Advertisement
১৪ জুলাই ২০২৪
CSK

Subhranshu Senapati: অনুপ্রেরণা এক জোড়া নতুন জুতো! জীবনযুদ্ধে জয়ী তরুণ ক্রিকেটারের লেখা দুর্লভ বীরগাথা

কব্জির চোটে ক্রিকেট জীবন শুরু হওয়ার আগেই শেষ হতে চলেছিল শুভ্রাংশু সেনাপতির। সেই সময় নতুন এক জোড়া জুতো তাঁকে ফেরার স্বপ্ন দেখিয়েছিল।

ওড়িশার তরুণ ক্রিকেটার শুভ্রাংশু সেনাপতি।

ওড়িশার তরুণ ক্রিকেটার শুভ্রাংশু সেনাপতি। ফাইল চিত্র

নিজস্ব প্রতিবেদন
কলকাতা শেষ আপডেট: ০৭ জুন ২০২২ ১২:৫৫
Share: Save:

এ বারের আইপিএলের আগে তাঁকে ট্রায়ালে ডেকেছিল চেন্নাই সুপার কিংস। তাঁর ব্যাটিং নজর কেড়েছিল চেন্নাই ম্যানেজমেন্টের। নিলামে তাঁকে ২০ লক্ষ টাকায় কিনেছিল চেন্নাই। অথচ কয়েক বছর আগে ঘরোয়া ক্রিকেটে সুযোগ পাওয়ার আগে তাঁর ক্রিকেট জীবন নিয়েই প্রশ্ন উঠে গিয়েছিল। চোট পেয়েছিলেন ওড়িশার তরুণ ক্রিকেটার শুভ্রাংশু সেনাপতি।

ভাবতে পারেননি যে আবার খেলতে পারবেন। তখন এক জোড়া নতুন জুতো তাঁকে আবার স্বপ্ন দেখায়। শূন্য থেকে লড়াই শুরু করেন শুভ্রাংশু।

অনূর্ধ্ব-১৯ স্তরে আঞ্চলিক শিবিরের আগে কব্জিতে চোট পেয়েছিলেন শুভ্রাংশু। একটি সাক্ষাৎকারে ওড়িশার ক্রিকেটার বলেছেন, ‘‘২০১৪-’১৫ মরসুমে আঞ্চলিক শিবিরের আগে প্রস্তুতির সময় কব্জিতে চোট পাই। তার পরেও আমি শিবিরে যাই। কিন্তু খেলতে পারিনি। এক্স-রে করে দেখা যায় হাড়ে চিড় ধরেছে। চিকিৎসক বলেন, অস্ত্রোপচার ছাড়া চোট সারবে না।’’

অস্ত্রোপচার করিয়েছিলেন শুভ্রাংশু। কিন্তু তার পরেও ক্রিকেটে ফেরার আশা কম ছিল। চিকিৎসক স্পষ্ট জানিয়েছিলেন, চোটের কারণে তিনি আর ক্রিকেট খেলতে পারবেন না। ভেঙে পড়েছিলেন। স্বপ্নভঙ্গের যন্ত্রণা কুরে কুরে খাচ্ছিল। তখনই আঞ্চলিক শিবির থেকে আসা এক জোড়া নতুন জুতো তাঁকে ফের নতুন করে স্বপ্ন দেখাতে শুরু করে। ফের শূন্য থেকে শুরু করেন তিনি।

আঞ্চলিক শিবিরে যোগ দেওয়া ক্রিকেটারদের খেলার নতুন সরঞ্জাম দেওয়া হয়। কিন্তু সেই সরঞ্জাম পাননি শুভ্রাংশু। তিনি বলেন, ‘‘আমি শিবিরে যোগ না দেওয়ায় ক্রিকেটের সরঞ্জাম পাইনি। কিন্তু ওরা নতুন জুতো পাঠিয়েছিল। সেই জুতো জোড়া দেখে মনে হয়েছিল, সুস্থ হয়ে আমায় আবার ক্রিকেট খেলা শুরু করতেই হবে। নতুন জুতো আমাকে নতুন করে স্বপ্ন দেখায়। সুস্থ হওয়ার পরে কঠিন পরিশ্রম শুরু করি।’’

২০১৬ সালে ওড়িশার হয়ে রঞ্জিতে অভিষেক হয়েছিল শুভ্রাংশুর। সেই বছরই ওড়িশার হয়ে টি২০ এবং লিস্ট-এ খেলার সুযোগ পান। ২০১৭ সাল থেকে পর পর দু’বছর ওড়িশার হয়ে রঞ্জিতে সব থেকে বেশি রান করেন শুভ্রাংশু। গত মরসুমে ওড়িশাকে নেতৃত্বও দিয়েছেন তিনি।

চেন্নাই তাঁকে কিনলেও এ বার প্রথম একাদশে খেলার সুযোগ পাননি শুভ্রাংশু। তবে তাতে হতাশ নন তিনি। জানেন, ভাল খেললে সুযোগ পাবেন। যাঁর ক্রিকেট কেরিয়ার শুরুর আগেই শেষ হতে চলেছিল, যিনি ছাইয়ের গাদা থেকে ফিনিক্স পাখির মতো উঠে এসেছেন, তাঁর কাছে লড়াই নতুন নয়। তিনি স্বপ্ন দেখেন। হলুদ জার্সিতে পরের বছর আইপিএল খেলবেন। মাঠের নামবেন মহেন্দ্র সিংহ ধোনির সঙ্গে।

সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে ফলো করুন আমাদের Google News, Twitter এবং Instagram পেজ

সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের মাধ্যমগুলি:
Advertisement

Share this article

CLOSE