Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

২৮ নভেম্বর ২০২১ ই-পেপার

পাঁচ পরিবর্তের পরীক্ষাকে স্বাগত ভাইচুং, বিজয়নদের

শুভজিৎ মজুমদার
কলকাতা ১৩ মে ২০২০ ০৩:৩৩
সমর্থন: ভাইচুং ও বিজয়ন (ডান দিকে) বিপ্লবের পক্ষে। ফাইল চিত্র

সমর্থন: ভাইচুং ও বিজয়ন (ডান দিকে) বিপ্লবের পক্ষে। ফাইল চিত্র

করোনাভাইরাস অতিমারির মধ্যেই ঐতিহাসিক সিদ্ধান্ত নিয়েছে ফিফা। চলতি বছরের ৩১ ডিসেম্বর পর্যন্ত পরীক্ষামূলক ভাবে ফুটবল ম্যাচের মধ্যে তিনের বদলে পাঁচ জন পরিবর্ত ব্যবহার করা যাবে বলে অনুমতি দিয়েছে তারা।

বিশ্ব ফুটবলের নিয়ামক সংস্থার সিদ্ধান্তে উচ্ছ্বসিত ভারতের প্রাক্তন ফুটবল তারকারা। শিলিগুড়িতে গৃহবন্দি ভাইচুং ভুটিয়া আনন্দবাজারকে ফোনে বললেন, ‘‘অসাধারণ সিদ্ধান্ত নিয়েছে ফিফা। ফুটবলে এখন গতি অনেক বেশি। লড়াই এখন অনেক কঠিন হয়ে গিয়েছে। পাঁচ জন ফুটবলার পরিবর্তন হলে খেলা আরও আকর্ষণীয় হবে।’’ প্রাক্তন সতীর্থ ভাইচুংকেই সমর্থন করলেন আই এম বিজয়ন। ত্রিশূর থেকে ফোনে তিনি বললেন, ‘‘ফিফার এই সিদ্ধান্তকে স্বাগত। ফুটবলারদের ম্যাচ খেলার সুযোগ বাড়বে।’’

ফুটবল পণ্ডিতদের কেউ কেউ মনে করছেন, পাঁচ পরিবর্তের নিয়ম চালু হলে খেলার গতি কমে যাবে। বেশি পরিবর্তনে ছন্দ নষ্ট হতে পারে। বিজয়ন তাঁদের সঙ্গে একমত নন। ভারতীয় ফুটবলের সর্বকালের অন্যতম সেরা স্ট্রাইকারের ব্যাখ্যা, ‘‘আমি মনে করি, নতুন নিয়ম চালু হলে খেলার গতি অনেক বাড়বে। কারণ, ক্লান্ত ফুটবলারের পরিবর্তে তরতাজা কাউকে নামানোর সুযোগ পাবেন কোচেরা। আমার মতে ৩১ ডিসেম্বর পর্যন্ত নয়, পাকাপাকি ভাবেই পাঁচ ফুটবলার পরিবর্তন করার নিয়ম চালু করা উচিত ফিফার।’’

Advertisement

ভাইচুং-বিজয়নের সঙ্গে একমত আর এক প্রাক্তন নক্ষত্র শ্যাম থাপা। বাইসাইকেল ভলির নায়ক বলছেন, ‘‘ম্যাচের মধ্যে যত বেশি ফুটবলার পরিবর্তন হবে, তত খেলার আকর্ষণ বাড়বে। কারণ, টানা নব্বই মিনিট এক গতিতে খেলার ক্ষমতা খুব কম ফুটবলারের রয়েছে। ক্লান্তির প্রভাব ফুটবলারদের খেলায় পড়বেই। খেলার গতিও কমবে। ক্লান্ত ফুটবলারদের পরিবর্তন করলে ম্যাচের ছবি বদলে যাবে।’’ তিনি যোগ করেন, ‘‘ব্যক্তিগত ভাবে আমি মনে করি, সাময়িক ভাবে নয়, পাঁচ ফুটবলার পরিবর্তনের নিয়ম পাকাপাকি ভাবেই চালু করা উচিত ফিফার।’’

ফিফা অবশ্য নতুন নিয়ম প্রয়োগ করার বিষয়টি সম্পূর্ণ ভাবে ছেড়ে দিয়েছে প্রতিযোগিতার আয়োজকদের উপরে। সর্বভারতীয় ফুটবল ফেডারেশনের টেকনিক্যাল কমিটির চেয়ারম্যান শ্যাম থাপার মতে, ফিফার উচিত পাঁচ ফুটবলার পরিবর্তনের নিয়ম বাধ্যতামূলক করা। বলছিলেন, ‘‘ফেডারেশনের পরের টেকনিক্যাল কমিটির সভায় আমি প্রস্তাব দেব ভারতীয় ফটবলেও পাঁচ ফুটবলার পরিবর্তনের নিয়ম চালু করার। এখন মাঠে এগারো জন খেলে, রিজার্ভ বেঞ্চে সাত জন বসে থাকে। সুযোগ না-পেয়ে অনেকেই হতাশ হয়ে পড়ে। নতুন নিয়মের ফলে অনেক বেশি ফুটবলার খেলার সুযোগ পাবে।’’ করোনার জেরে এই প্রতিকূল পরিস্থিতিতে পাঁচ ফুটবলার পরিবর্তনের নিয়মকে স্বাগত জানাচ্ছেন সুব্রত ভট্টাচার্য। কিন্তু তিনি পাকাপাকি ভাবে এই নিয়ম চালু করার পক্ষে নন।

আরও পড়ুন

Advertisement