Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

২৪ জানুয়ারি ২০২২ ই-পেপার

পরিযায়ী শ্রমিকদের অবস্থা নিয়ে কেন্দ্রকে আক্রমণ হরভজন সিংহের

সংবাদ সংস্থা
নয়াদিল্লি ২৯ মার্চ ২০২০ ১২:৫৪
সরকারকে আরও দায়িত্বশীল হওয়া উচিত ছিল, মনে করছেন ভাজ্জি। ছবি: পিটিআই।

সরকারকে আরও দায়িত্বশীল হওয়া উচিত ছিল, মনে করছেন ভাজ্জি। ছবি: পিটিআই।

দিল্লি-উত্তরপ্রদেশ সীমানায় আনন্দ বিহার বাস টার্মিনাসের ছবি দেখে আতঙ্কিত গোটা দেশ। ঘরে ফেরার জন্য শ্রমিকদের ঠাসাঠাসি ভিড়ের ছবি দিচ্ছে বিপদসঙ্কেত। আর এই ঘটনার পরিপ্রেক্ষিতে কেন্দ্র সরকারের আরও দায়িত্বশীল হওয়া উচিত ছিল বলে মনে করছেন হরভজন সিংহ

ভারতের প্রাক্তন অফস্পিনার বলছেন, “লকডাউনের ঘোষণা করার আগে পরিযায়ী শ্রমিকদের কথা মাথায় রাখা উচিত ছিল। ওদের থাকার জন্য বাড়ি নেই, খাওয়ার তেমন ব্যবস্থা নেই, আয়ের জন্য কাজও নেই। সরকারের উচিত ছিল এটা খেয়াল রাখা। আর ওদের জন্য অর্থ ও খাদ্য নিশ্চিত করা। এখন ওরা বাড়িতে ফিরে যেতে চাইছে। যে ভাবে গোটা পরিস্থিতি সামলানো হচ্ছে তা খুব বিরক্তিকর।”

আরও পড়ুন: ‘এখন থেকে তুমিই আমার সত্যিকারের হিরো’, অক্ষয়কে প্রশংসায় ভরিয়ে দিলেন হার্দিক​

Advertisement

আরও পড়ুন: করোনা যুদ্ধে অর্থ সাহায্য, সুরেশ রায়নার প্রশংসায় প্রধানমন্ত্রী​

বর্ষীয়ান অফস্পিনার আরও বলেছেন, “পরিস্থিতি এত খারাপ হয়ে উঠবে এটা কেউ ভাবতে পারেনি। শহরগুলো লকডাউন হয়ে যাবে এটাও আন্দাজ করা যায়নি। পরিস্থিতি এত দ্রুত পাল্টেছে যে সরকারও ভাবনাচিন্তার সময় পায়নি। আশা করছি, নাগরিকদের সুরক্ষার জন্য স্মার্ট সিদ্ধান্ত নেওয়া যাবে। শ্রমিকরা কেন ঘরে ফিরতে চাইছে এটা বুঝতে পারছি। ওরা চাইছে নিজেদের লোকের সঙ্গে সময় কাটাতে।”

এই মুহূর্তে ক্রিকেটের কথা মাথায় নেই, স্পষ্ট করে দিয়েছেন হরভজন। বলেছেন, “গত ১৫ দিন ধরে ক্রিকেটের কথা মাথাতেই আসেনি। দেশের কাছে ক্রিকেট খুব সামান্য একটা জিনিস। এখন যদি ক্রিকেট আর আইপিএলের কথা ভাবি, তবে তা স্বার্থপরতা হবে। আমরা নিরাপদ ও সুস্থ থাকলে খেলাধূলা ফের শুরু হবে। এখন আমাদের একত্রিত থাকতে হবে। দেশকে নিজের পায়ে ফের দাঁড় করাতে যৎসামান্য যা পারি, সকলকে তা করতে হবে।”

আরও পড়ুন

Advertisement