Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

২৮ মে ২০২২ ই-পেপার

URL Copied
Something isn't right! Please refresh.

দেশে ফেরানো হচ্ছে কলঙ্কিতদের

বল বিকৃতি কাণ্ডের ঘটনায় অস্ট্রেলীয় ক্রিকেট বোর্ডের তদন্তে দোষী সাব্যস্ত হয়েছেন দলের তিন ক্রিকেটার। স্মিথ, ওয়ার্নার এবং ক্যামেরন ব্যানক্রফ্ট।

নিজস্ব প্রতিবেদন
২৮ মার্চ ২০১৮ ০৩:৪৯
Save
Something isn't right! Please refresh.
চারমূর্তি: স্মিথ, ওয়ার্নার এবং ব্যাটসম্যান ব্যানক্রফ্ট দোষী সাব্যস্ত। ছাড় পেলেন কোচ লেম্যান। ছবি: এএফপি

চারমূর্তি: স্মিথ, ওয়ার্নার এবং ব্যাটসম্যান ব্যানক্রফ্ট দোষী সাব্যস্ত। ছাড় পেলেন কোচ লেম্যান। ছবি: এএফপি

Popup Close

মাস খানেক আগে যখন দক্ষিণ আফ্রিকাগামী বিমানে উঠেছিলেন তাঁরা, ক্রিকেট গ্রহের অন্যতম উজ্জ্বল দুই নক্ষত্র হিসেবে দুনিয়া চিনত তাঁদের।

আজ, বুধবার তাঁরা যখন দক্ষিণ আফ্রিকা থেকে দেশে ফেরার বিমানে উঠবেন, তাঁদের পরিচিতি হবে ক্রিকেটের দুই কলঙ্কিত নায়ক হিসেবে। তাঁরা স্টিভ স্মিথ এবং ডেভিড ওয়ার্নার।

বল বিকৃতি কাণ্ডের ঘটনায় অস্ট্রেলীয় ক্রিকেট বোর্ডের তদন্তে দোষী সাব্যস্ত হয়েছেন দলের তিন ক্রিকেটার। স্মিথ, ওয়ার্নার এবং ক্যামেরন ব্যানক্রফ্ট। এই তিন ক্রিকেটারকেই দেশে ফিরিয়ে আনা হচ্ছে। মঙ্গলবার রাতে জোহানেসবার্গে অস্ট্রেলীয় ক্রিকেট বোর্ডের চিফ এগজিকিউটিভ অফিসার জেমস সাদারল্যান্ড বলেন, ‘‘প্রাথমিক তদন্তের পরে আমরা দেখেছি, এই তিন ক্রিকেটারই বোর্ডের আচরণবিধির ২.৩.৫ ধারা ভেঙেছে। এদের তিন জনই দেশে ফিরে যাবে। বদলি তিন ক্রিকেটাররা শেষ টেস্টের আগে দলের সঙ্গে যোগ দেবে।’’ যে তিন ক্রিকেটারকে ডেকে পাঠানো হচ্ছে, তাঁরা হলেন ম্যাট রেনশ, জো বার্নস এবং গ্লেন ম্যাক্সওয়েল। পরের টেস্টে অস্ট্রেলিয়ার নেতৃত্ব দেবেন টিম পেইন। তবে বোর্ড প্রধান এও জানিয়ে দিয়েছেন, কোচ ড্যারেন লেম্যান বল বিকৃতির ব্যাপারে কিছু জানতেন না। তিনি ইস্তফাও দেননি। ‘‘চুক্তি না ফুরনো পর্যন্ত লেম্যানই অস্ট্রেলিয়ার কোচ,’’ বলেছেন সাদারল্যান্ড।

Advertisement

স্মিথ, ওয়ার্নারদের ভাগ্যে কী আছে, তা বুধবারই জানা যাবে। সাদারল্যান্ড বলেছেন, ‘‘বল বিকৃতি কাণ্ডে এই তিন ক্রিকেটারই শুধু দায়ী। এর বাইরে আর কোনও ক্রিকেটার বা সাপোর্ট স্টাফ ঘটনার সঙ্গে জড়িত নয়। তিন জনকে কী শাস্তি দেওয়া হবে, তা ২৪ ঘণ্টার মধ্যে ঠিক হবে।’’

কী আছে অস্ট্রেলিয়ার অন্যতম সেরা দুই ক্রিকেটারের ভাগ্যে? তরুণ ব্যানক্রফ্ট নিয়েই বা কতটা কড়া হবে বোর্ড? আপাতত ক্রিকেট দুনিয়ায় এই প্রশ্নগুলোই ঝড় তুলছে। মাইকেল ক্লার্ক টুইট করেছেন, ‘সত্যি ঘটনা কী জানাতে হবে। দায়বদ্ধতা দেখাতে হবে। সাধারণ মানুষ যদি এ সব দেখতে না পায়, তা হলে অস্ট্রেলীয় ক্রিকেটের আরও দুর্ভোগ আছে।’

প্রচারমাধ্যমের একটা অংশ বলছে, এক বছরের জন্য ক্রিকেট থেকে নির্বাসিত হতে পারেন স্মিথ এবং ওয়ার্নার। আবার একটা মহলের ধারণা, কেভিন পিটারসেনের সঙ্গে যে ভাবে সম্পর্ক ছেদ করেছিল ইংল্যান্ড বোর্ড, সে ভাবে ওয়ার্নার-কে নিয়েও একই রাস্তায় হাঁটতে পারে ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়া। মনে করা হচ্ছে, ডিসেম্বরে ভারতের বিরুদ্ধে সিরিজে এই দুই ক্রিকেটারকে খেলতে দেখা যাবে না।

পাশাপাশি এও প্রশ্ন উঠছে, তা হলে স্মিথদের আইপিএল ভাগ্য কী হতে যাচ্ছে? রাজস্থান রয়্যালসের নেতৃত্ব থেকে ইতিমধ্যেই সরে গিয়েছেন স্মিথ। ওয়ার্নারের সানরাইজার্স হায়দরাবাদ অপেক্ষা করছিল ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়ার সিদ্ধান্তের জন্য। মঙ্গলবার যা ঘটল, তাতে আইপিএল ভাগ্যও রীতিমতো অনিশ্চিত দুই মহাতারকার। নিজেরাই শাস্তি দেওয়ার পরে স্মিথ-ওয়ার্নারদের আইপিএলে খেলার ছাড়পত্র সম্ভবত দেবে না ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়া। তা ছাড়া এও প্রশ্ন উঠছে, কেন এই দু’জনের খেলা আগেই নিষিদ্ধ করবে না আইপিএল কমিটি? ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ডের প্রাক্তন আইনি উপদেষ্টা উষানাথ বন্দ্যোপাধ্যায় বলেন, ‘‘স্মিথ এবং ওয়ার্নারের বিরুদ্ধে যখন প্রতারণার অভিযোগ প্রমাণিত হয়েছে, তখন কেন ওদের আইপিএলে খেলতে দেওয়া হবে? ওদের আইপিএল খেলা এখনই নিষিদ্ধ করা উচিত।’’



Something isn't right! Please refresh.

Advertisement