×

আনন্দবাজার পত্রিকা

Advertisement

০২ মার্চ ২০২১ ই-পেপার

মমতার স্পিরিট দেখেই দলে এসেছি, তৃণমূলে যোগ দিয়ে বললেন বিশ্বরূপ

নিজস্ব সংবাদদাতা
কলকাতা ২০ জানুয়ারি ২০২১ ১৭:২১
তৃনমূলে যোগ দিলেন বিশ্বরূপ

তৃনমূলে যোগ দিলেন বিশ্বরূপ
ছবি ফেসবুক

আমি তৃণমূলের অন্ধভক্ত নই। আমার কাছে জীবনে স্পিরিটটাই বড় কথা। মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের মধ্যে সেই স্পিরিট রয়েছে, তা দেখেই আমি তৃণমূলে যোগ দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছি। বুধবার তৃণমূলে যোগ দিয়ে এমনটাই জানালেন বাংলা ক্রিকেট বোর্ডের (সিএবি) প্রাক্তন যুগ্ম সচিব বিশ্বরূপ দে।


বুধবার তৃণমূল সাংসদ সুদীপ বন্দ্যোপাধ্যায়ের হাত ধরে ঘাসফুল শিবিরে নাম লেখান বিশ্বরূপ। বিশ্বরূপ ছাড়াও আরও ১২৫ জন বুধবার যোগ দেন তৃণমূলে। তৃণমূল ভবনে তাঁদের হাতে দলীয় পতাকা তুলে দেন রাজ্যসভার সাংসদ সুখেন্দুশেখর রায়। তৃণমূলে যোগ দেওয়া প্রসঙ্গে বিশ্বরূপ বলেন, ‘‘আমি তৃণমূলের অন্ধভক্ত নই। আমি স্পিরিট পছন্দ করি। অজিঙ্ক রাহানের নেতৃত্বে ভাঙাচোরা ভারতীয় দল শুধুমাত্র স্পিরিটের জন্যই অস্ট্রেলিয়ায় টেস্ট সিরিজ জিতেছে। মমতার মধ্যেও সেই স্পিরিট দেখেছি। মমতা যে স্পিরিট নিয়ে কাজ করেন তার কোনও তুলনা হয় না। এই স্পিরিটের জন্যই তৃণমূলে যোগ দিলাম।’’


ক্রিকেটীয় ভাষায় বিজেপি-কে আক্রমণ করে তিনি আরও বলেন, ‘‘নরেন্দ্র মোদী, অমিত শাহ এবং রাজ্যপাল কত ভাবে মমতাকে আক্রমণ করেছেন। কিন্তু একা হাতে সবকিছু তিনি সামলেছেন। কখনও হুক করে, কখনও স্ট্রেট ড্রাইভ করে বল মাঠের বাইরে পাঠিয়ে দিয়েছেন। দুর্বৃত্তদের হাত থেকে বাংলাকে বাঁচাতে একমাত্র মমতাই পারেন।’’ মমতার নেতৃত্বে তিনি বিজেপির বিরুদ্ধে লড়াই করবেন এবং মাঝপথে ছেড়ে যাবেন না বলেও জানান তিনি।




Advertisement

২০০৮ সালে সিএবি-র যুগ্ম সচিব ও কোষাধ্যক্ষ ছিলেন বিশ্বরূপ। বাংলা ক্রিকেটের উন্নতিতে তাঁর উল্লেখযোগ্য ভূমিকা ছিল বলে মনে করেন ক্রিকেটপ্রেমীরা। ক্রিকেট জগতে দক্ষ প্রশাসক হিসেবেও পরিচিত বিশ্বরূপ। ২০১৫ সালে অস্ট্রেলিয়া-ইংল্যান্ড-ভারত ত্রিদেশীয় সিরিজে জাতীয় দলের ম্যানেজারও ছিলেন তিনি। ক্রিকেট প্রশাসক হিসেবে সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়ের বিরোধী গোষ্ঠী হিসেবেই পরিচিত বিশ্বরূপ।

Advertisement