Advertisement
২৪ জুন ২০২৪
India vs Afghanistan

জোড়া সুপার ওভার, টি-টোয়েন্টি সিরিজ়ে আফগানিস্তানকে চুনকাম করে বিশ্বরেকর্ড ভারতের

আফগানিস্তানকে ৩-০ ব্যবধানে টি-টোয়েন্টি সিরিজ়ে হারাল ভারত। বেঙ্গালুরুতে এল টান টান উত্তেজনার নাটকীয় জয়। এ দিনের জয়ে নতুন বিশ্বরেকর্ড গড়ল ভারত।

picture of Rohit Sharma

রোহিত শর্মা। —ফাইল চিত্র।

আনন্দবাজার অনলাইন ডেস্ক
কলকাতা শেষ আপডেট: ১৭ জানুয়ারি ২০২৪ ২৩:২২
Share: Save:

তৃতীয় টি-টোয়েন্টি ম্যাচে আফগানিস্তানের বিরুদ্ধে রুদ্ধশ্বাস জয় পেল ভারত। বুধবার বেঙ্গালুরুতে রোহিত শর্মার দল দ্বিতীয় সুপার ওভারে ১০ রানে হারাল ইব্রাহিম জ়াদরানদের। প্রথমে ব্যাট করে ভারত করে ৪ উইকেটে ২১২ রান। জবাবে আফগানদের ইনিংসও শেষ হয় ৬ উইকেটে ২১২ রানে। নাটকীয় ভাবে প্রথম সুপার ওভার টাই হওয়ার পর দ্বিতীয় সুপার ওভারে ম্যাচের ফয়সালা হল।

সুপার ওভারে প্রথমে ব্যাট করে আফগানেরা। রোহিত বল তুলে দেন মুকেশ কুমারকে। সফরকারীদের হয়ে ব্যাট করতে নামেন গুলবাদিন নাইব এবং রহমানুল্লাহ গুরবাজ়। প্রথম বলেই রান আউট হন নাইব। নামতে হয় মহম্মদ নবিকে। মুকেশের ৬ বলে আফগানেরা করেন ১ উইকেটে ১৬ রান। নবি ৭ এবং গুরবাজ় ৫ রানে অপরাজিত থাকেন। জবাবে ভারতের হয়ে ব্যাট করতে নামেন যশস্বী জয়সওয়াল এবং রোহিত। ৫ বলের পর পায়ে টান ধরায় উঠে যান রোহিত। মাঠে নামেন রিঙ্কু সিংহ। আজ়মতুল্লা ওমরজাইয়ের ৬ বলে ভারতও তোলে ১৬ রান। রোহিত করেন ১৩ রান। ফলে দ্বিতীয় সুপার ওভারে গড়ায় ম্যাচ।

এ বার প্রথমে ব্যাট করে ভারত। নামেন রোহিত এবং রিঙ্কু। রোহিত ৩ বলে ১১ তোলার পর রিঙ্কু প্রথম বলেই আউট হয়ে যান। পরের বলে আউট হন রোহিতও (১১)। ফলে আফগানিস্তানের সামনে জয়ের লক্ষ্য দাঁড়ায় ১২ রান। ব্যাট করতে নামেন নবি এবং গুরবাজ়। রোহিত এ বার বল দেন রবি বিষ্ণোইকে। তিনি প্রথম বলেই আউট করেন নবিকে। তৃতীয় বলে গুরবাজ়কে আউট করে বিষ্ণোই ভারতকে রুদ্ধশ্বাস জয় এনে দিলেন।

তিন ম্যাচের সিরিজ় ৩-০ ব্যবধানে জিতল ভারত। একই সঙ্গে হল নতুন বিশ্বরেকর্ড। দ্বিপাক্ষিক সিরিজ়ে বিপক্ষকে চুনকাম করে জেতার নিরিখে ভারত ও পাকিস্তান এক জায়গায় ছিল। দু’দলই ৮ বার করে বিপক্ষকে চুনকাম করে সিরিজ় জিতেছিল এর আগে পর্যন্ত। আফগানিস্তানকে ৩-০ ব্যবধানে হারিয়ে ভারত নবম বার দ্বিপাক্ষিক সিরিজ়ে বিপক্ষকে চুনকাম করল।

টস জিতে প্রথমে ব্যাট করার সিদ্ধান্ত নেন রোহিত। কিন্তু বেঙ্গালুরুর ২২ গজে শুরুতেই ব্যাটিং বিপর্যয়ের মুখে পড়ে ভারতীয় দল। ২২ রানে ৪ উইকেট হারিয়ে চাপে পড়ে যান রোহিতেরা। কিন্তু অধিনায়কের অনবদ্য ১২১ রানের অপরাজিত ইনিংস এবং রিঙ্কু সিংহের ৬৯ রানের অপরাজিত ইনিংস ভারতকে লড়াই করার মতো জায়গায় পৌঁছে দেয়।

ভারতের হয়ে রোহিত এবং রিঙ্কু ছাড়া কেউ রান পাননি। ওপেনার যশস্বী ৪ রান করে আউট হয়ে যান। বিরাট কোহলি এবং সঞ্জু স্যামসন প্রথম বলেই আউট হয়ে যাওয়ার পর বেঙ্গালুরুতে সমর্থকেরা শান্ত হয়ে গিয়েছিলেন। শিবম দুবে করেন ১ রান। ২৪ রানে ৪ উইকেট হারিয়ে ভারত ধুঁকছিল। আফগানিস্তানের বোলারেরা ভাবছিলেন এই ম্যাচে ভারতকে কম রানে আটকে রাখা যাবে। কিন্তু সব হিসাব পাল্টে দিলেন রোহিত এবং রিঙ্কু।

১৯০ রানের জুটি গড়েন রোহিত এবং রিঙ্কু। তাঁরা খেলেন মাত্র ১০০ বল। রোহিত অপরাজিত থাকেন ১২১ রানে। টি-টোয়েন্টিতে এটাই রোহিতের সর্বোচ্চ রানের ইনিংস। রিঙ্কু অপরাজিত রইলেন ৬৯ রানে। রিঙ্কুরও এটা টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটে সর্বোচ্চ রানের ইনিংস। দু'জনে মিলে মোট ১৪টি ছক্কা মারেন। এর মধ্যে ইনিংসের শেষ তিনটি বলে ছক্কা মারেন রিঙ্কু। আফগান বোলারদের মধ্যে সফলতম ফারিদ আহমেদ ২০ রান দিয়ে ৩ উইকেট নিয়েছেন।

জবাবে শুরুটা ভাল করেও ম্যাচ জিততে পারল না আফগানেরা। দুই ওপেনার গুরবাজ (৫০) এবং জ়াদরান (৫০) প্রথম উইকেটের জুটিতে ১১ ওভারে ৯৩ রান তোলেন। তবু অভিজ্ঞতার অভাবে হেরে গেল আফগানিস্তান। কলকাতা নাইট রাইডার্সের উইকেটরক্ষক-ব্যাটার মারলেন ৩টি চার এবং ৪টি ছয়। আফগান অধিনায়কের ব্যাট থেকে এল ৪টি চার এবং ১টি ছক্কা। তিন নন্বরে নেমে ভাল খেললেন নাইবও। তিনি শেষ পর্যন্ত অপরাজিত থাকেন ২৩ বলে ৫৫ রান করে। তাঁর ব্যাট থেকে এসেছে ৪টি করে চার এবং ছক্কা। এছাড়া বলার মতো রান শুধু নবির। অভিজ্ঞ অলরাউন্ডারের ব্যাট থেকে এল ১৬ বলে ৩৪ রানের আগ্রাসী ইনিংস। ভারতীয় বোলারদের মধ্যে সফলতম ওয়াশিংটন সুন্দর। তিনি ১৮ রান দিয়ে ৩ উইকেট নিলেন। ১টি করে উইকেট পেয়েছেন আবেশ খান এবং কুলদীপ যাদব।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)
সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের মাধ্যমগুলি:
Advertisement

Share this article

CLOSE