Advertisement
১৫ জুন ২০২৪
Ajinkya Rahane

‘সে দিন যেন স্বপ্নপূরণ হয়েছিল’

লর্ডসে সেই টেস্ট জয় কাটিয়েছিল এই মাঠে ২৮ বছরের খরা। আর বিদেশের মাটিতে ভারতের টেস্ট জয় এসেছিল ১১২৪ দিন পর।

লর্ডসে সেই টেস্ট সেঞ্চুরির মুহূর্তে রাহানে। ছবি: রয়টার্স।

লর্ডসে সেই টেস্ট সেঞ্চুরির মুহূর্তে রাহানে। ছবি: রয়টার্স।

নিজস্ব প্রতিবেদন
কলকাতা শেষ আপডেট: ১৭ মে ২০২০ ১৩:৩৫
Share: Save:

২০১৪ সালে ইংল্যান্ডের মাটিতে টেস্ট জিতেছিল মহেন্দ্র সিংহ ধোনির ভারত। অ্যালিস্টার কুকের ইংল্যান্ডকে লর্ডসে হারিয়েছিল তারা। সেই জয়ে বড় ভূমিকা ছিল অজিঙ্ক রাহানের সেঞ্চুরির। সেই জয়ই ফিরে দেখলেন তিনি।

সোশ্যাল মিডিয়ায় অজিঙ্ক রাহানে লিখলেন, “সঙ্কল্পে অটুট থাকা আর পরিস্থিতি অনুযায়ী ব্যাট করাই আমার মন্ত্র। সে দিনও এর কোনও ব্যতিক্রম ছিল না। এই স্মৃতি আজীবন মনে রাখব। লর্ডসের জয় ছিল স্বপ্নপূরণের মতো। টেস্ট ক্রিকেটের প্রতি ভালবাসা, প্যাশন কখনও চলে যাওয়ার নয়।” লর্ডসে সেই টেস্ট জয় কাটিয়েছিল এই মাঠে ২৮ বছরের খরা। আর বিদেশের মাটিতে ভারতের টেস্ট জয় এসেছিল ১১২৪ দিন পর।

আরও পড়ুন: যুবরাজের চ্যালেঞ্জ গ্রহণ করে চোখ বেঁধে ব্যাট বলের কারসাজি সচিনের, কিন্তু...​

আরও পড়ুন: ‘সচিনকে সে দিন আউট করেছিলাম, আম্পায়ার আউট দেননি’, বিস্ফোরক দাবি ডেল স্টেনের

সেই ইনিংসে রাহানে করেছিলেন ১০৩। তাঁর শতরানের সুবাদে ভারত প্রথমে ব্যাট করে তুলেছিল ২৯৫। জবাবে ২৪ রানের লিড নেয় ইংল্যান্ড। ভুবনেশ্বর কুমারের ছয় উইকেট বড় রানের ইনিংস গড়তে দেয়নি তাদের। দ্বিতীয় ইনিংসে ভারত তোলে ৩৪২। মুরলী বিজয় করেন ৯৫। হাফ-সেঞ্চুরি করেন রবীন্দ্র জাডেজা ও ভুবনেশ্বর। জেতার জন্য চতুর্থ ইনিংসে ইংল্যান্ডের দরকার ছিল ৩১৯ রান। টেস্টের পঞ্চম দিন যখন খেলা শুরু হয় তখন চার উইকেটে ইংল্যান্ড তুলেছিল ১০৫ রান। ছয় উইকেট হাতে নিয়ে হোমটিমের দরকার ছিল আরও ২১৪ রান। শেষ পর্যন্ত ২২৩ রানে দাঁড়ি পড়ে তাদের ইনিংসে। সাত উইকেট নেন ইশান্ত শর্মা। তিনিই ম্যাচের সেরা। ভারত জেতে ৯৫ রানে। সিরিজে ১-০ এগিয়ে যান ধোনিরা। কিন্তু তার পর সিরিজের চিত্রনাট্য যায় বদলে। ভারত হারে তিন টেস্ট। ইংল্যান্ডে ৩-১ ফলে দখল করে সিরিজ।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)
সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের মাধ্যমগুলি:
Advertisement

Share this article

CLOSE