Advertisement
১৫ জুন ২০২৪
India vs Pakistan cricket

বুধবার ২২ গজে ছোটদের বড় ম্যাচ, এশিয়ার এমার্জিং কাপে মুখোমুখি ভারত-পাকিস্তান

পাকিস্তানের বিরুদ্ধে মাঠে নামার জন্য ছটফট করছেন ভারতীয় ক্রিকেটারেরা। মহম্মদ হ্যারিসের দলকে হারিয়ে গ্রুপ চ্যাম্পিয়ন হওয়াই লক্ষ্য যশ ঢুলদের। তৈরি পাকিস্তান শিবিরও।

picture of India Pakistan supporters

—প্রতীকী চিত্র।

আনন্দবাজার অনলাইন ডেস্ক
শেষ আপডেট: ১৮ জুলাই ২০২৩ ২০:২২
Share: Save:

এশিয়ান ক্রিকেট কাউন্সিলের (এসিসি) এমার্জিং কাপে বুধবার মুখোমুখি ভারত-পাকিস্তান। দু’দেশের ‘এ’ বা দ্বিতীয় দল খেলবে গ্রুপ চ্যাম্পিয়ন হওয়ার জন্য। দু’টি করে ম্যাচ জিতে প্রতিযোগিতার সেমিফাইনালে পৌঁছে গিয়েছে ভারত এবং পাকিস্তান। সেই হিসাবে বুধবারের ম্যাচ অনেকটাই নিয়মরক্ষার। কিন্তু ভারত-পাকিস্তান ম্যাচ সব সময় এই সব হিসাবের বাইরে।

ক্রিকেট মাঠে ভারত-পাকিস্তান মুখোমুখি মানেই অন্য উত্তেজনা। যে পর্যায়ের ম্যাচই হোক, হারতে চায় না কোনও দলই। এক সময় ২২ গজের লড়াইয়ে তুলনায় পাকিস্তানের দাপট বেশি থাকলেও গত কয়েক বছরে সেই ছবি বদলে গিয়েছে। যশ ঢুলের দলও বুধবার মহেন্দ্র সিংহ ধোনি, বিরাট কোহলি, রোহিত শর্মাদের ধারা অব্যাহত রাখতে মরিয়া। খাতা কলমে শক্তির বিচারে ভারতীয় দল কিছুটা এগিয়ে থাকলেও পাকিস্তানকে হালকা ভাবে নিতে নারাজ যশেরা। পাকিস্তানকে হারিয়ে গ্রুপ চ্যাম্পিয়ন হওয়ায়ই লক্ষ্য ভারতীয় শিবিরের।

ভারতীয় দলের অলরাউন্ডার অভিষেক শর্মা, ব্যাটার ধ্রুব জুরেলেরা বলেছেন, ছোট থেকে ভারত-পাকিস্তান ম্যাচ দেখছেন তাঁরা। জানেন এই ম্যাচের গুরুত্ব কী। জয় ছাড়া কিছু ভাবছেন না দলের কেউই। অভিষেক বলেছেন, ‘‘এই ম্যাচে কিছু চাপ থাকেই। সেটা আমরা মাথায় রাখছি। তবে সবাই আত্মবিশ্বাসী। পাকিস্তানকে হারানোর সুযোগ কাজে লাগাতে চাই আমরা।’’ ভারতীয় দলের অন্যতম ওপেনিং ব্যাটার সাই সুদর্শন বলেছেন, ‘‘ভারত-পাকিস্তান ম্যাচ খেলার জন্য মুখিয়ে রয়েছি। একটা দারুণ উত্তেজনা হচ্ছে ভিতরে।’’

চাপের কথা মেনে নিয়েছেন ভারত ‘এ’ দলের অধিনায়কও। যশ বলেছেন, ‘‘চাপ অবশ্যই আছে। সেই চাপ কাটিয়ে ভাল পারফরম্যান্স করতে চাই আমরা। লক্ষ্য থাকবে ভাল ক্রিকেট খেলা। নিজেদের কাজ ঠিক মতো করতে হবে আমাদের। ফলাফল নিয়ে ভেবে নিজেদের উপর বাড়তি চাপ নিতে চাই না। আর পাঁচটা ম্যাচের মতোই খেলতে চাই। মাঠে নেমে লড়াই উপভোগ করতে চায় দলের সবাই।’’

আত্মবিশ্বাসী রাজ্যবর্ধন হাঙ্গারগেকর, হর্ষিত রানার মতো বোলারেরাও। ফর্মে আছেন উপরের দিকের ব্যাটারেরাও। ভারতীয় দলের মাত্র চার জন ব্যাটার এখনও পর্যন্ত ব্যাট করার সুযোগ পেয়েছেন এসিসি এমার্জিং কাপের ম্যাচে। বাকিরা নেপাল এবং সংযুক্ত আরব আমিরশাহির বিরুদ্ধে ব্যাট করার সুযোগ পাননি। এই বিষয়টি পাকিস্তানে ম্যাচের আগে কিছুটা চিন্তায় রেখেছে ভারতীয় শিবিরকে।

অন্য দিকে, জয়ের মধ্যে রয়েছে পাকিস্তানের ‘এ’ দলও। মহম্মদ হ্যারিসের মতো অভিজ্ঞ ক্রিকেটার রয়েছেন পাকিস্তান দলের নেতৃত্বে। ব্যাটারেরা সবাই ফর্মে আছেন। নেপালের বিরুদ্ধে অবশ্য পাকিস্তানের একাধিক ব্যাটার বড় রান পাননি। বেশি আগ্রাসী হতে গিয়ে উইকেট ছুড়ে দিয়েছিলেন তাঁরা। ১৮০ রানের লক্ষ্য তাড়া করতে গিয়ে ৬ উইকেট হারিয়েছিল পাকিস্তান। ভারতের বিরুদ্ধে ম্যাচের আগে তাই সতীর্থদের সতর্ক করে দিয়েছেন হ্যারিস। নেপাল বা সংযুক্ত আরব আমিরশাহির থেকে ভারতের বোলিং যে অনেক বেশি শক্তিশালী, তা জানেন তিনি। পাকিস্তান দলে রয়েছেন রয়েছেন মহম্মদ ওয়াসিম, শাহওয়াজ দাহানির মতো জোরে বোলার। যাঁরা বাবর আজ়মের দলের হয়ে একাধিক ম্যাচ খেলেছেন।

বুধবার টান টান লড়াইয়ের আশা করছে ভারত-পাকিস্তান দু’শিবির। ম্যাচ জিতে গ্রুপ চ্যাম্পিয়ন হিসাবে সেমিফাইনাল খেলতে চায় দু’দলই। এই ম্যাচ যে আর পাঁচটা ম্যাচের মতো নয়, তা অজানা নয় ভারত এবং পাকিস্তানের তরুণ ক্রিকেটারদের।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)
সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের মাধ্যমগুলি:
Advertisement

Share this article

CLOSE