Advertisement
১৮ জুন ২০২৪

যত কাণ্ড ব্যাডমিন্টনে

দক্ষিণ কোরিয়ার বিরুদ্ধে গুরুত্বপূর্ণ সেমিফাইনাল ম্যাচের আগের রাতে ইনচিওনের শুনশান রাস্তায় আধ ঘণ্টার উপর কাটাতে হল সাইনা নেহওয়ালদের। এ দিন, তাইল্যান্ডের বিরুদ্ধে জেতার পর গেয়াং জিমখানার বাইরে বেরিয়ে ভারতীয় ব্যাডমিন্টন টিম দেখে তাদের বাসের ড্রাইভার বেপাত্তা। রাত এগারোটা নাগাদ তাঁদের অসহায় ভাবে রাস্তায় দাঁড়িয়ে থাকা ছাড়া আর কোনও উপায় ছিল না। ক্লান্ত সাইনা-সিন্ধুরা সমস্যার সমাধানের জন্য স্বেচ্ছাসেবকদের অনুরোধ করেন। কিন্তু তাঁরা কোনও সাহায্য করতে পারেননি। চালক পরে ফিরলে বাস ছাড়ে।

পদক নিশ্চিত। বিপক্ষকে ধরাশায়ী করে সাইনা।  ছবি: এএফপি

পদক নিশ্চিত। বিপক্ষকে ধরাশায়ী করে সাইনা। ছবি: এএফপি

সংবাদ সংস্থা
ইনচিওন শেষ আপডেট: ২১ সেপ্টেম্বর ২০১৪ ০২:০৬
Share: Save:

দক্ষিণ কোরিয়ার বিরুদ্ধে গুরুত্বপূর্ণ সেমিফাইনাল ম্যাচের আগের রাতে ইনচিওনের শুনশান রাস্তায় আধ ঘণ্টার উপর কাটাতে হল সাইনা নেহওয়ালদের। এ দিন, তাইল্যান্ডের বিরুদ্ধে জেতার পর গেয়াং জিমখানার বাইরে বেরিয়ে ভারতীয় ব্যাডমিন্টন টিম দেখে তাদের বাসের ড্রাইভার বেপাত্তা। রাত এগারোটা নাগাদ তাঁদের অসহায় ভাবে রাস্তায় দাঁড়িয়ে থাকা ছাড়া আর কোনও উপায় ছিল না। ক্লান্ত সাইনা-সিন্ধুরা সমস্যার সমাধানের জন্য স্বেচ্ছাসেবকদের অনুরোধ করেন। কিন্তু তাঁরা কোনও সাহায্য করতে পারেননি। চালক পরে ফিরলে বাস ছাড়ে।

এ দিকে, রাত ১২টা বেজে গেলে গেমস ভিলেজে ফিরে কোনও খাবার পাওয়া যাবে না, সেটাও ভাবাচ্ছিল সাইনাদের। এমনিতেই গেমস ভিলেজের খাবার নিয়ে এ দিন সকালে অভিযোগ জানান শ্যুটিংয়ের ব্রোঞ্জজয়ী শ্বেতা চৌধুরী। যাঁর অভিযোগ, ভারতীয়দের পছন্দের কোনও খাবারই ভিলেজে নেই। স্যুপের মতো একটা ডাল প্রথম দিন পাওয়া গেছিল। পরে সেটাও আর মিলছে না। এমনকী শীতাতপ নিয়ন্ত্রণ ব্যবস্থা না থাকায় ভিলেজের ঘরে গরমে কষ্ট পাচ্ছেন অ্যাথলিটরা এই অভিযোগও উঠেছে। এ দিকে, শনিবারই ব্যাডমিন্টনের প্রথম রাউন্ড চলার সময় আচমকা স্টেডিয়ামের সব আলো নিভে যায়। ভারত সেই সময় ম্যাকাওয়ের বিরুদ্ধে লড়ছিল। সবকটি খেলাই বাধ্য হয়ে সেই সময় বন্ধ করে দিতে হয়। মিনিট পাঁচেক পর বিদ্যুৎ এলে খেলা শুরু হয়। কী কারণে এই বিদ্যুৎ বিভ্রাট সেটা রাত পর্যন্ত জানা যায়নি। সব মিলিয়ে ইনচিওনে ব্যাডমিন্টনে কোর্ট এবং কোর্টের বাইরে প্রথম দিনই ভারতীয় দলকে পোহাতে হল প্রচুর ঝামেলা।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)
সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের মাধ্যমগুলি:
Advertisement

Share this article

CLOSE