বর্ণময় অতীত। সুমহান ঐতিহ্য। কিন্তু, গত কয়েক দশক ধরেই ক্যারিবিয়ান ক্রিকেট সেই উচ্চতা থেকে পিছলে পড়েছে নীচে। ভারতে ওয়েস্ট ইন্ডিজের টেস্টের পরিসংখ্যানেই যা প্রতিফলিত।

দুই যুগ আগে শেষবার ভারতে এসে টেস্ট জিতেছিল ওয়েস্ট ইন্ডিজ। ১৯৯৪ সালের ডিসেম্বরে মোহালিতে সিরিজের তৃতীয় টেস্টে মহম্মদ আজহারউদ্দিনের ভারতকে হারিয়েছিল ২৪৩ রানে। সেই টেস্ট জিতে সিরিজ ১-১ করেছিল কোর্টনি ওয়ালশের দল। সেটাই শেষ। তারপর আর ভারতে টেস্ট সিরিজ তো দূর, টেস্টই জেতেনি ক্যারিবিয়ানরা।

ওয়েস্ট ইন্ডিজের সেবারের দল অবশ্য রীতিমতো শক্তিশালী ছিল। কোর্টনি ওয়ালশের নেতৃত্বে দলে ছিলেন ব্রায়ান লারা, কার্ল হুপার, জিমি অ্যাডামস, কেনি বেঞ্জামিন, ফিল সিমন্স, কিথ আথারটনের মতো ক্রিকেটাররা।

আরও পড়ুন: দেখুন কেমন হবে এশিয়া কাপে ব্যর্থদের একাদশ

আরও পড়ুন: টেস্ট শুরুর আগে পিচ নিয়ে ‘ম্যাচ’​

সেই টেস্টে অ্যাডামসের ১৭৪ রানের ভিত্তিতে টস জিতে প্রথমে ব্যাট করতে এসে ৪৪৩ তুলেছিল ওয়েস্ট ইন্ডিজ। জবাবে মনোজ প্রভাকরের ১২০ রানের সুবাদে ভারত তোলে ৩৮৭ রান। ওয়েস্ট ইন্ডিজ দ্বিতীয় ইনিংসে তিন উইকেটে ৩০১ তুলে ডিক্লেয়ার করে। লারা ওপেন করতে এসে ৯১ রানের ইনিংস খেলেন। জেতার জন্য চতুর্থ ইনিংসে ভারতকে করতে হত ৩৫৮ রান। বেঞ্জামিনের পাঁচ উইকেটের দাপটে ইনিংসে দাঁড়ি পড়ে মাত্র ১১৪ রানে।

তারপর থেকে ভারতে আট টেস্ট খেলেছে ওয়েস্ট ইন্ডিজ। হেরেছ ছয়টিতে। ড্র হয়েছে দুই টেস্ট। অবশ্য ভারতের মাটিতে সেরা আট দলের টেস্ট না জেতার মেয়াদের তালিকায় এটা এক নম্বরে নেই। ১৯৮৮ সালের নভেম্বর থেকে যেমন ভারতে টেস্ট জেতেনি নিউ জিল্যান্ড। শ্রীলঙ্কা আবার ১৯৮২ সালে ভারতে প্রথম টেস্ট খেলেছিল। কিন্তু, এখনও ভারতে টেস্ট জয় অধরা থেকে গিয়েছে তাদের।

জেসন হোল্ডারের দলের কাজ তাই খুব একটা সহজ হওয়ার নয়। বৃহস্পতিবার থেকে শুরু হবে দুই টেস্টের সিরিজ। বিরাট কোহালির দলের বিরুদ্ধে শুধু যে ইতিহাসই বিরুদ্ধে তা নয়। শক্তির বিচারেও অনেক এগিয়ে ভারত।  

 

(ক্রিকেটের খবর,ফুটবলের খবর, টেনিসের খবর, হকির খবর - খেলার খবরের সেরা ঠিকানা আমাদের খেলা বিভাগ।)