Advertisement
২৫ ফেব্রুয়ারি ২০২৪
India vs Australia

কোহলিকে আউটের হ্যাটট্রিক! এ বার চারে চার চান অস্ট্রেলিয়ার স্পিনার

নাগপুরে টেস্টে অভিষেক হওয়ার পর মারফিকে প্রথম একাদশের বাইরে রাখার কথা ভাবেনি অস্ট্রেলিয়া। ভারতীয় ব্যাটারদের বিরুদ্ধে সাফল্য পেয়ে খুশি। তিন বার কোহলিকে আউট করে বেশি আনন্দ পেয়েছেন।

picture of virat kohli

কোহলিকে তিন বার আউট করে উচ্ছ্বসিত অস্ট্রেলিয়ার তরুণ স্পিনার মারফি। ফাইল ছবি।

নিজস্ব প্রতিবেদন
শেষ আপডেট: ০৭ মার্চ ২০২৩ ১৬:৪৭
Share: Save:

বর্ডার-গাওস্কর সিরিজ়ে বিরাট কোহলিকে তিন বার আউট করেছেন অস্ট্রেলিয়ার টড মারফি। সীমিত অভিজ্ঞতা নিয়ে বিশ্বের অন্যতম সেরা ব্যাটারকে বার বার আউট করে উচ্ছ্বসিত তরুণ স্পিনার। শেষ টেস্টেও কোহলির উইকেট চান তিনি।

নাগপুরে সিরিজ়ের প্রথম টেস্ট খেলতে নামার আগে মারফির ঝুলিতে অভিজ্ঞতা বলতে ছিল সাতটি প্রথম শ্রেণির ম্যাচ। প্রথম টেস্টেই ৭ উইকেট নিয়ে নজর কেড়েছিলেন। তার পর আর তাঁকে প্রথম একাদশের বাইরে রাখার কথা ভাবেনি সফরকারীরা। ক্রিকেটজীবনের প্রথম টেস্ট সিরিজ়ে ভারতের বিরুদ্ধে সাফল্য পেলেও মারফি সব থেকে খুশি কোহলির উইকেট পেয়ে। তিনি বলেছেন, ‘‘দুর্দান্ত অভিজ্ঞতা। নাগপুর টেস্টের কথা বলতে পারি। কোহলি ব্যাট করতে নামার সময় আমি বল করছিলাম। তখন মনে হয়েছিল, এমন এক জন ব্যাটারকে বল করার সুযোগ পাওয়াই বড় ব্যাপার। পর পর তিনটি টেস্টে কোহলিকে বল করতে পেরেছি। দারুণ লাগছে। ল়ড়াইটাও ভীষণ উপভোগ্য।’’ মারফি বেশি আনন্দ পেয়েছেন ইনদওরে কোহলিকে আউট করে। তিনি বলেছেন, ‘‘আমরা যেমন পরিকল্পনা করেছিলাম তেমনই হয়েছিল। উইকেটের দু’প্রান্ত থেকে চ্যালেঞ্জ ছুড়ে দেওয়ার চেষ্টা করেছিলাম আমরা। সে ভাবেই ওকে আরও এক বার আউট করেছিলাম।’’

সিরিজ়ের দ্বিতীয় এবং তৃতীয় টেস্টে তিন স্পিনার নিয়ে খেলেছে অস্ট্রেলিয়া। যা সাধারণত দেখা যায় না। এটাও এক নতুন অভিজ্ঞতা মারফির কাছে। কারণ অস্ট্রেলিয়ার উইকেটে তিন স্পিনার নিয়ে খেলার সুযোগ প্রায় নেই। মারফি বলেছেন, ‘‘শেষ টেস্টের আগে স্টিভ স্মিথ আমাদের সঙ্গে কথা বলেছিল। ছোট ছোট স্পেলে বল করানোর পরিকল্পনা ছিল ওর। আমাদের বলে দিয়েছিল, অল্প কয়েক ওভার করিয়ে সরিয়ে নেওয়ার মানে কেউ খারাপ বল করছে, তা নয়। প্রত্যেককে নির্দিষ্ট ভাবে ব্যবহার করার কথা বলেছিল। কার কী ভূমিকা হবে, বলে দিয়েছিল। তিন জন স্পিনার খেলানোর ব্যাপারটা আমাদের কাছেও খুব উপভোগ্য হয়েছিল। পরস্পরকে সাহায্য করতে পেরেছি আমরা।’’

সিরিজ়ের শেষ টেস্ট বৃহস্পতিবার থেকে আমদাবাদে। সেখানেও প্রথম একাদশে থাকার ব্যাপারে আত্মবিশ্বাসী মারফি। নিজের সেরাটা দিতে চান। অবশ্যই লক্ষ্য থাকবে কোহলিকে আরও এক বার আউট করার। তরুণ স্পিনার বলেছেন, ‘‘খুব বেশি কিছু ভাবতে চাইছি না। নাথান লায়ন দুর্দান্ত ছন্দে রয়েছে। বিশ্বের অন্যত্র এক সঙ্গে এত জন স্পিনারের খেলার সুযোগ থাকে না। এটাও আমাদের কাছে নতুন অভিজ্ঞতা। আশা করছি শেষ টেস্টেও আমরা ভাল কিছু করতে পারব।’’

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)
Follow us on: Save:
Advertisement

Share this article

CLOSE