• নিজস্ব প্রতিবেদন
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

পেসারদের জন্য উড়ানে বিজনেস ক্লাসের সিট ছেড়ে দিলেন বিরাট-অনুষ্কা

Virat and Anushka
সোশ্যাল মিডিয়ায় প্রশংসিত হচ্ছেন বিরাট-অনুষ্কা।

Advertisement

মাঠের মধ্যে তো বটেই। মাঠের বাইরেও নেতা হতে হয় অধিনায়ককে। আর তেমন উদাহরণই রাখলেন বিরাট কোহালি। অ্যাডিলেড থেকে পারথের উড়ানে ছিলেন তিনি। সেখানে স্ত্রী অনুষ্কা শর্মা ও তিনি জাতীয় দলের পেসারদের জন্য ছেড়ে দিলেন বিজনেস ক্লাসের সিট।

আর এই ঘটনা ফাঁস করেছেন ইংল্যান্ডের প্রাক্তন অধিনায়ক মাইকেল ভন। টুইটারে তিনি লিখেছেন, “অ্যাডিলেড-পারথের উড়ানে পেসাররা যাতে আরামে বসতে পারে, তার জন্য বিজনেস ক্লাসের সিট ছেড়ে দিলেন বিরাট কোহালি ও তাঁর স্ত্রী। অস্ট্রেলিয়া সতর্ক হও। শুধু যে ভারতীয় জোরে বোলাররাই রিল্যাক্স রয়েছে তা নয়, অধিনায়ক মানবিকতার সঙ্গে তাদের ব্যবহারও করছেন।”

বিরাট-অনুষ্কার এই আচরণ স্বাভাবিক ভাবেই সোশ্যাল মিডিয়ায় প্রশংসিত হচ্ছে। দ্বিতীয় টেস্ট শুরু শুক্রবার থেকে। তার আগে ক্রিকেটারদের বিশ্রামে জোর দিতে চাইছেন কোচ রবি শাস্ত্রী। পারথের উইকেটে জোরে বোলাররা সুবিধা পাবেন বলে মনে করা হচ্ছে। প্রথাগত ভাবে সেটাই হয়ে আসছে। তবে এ বার পারথে নতুন স্টেডিয়ামে খেলা। যদিও সেখানে উইকেট গতিময় থাকছে বলে মনে করছে ক্রিকেটমহল। পেসারদের তরতাজা রাখার ভাবনা সেজন্যই জোরালো।

আরও পড়ুন: ‘অনুষ্কার সঙ্গে দেখা হওয়ার পর…’ কী বললেন বিরাট?

আরও পড়ুন: 'অশালীন' মন্তব্য, সোশ্যাল মিডিয়ায় তোপের মুখে রবি শাস্ত্রী

মঙ্গলবার আবার ছিল বিরাট-অনুষ্কার বিবাহবার্ষিকী। বলিউডি নায়িকা এই মুহূর্তে নিজের কাজ থেকে ছুটি নিয়ে রয়েছেন অস্ট্রেলিয়ায়। সময় কাটাচ্ছেন কোহালির সঙ্গে। সোমবার অ্যাডিলেডে অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে প্রথম টেস্ট জেতার পর জাতীয় দলের ক্রিকেটার পৃথ্বী শ’র সঙ্গে বিরাট-অনুষ্কাকে দেখা গিয়েছিল একসঙ্গে। বিবাহবার্ষিকীর দিনে দু’জনে জাতীয় দলের সঙ্গে চলে গেলেন পারথে। তার আগে অবশ্য সোশ্যাল মিডিয়ায় দু’জনেই পোস্ট করেছেন। বিরাট লিখেছেন, “বিশ্বাসই হচ্ছে না যে একবছর কেটে গেল। এটা যেন সবে গতকালের ঘটনা। সময় সত্যিই যেন উড়ে গেল। প্রিয় বন্ধু ও জীবনসঙ্গীকে শুভ বিবাহবার্ষিকী।” পোস্টে বিয়ের বিভিন্ন ছবিও দিয়েছেন বিরাট। সোশ্যাল মিডিয়ায় অনুষ্কা আবার পোস্ট করেছেন ভিডিয়ো। সঙ্গে লিখেছেন, “সময় কী ভাবে চলে গেল বুঝতেই পারলাম না যখন, তখন এটাই স্বর্গ। একজন ভাল মানুষকে বিয়ে করাও স্বর্গীয় অনুভূতি।”

বিরাট-কোহালিকে শুভেচ্ছা জানিয়ে সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্ট করেছেন অনেকে। তবে এই আবহকে একেবারেই অন্য মাত্রা দিল ভনের পোস্ট। বিরাট-অনুষ্কার আরামদায়ক সিট পেসারদের জন্য ছেড়ে দেওয়া প্রশংসিত হলেও উঠল অন্য প্রশ্ন। দলের সবাই কেন একসঙ্গে বিজনেস ক্লাসে ছিলেন না, এটা অনেকেরই জিজ্ঞাসা। অধিনায়ক কেন বাকি দলের থেকে আলাদা সিট পাবেন, এই প্রশ্নও উঠছে। প্রশ্নের মুখে পড়ছে ভারতীয় ক্রিকেট কন্ট্রোল বোর্ডও।

(আইসিসি বিশ্বকাপ হোক বা আইপিএল, টেস্ট ক্রিকেট, ওয়ান ডে কিংবা টি-টোয়েন্টি। ক্রিকেট খেলার সব আপডেট আমাদের খেলা বিভাগে।)

সবাই যা পড়ছেন

Advertisement

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন
বাছাই খবর

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন