Advertisement
০১ ডিসেম্বর ২০২২
Sandeep Lamichhane

পালাবার পথ নেই, আত্মসমর্পণ করতে দেশে ফিরছেন নেপালের প্রাক্তন অধিনায়ক, আইপিএলে খেলা লামিছানে

সমাজমাধ্যমে পোস্ট করা বার্তায় লামিছানে লিখেছেন, তিনি ৬ অক্টোবর নেপালে ফিরবেন। ক্যারিবিয়ান প্রিমিয়ার লিগ খেলার জন্য তিনি ওয়েস্ট ইন্ডিজে রয়েছেন। পাশাপাশি লামিছানে এটাও বলেছেন, তিনি নির্দোষ।

ধর্ষণে অভিযুক্ত সন্দীপ লামিছানে।

ধর্ষণে অভিযুক্ত সন্দীপ লামিছানে। ফাইল ছবি

নিজস্ব প্রতিবেদন
শেষ আপডেট: ০১ অক্টোবর ২০২২ ১৬:৪৩
Share: Save:

দেশে ফিরছেন সন্দীপ লামিছানে। ধর্ষণে অভিযুক্ত এই ক্রিকেটার আত্মসমর্পণ করার জন্য দেশে ফিরবেন। নেপালের জাতীয় দলের প্রাক্তন অধিনায়ক নিজেই জানিয়েছেন, তাঁর বিরুদ্ধে ওঠা অভিযোগ নিয়ে তিনি তদন্তের সম্মুখীন হবেন।

সমাজমাধ্যমে পোস্ট করা বার্তায় লামিছানে লিখেছেন, তিনি ৬ অক্টোবর নেপালে ফিরবেন। ক্যারিবিয়ান প্রিমিয়ার লিগ খেলার জন্য তিনি ওয়েস্ট ইন্ডিজে রয়েছেন। আত্মসমর্পণ করার পাশাপাশি লামিছানে এটাও বলেছেন, তিনি নির্দোষ।

Advertisement

লামিছানের বক্তব্য, ‘‘আমি ৬ অক্টোবর দেশে ফিরছি। আমার বিরুদ্ধে ওঠা অভিযোগ নিয়ে আইনি লড়াই লড়ব। আমি অত্যন্ত আশাবাদী। আমি নির্দোষ। দেশের বিচারব্যবস্থার উপর আমার পূর্ণ আস্থা আছে। আশা করছি দ্রুত সুবিচার পাব।’’

মনে করা হচ্ছে, পালাবার যে পথ নেই, সেটা বুঝতে পেরেছেন লামিছানে। সেই কারণেই হয়তো ক্যারিবিয়ান প্রিমিয়ার লিগ শেষ হতেই দেশে ফেরার কথা জানিয়েছেন তিনি।

আইপিএলে দিল্লি ক্যাপিটালসের হয়ে খেলা এই ক্রিকেটারের বিরুদ্ধে ১৭ বছরের এক কিশোরীকে ধর্ষণের অভিযোগ ওঠে। অভিযোগ, ঘটনাটি ঘটে কাঠমাণ্ডুর কাছে একটি এলাকায়। পুলিশ সূত্রের খবর, ২২ অগস্ট নেপাল ক্রিকেট দলের কেনিয়া সফরের আগে লামিছানে ওই কিশোরীকে ভক্তপুরে ঘুরতে যাওয়ার অনুরোধ করেন। কিশোরী রাজি হন। রাতে ওই কিশোরী মধ্য বানেশ্বরে নিজের হস্টেলে ফিরে যেতে চাইলেও লামিছানে বাধা দেন। হস্টেল আটটার মধ্যে বন্ধ হয়ে যাওয়ায় হোটেলে লামিছানের সঙ্গে রাত কাটাতে বাধ্য হন ওই কিশোরী। প্রথমে তিনি আলাদা ঘরে থাকতে চান। সেটাও হতে দেননি লামিছানে। তার বদলে নিজের ঘরে ডেকে এনে ওই কিশোরীকে দু’বার ধর্ষণ করেন। ওই কিশোরীর বাবা-মা অভিযোগ জানানোর পর পুলিশ তদন্ত করে এই তথ্য জানতে পেরেছে।

Advertisement

২০১৬ সালে নেপালের অনূর্ধ্ব-১৯ দলের অধিনায়ক করা হয় লামিছানেকে। ২০১৮ সালে নেপালের জাতীয় দলে সুযোগ পান তিনি। সে বছরই আইপিএলে দিল্লি ক্যাপিটালস কেনে তাঁকে। লামিছানে নেপালের একমাত্র ক্রিকেটার যিনি আইপিএলে খেলেছেন। দিল্লির হয়ে বিরাট কোহলীর রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স ব্যাঙ্গালোরের বিরুদ্ধে অভিষেক হয় তাঁর। ২০১৮ সালে দিল্লির হয়ে তিন ম্যাচ খেলে পাঁচ উইকেট নেন তিনি। পরের বছর দিল্লির হয়ে ছ’টি ম্যাচ খেলেন লামিছানে। নেন আটটি উইকেট। ২০২০ সালে তাঁকে ছেড়ে দেয় দিল্লি। তার পরে আর আইপিএলে খেলার সুযোগ পাননি লামিচানে।

২০২১ সালে নেপালের জাতীয় দলের অধিনায়ক জ্ঞানেন্দ্র মল্লকে শৃঙ্খলাভঙ্গের অভিযোগে দল থেকে বাদ দেওয়া হয়। সেই জায়গায় দলের অধিনায়ক করা হয় লামিছানেকে। তাঁর বিরুদ্ধে ধর্ষণের অভিযোগের পরে নেপাল ক্রিকেট বোর্ডের তরফে এখনও কোনও মন্তব্য করা হয়নি।

আইপিএল ছাড়াও বিভিন্ন দেশে ফ্র্যাঞ্চাইজি ক্রিকেট লিগ খেলেছেন লামিছানে। ক্যারিবিয়ান প্রিমিয়ার লিগে বার্বাডোজ ট্রাইডেন্টস, জামাইকা তালাওয়াজ ও সেন্ট কিট্‌স অ্যান্ড নেভিস প্যাট্রিয়টস, বিগ ব্যাশে হোবার্ট হারিকেনস ও মেলবোর্ন স্টার্স, বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগে সিলেট সিক্সার্স, পাকিস্তান ক্রিকেট লিগে লাহৌর কলন্দর্সের হয়ে খেলেছেন এই ডান হাতি স্পিনার।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, Twitter এবং Instagram পেজ)
Follow us on: Save:
Advertisement
Advertisement

Share this article

CLOSE
Popup Close
Something isn't right! Please refresh.