Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

০১ ডিসেম্বর ২০২১ ই-পেপার

ডার্বির আগে জয়ে ফেরা হল না ইস্টবেঙ্গলের

নিজস্ব সংবাদদাতা
১৬ জানুয়ারি ২০১৮ ১৮:৪৭
চেষ্টা করেও আইজলের বিরুদ্ধে জয় পেল না ইস্টবেঙ্গল। ছবি: এআইএফএফ।

চেষ্টা করেও আইজলের বিরুদ্ধে জয় পেল না ইস্টবেঙ্গল। ছবি: এআইএফএফ।

আইজল-কাঁটা যেন কিছুতেই পিছু ছাড়ছে না লাল-হলুদের। ঘরের মাঠে ২-২ গোলে আটকে যাওয়ার পর ফিরতি ম্যাচেও মঙ্গলবার আইজলের সঙ্গে গোলশূন্য ড্র করল ইস্টবেঙ্গল।

সঙ্গে লিগের লড়াইয়ে নিজেদের উপর চাপটা নিজেরাই বাড়িয়ে নিল লাল-হলুদ ব্রিগেড।

তবে, ম্যাচে একটি গোল না হলেও এ দিনের খেলা কিন্তু ছিল বেশ আকর্ষণীয়। বৈচিত্র এবং গতির ফুটবলের সঙ্গে মিজোরামের প্রাকৃতিক সৌন্দর্য ম্যাচকে করে তুলেছিল চিত্তাকর্ষক। যোগ্য সঙ্গত ছিল গ্যালারিতে উপস্থিত হাজার হাজার আইজল সমর্থকেরও। টানা ৯০ মিনিট নিজেদের দলকে তাতাতে বিভিন্ন সুরে সুর মেলালেন ফুটবলপ্রেমী সমর্থকরা।

Advertisement

এ দিন ম্যাচের শুরু থেকেই আক্রমণাত্মক ফুটবল খেলে আইজল। অন্য দিকে, অ্যাওয়ে ম্যাচ হলেও পিছিয়ে ছিলেন না জবি জাস্টিন-আল আমনারা। রক্ষণ সামলে ক্রমাগত আক্রমণে উঠতে থাকে ইস্টবেঙ্গল। আক্রমণ-প্রতিআক্রমণে জমে যায় ম্যাচ।

আরও পড়ুন: ‘চ্যাম্পিয়ন্স লিগে জ্বলে উঠতে পারে লিভারপুল’

আরও পড়ুন: ফুটবল দুনিয়া মুগ্ধ মেসির জাদু ফ্রি কিকে

এর মধ্যেই খেলা শুরুর পাঁচ মিনিটের মাথায় ব্যবধান বাড়ানোর সুযোগ পেয়ে যায় হোম টিম আইজল। তবে ফরওয়ার্ড লাইনের কারণে গোল করতে ব্যর্থ হয় পাওলো মেনিজেসের দল। ম্যাচের ১৬ মিনিটে ফের চান্স চলে আসে আইজলের সামনে। বক্সের মধ্যে ওপেন নেট পেয়েও গোল করতে পারেননি উইলিয়াম লালনুনফেলা।

সুযোগ আসে ইস্টবেঙ্গলের কাছেও। ম্যাচে গতি বাড়াতে ২৫মিনিটে প্রকাশ সরকারের পরিবর্তে ব্রেন্ডন ভানলালরেমডিকাকে মাঠে নামান লাল-হলুদ কোচ খালিদ জামিল।

এই পরিবর্তন ইস্টবেঙ্গলের খেলার বিন্যাস ঘটাতে অনেকটা সাহায্য করে। ম্যাচের ৩৩ মিনিটে সহজ সুযোগ পান তরুণ স্ট্রাইকার জবি জাস্টিন। তবে সেই সুযোগ কাজে লাগাতে পারেননি তিনি। এর পরও একের পর এক আক্রমণ তুলে আনতে থাকে দু'দল। তবে গোলের খাতা খোলেনি। প্রথমার্ধ শেষে খেলার ফল ছিল ০-০।

আশাকরা হয়েছিল, ডার্বির আগে দলকে জয়ের ছন্দে ফেরাতে হয়তো কোনও মাস্টারস্ট্রোক দেবেন লাল-হলুদ কোচ খালিদ জামিল। তবে, দ্বিতীয়ার্ধের শুরুতেই ডিফেন্সিভ পরিবর্তন নেয় ইস্টবেঙ্গল। অফ কালার অর্ণব মণ্ডলের পরিবর্তে দীপক কুমারকে মাঠে নামান খালিদ। তবে, ডিফেন্সিভ পরিবর্তন হলেও লাল-হলুদের খেলায় আক্রমণের ঝাঁঝ ছিল আগের মতোই।

দ্বিতীয়ার্ধেও একের পর পর এক আক্রমণ তুলে আনেন ব্রেন্ডন-কাটসুমিরা। মূলত কাটসুমি এবং আমনার যুগলবন্দিই বারবার ত্রাসের সঞ্চার ঘটাতে থাকে আইজলের রক্ষণভাগে।

তবে, স্ট্রাইকিং লাইনের দুর্বলতায় দু'উইং থেকে ভেসে আসা ক্রস এবং মাঝখান দিয়ে বাড়ানো ডিফেন্স-চেরা পাস কাজে লাগাতে পারেনি লাল-হলুদ। ম্যাচের ৮৩ মিনিটে জবি জাস্টিনের পরিবর্তে উইলিস প্লাজাকেও নামালেও গোল আসেনি। যেই স্কোরলাইন দিয়ে খেলা শুরু হয়েছিল সেই স্কোরলাইনেই শেষ হয় খেলা। আইজলের বিরুদ্ধে ড্র করার ফলে ১০ ম্যাচে ১৯ পয়েন্ট নিয়ে লিগ টেবিলের দ্বিতীয় স্থানেই থাকল ইস্টবেঙ্গল।

আরও পড়ুন

Advertisement