গে টেলি-বৈঠকে আলোচনা করে সিওএ-র নতুন নির্দেশিকার বিরুদ্ধে প্রশ্ন তোলেন শ্রীনিবাসন। সেই প্রতিবাদী সংস্থাগুলোর মধ্যে সিএবি-ও অন্যতম। শুরু থেকেই তারা চেয়ে এসেছে সত্তরোর্ধ্বদের ভোটাধিকার। শুক্রবার সুপ্রিম কোর্টের রায়ে অনেকটাই স্বস্তি ফিরে এল বাংলার ক্রিকেট সংস্থায়।

সিএবি-তে সত্তরোর্ধ্বরা আগের সিদ্ধান্তে ক্ষোভপ্রকাশ করছিলেন। তাঁরা আদালতেও যাবেন ভেবেছিলেন। এখন আর তার কোনও দরকার পড়ছে না। এ নিয়ে সিএবি প্রেসিডেন্ট সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়ও খুশি। তিনি বলেন, ‘‘সত্তরোর্ধ্ব সদস্যেরা ভোটাধিকার না পেলে কাদের নিয়ে সংস্থা চালাতাম। সুপ্রিম কোর্টের এই রায়কে আমরা স্বাগত জানাচ্ছি। আশা করব আর কোনও সমস্যা হবে না।’’

শোনা যাচ্ছে শুক্রবারই মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন স্নেহাশিস গঙ্গোপাধ্যায়। তবে কোন পদের জন্য তিনি মনোনয়নপত্র জমা দিলেন তা এখনও পরিষ্কার নয়। কারও মত, অ্যাপেক্স কাউন্সিলের সদস্য হিসেবে মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন তিনি। সুতরাং সিএবি প্রেসিডেন্ট ও যুগ্মসচিবের পদে সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায় ও অভিষেক ডালমিয়াই হয়তো থাকছেন। তাঁরা আজ, শনিবার মনোনয়নপত্র জমা দেবেন। আরও এক যুগ্মসচিব পদের দৌড়ে এগিয়ে টাউন ক্লাবের কর্তা দেবব্রত দাস। ভাইস প্রেসিডেন্ট পদে লড়াই হতে পারে সমর পাল ও নরেশ ওঝার মধ্যে। কোষাধ্যক্ষের পদে দেবাশিস গঙ্গোপাধ্যায় অথবা প্রবীর চক্রবর্তীর মধ্যে যে কোনও একজনকে পদাধিকার দেওয়া হবে। এ বিষয়ের চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত হবে আজ। শনিবারই মনোনয়ন জমা দেওয়ার শেষ দিন।