Advertisement
০৮ ফেব্রুয়ারি ২০২৩
Quinton de Kock

Mark Boucher: কুইন্টন অবসর নেবেন, ভাবতেই পারেননি বাউচার

বছরের শেষের দিকে এসে সেঞ্চুরিয়ন পার্কে ভারতের বিরুদ্ধে প্রথম টেস্টে হারের পরেই পাঁচ দিনের ক্রিকেট থেকে অবসর নেন ডি’কক।

মরিয়া: দলকে ঘুরে দাঁড়ানোর বার্তা কোচ বাউচারের।

মরিয়া: দলকে ঘুরে দাঁড়ানোর বার্তা কোচ বাউচারের। ফাইল চিত্র।

নিজস্ব প্রতিবেদন
কলকাতা শেষ আপডেট: ০৩ জানুয়ারি ২০২২ ০৬:০২
Share: Save:

সেঞ্চুরিয়ন পার্কে ভারত বনাম দক্ষিণ আফ্রিকার প্রথম টেস্টের পরেই লাল বলের ক্রিকেট থেকে কুইন্টন ডি’ককের অবসর তাঁর দেশের ক্রিকেটে একটা বড় ধাক্কা। এমনই মনে করছেন দক্ষিণ আফ্রিকার প্রাক্তন ক্রিকেটার ও দলের বর্তমান কোচ মার্ক বাউচার। তবে ডি’ককের টেস্ট ক্রিকেট থেকে অবসরের এই সিদ্ধান্তকে সম্মান জানাচ্ছেন তাঁদের দলের সকলেই। এমন মন্তব্যই করেছেন বাউচার।

Advertisement

উল্লেখ্য, ২০২১ সালের শুরুতে দক্ষিণ আফ্রিকা ক্রিকেট দলের অধিনায়ক ঘোষণা করা হয়েছিল ডি’কককে। কিন্তু বছরের শেষের দিকে এসে সেঞ্চুরিয়ন পার্কে ভারতের বিরুদ্ধে প্রথম টেস্টে হারের পরেই পাঁচ দিনের ক্রিকেট থেকে অবসর নেন ডি’কক।

দক্ষিণ আফ্রিকার একটি ওয়েবসাইটকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে সে দেশের ক্রিকেট দলের কোচ বাউচার বলেছেন, ‍‘‍‘ভাবতেই পারিনি এ রকম দুর্দান্ত মানের ক্রিকেটার এই বয়সে টেস্ট ক্রিকেট থেকে অবসর নিয়ে ফেলবে। এটা আমাদের দলের প্রত্যেকের কাছেই একটা বড় ধাক্কা। তবে আমরা ডি’ককের সিদ্ধান্তকে সম্মান করছি।’’ যোগ করেছেন, ‍‘‍‘দলে কুইন্টন না থাকা আমাদের কাছে একটা দুঃখজনক খবর। কিন্তু কিছু করার নেই। ওকে ছাড়াই এ বার আমাদের এগোতে হবে টেস্ট ক্রিকেটে।’’

ডি’ককের স্ত্রী এই মুহূর্তে সন্তানসম্ভবা। সে কারণেই প্রথম টেস্টের পরে পিতৃত্বের ছুটি নেবেন বলে তিনি আগেই জানিয়েছেন দল পরিচালন সমিতিকে। বাউচার জানিয়েছেন, প্রথম টেস্ট শেষ হওয়ার কয়েক ঘণ্টার মধ্যেই যে ডি’কক টেস্ট থেকে অবসর নিয়ে নেবেন, তা ভাবতেই পারেননি তাঁরা। ডি’কক অবসর নেওয়ার প্রাক্কালে সংবাদমাধ্যমকে জানিয়েছিলেন, দক্ষিণ আফ্রিকার হয়ে সীমিত ওভারের ক্রিকেটে খেললেও টেস্ট ম্যাচে তিনি আর খেলতে চান না পরিবারকে সময় দিতে চান বলে। এ বার ডি’কক না থাকায় দ্বিতীয় টেস্টে যাঁরা খেলবেন, তাঁদের নিয়েই প্রত্যাবর্তন করতে চান দক্ষিণ আফ্রিকার কোচ।

Advertisement

বাউচার বলেছেন, ‍‘‍‘টেস্ট সিরিজ়ের মাঝপথে ডি’কক এ ভাবে অবসর নেওয়ায় আমরা শুরুতে ভাল রকম ধাক্কা খেয়েছিলাম। এ বার তা সামলে নিয়ে পরবর্তী টেস্টে মনোনিবেশ করছি। কুইন্টনের জায়গায় যে খেলবে, আশা করা যায় সে কুইন্টনের মতোই দলের জন্য সম্পদ হয়ে উঠবে। টেস্ট ক্রিকেটে আমাদের একটা বড় ভরসা ছিল কুইন্টন।’’

উল্লেখ্য, ডি’ককের পরিবর্তে জোহানেসবার্গ টেস্টে খেলার কথা কাইল ভেরেন নামে ২৪ বছরের প্রতিভাবান উইকেটকিপার-ব্যাটারের। তাঁর প্রশংসা করে বাউচার বলেছেন, ‍‘‍‘সুযোগের জন্য প্রতীক্ষায় রয়েছে কাইল। মহড়ায় ওকে ভাল মতো দেখে নেওয়া গিয়েছে। নতুন বলে চিন্তার কিছু নেই। এই দলটার অনেকের সঙ্গেই ওর বন্ধুত্ব রয়েছে। ফলে আত্মবিশ্বাসের অভাব হবে না কাইলের।”

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, Twitter এবং Instagram পেজ)
Follow us on: Save:
Advertisement
Advertisement

Share this article

CLOSE
Popup Close
Something isn't right! Please refresh.