Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

২১ অক্টোবর ২০২১ ই-পেপার

আবেগের ইডেনে ডালমিয়া স্মরণ

নিজস্ব সংবাদদাতা
২১ সেপ্টেম্বর ২০১৬ ০৩:৩৬
জগমোহন ডালমিয়ার মৃত্যুবার্ষিকীতে শ্রদ্ধার্ঘ্য ছেলে অভিষেক, সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায় ও বিশ্বরূপ দে-র। -নিজস্ব চিত্র

জগমোহন ডালমিয়ার মৃত্যুবার্ষিকীতে শ্রদ্ধার্ঘ্য ছেলে অভিষেক, সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায় ও বিশ্বরূপ দে-র। -নিজস্ব চিত্র

মঙ্গলবার সন্ধ্যায় ইডেন ক্লাবহাউসের তিন তলার কনফারেন্স রুম। যেখানে তিনি বহু বৈঠকে বসে নিয়েছেন অনেক গুরুত্বপূর্ণ সিদ্ধান্ত, সেখানে তিনি এখন ছবি।

জগমোহন ডালমিয়া।

এক বছর আগে এই দিনেই চলে গিয়েছিলেন বিসিসিআই, সিএবি এবং প্রাক্তন আইসিসি প্রধান।

Advertisement

কয়েকশো মালার শ্রদ্ধার্ঘ্য তাঁর ছবিতে। সেই ছবির সামনে বসে তাঁর স্ত্রী চন্দ্রলেখা ডালমিয়া। আবেগে প্রায় বুজে আসা গলায় বললেন, ‘‘এখনও বিশ্বাস হয় না উনি নেই। বাড়িতে সন্ধ্যায় প্রায়ই মনে হয়, এই বুঝি উনি সিএবি থেকে এসে পড়লেন।’’

সিএবি-তে ডালমিয়ার প্রথম মৃত্যুবার্ষিকীর অনুষ্ঠানে এ দিন আবেগঘন পরিবেশ তৈরি হল। চক্ষুদানের অঙ্গীকার করলেন শ্রীমতি ডালমিয়া। এই অনুষ্ঠানে অবশ্য থাকতে পারলেন না ডালমিয়াপুত্র অভিষেক। উত্তরসূরি সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়ও। দুপুরে এসে শ্রদ্ধার্ঘ্য জানিয়ে গেলেন তাঁরা। বুধবারের বোর্ড বৈঠকে যোগ দিতে দুপুরে মুম্বই রওনা হতে হল, তাই মৃত্যুর এক বছর পরেও বঙ্গ ক্রিকেটমহলে ডালমিয়া-আবেগটা প্রত্যক্ষ উপলব্ধি করতে পারলেন না তাঁরা। আগের দিনই তাঁর নামে ইডেনের স্ট্যান্ড করার প্রস্তাব হয়েছে যে সিএবি-তে, জগমোহন ডালমিয়ার সেই ‘মন্দিরে’ তাঁর স্মরণসভায় শহর ও শহরতলির ক্রিকেট সমাজের মানুষের ঢল নামল।

ডালমিয়াহীন সিএবি-তে যেমন ক্রিকেটকাণ্ড থেমে নেই, আলিপুর রোডের দশ নম্বর বাড়িটাতেও তেমন ক্রিকেটের পাট আগের মতোই রয়েছে। এখনও ডালমিয়া পরিবারের দিন শুরু ও শেষ হয় ক্রিকেট দিয়েই। কন্যা বৈশালী মায়ের পাশে বসে বলছিলেন, ‘‘গত এক বছরে মায়ের শরীর বেশ খারাপ হয়েছে। কিন্তু উনি যেটুকু সুস্থ রয়েছেন, তা মূলত ক্রিকেটের জন্যই। বাবার মতো ভাইও যে এখন ক্রিকেটে রয়েছে। আমাদের পরিবারে ক্রিকেট-আলোচনাটা থেমে যায়নি। বাবার সময় যেমন হত, এখনও তেমন চলছে।’’

ইডেন টেস্টেও তাই আসবেন শ্রীমতি ডালমিয়া। বললেন, ‘‘সুস্থ থাকলে কেন আসব না?’’

জগমোহন ডালমিয়া না থাকলেও ডালমিয়ারা থাকবেন ইডেন-মন্দিরে।

আরও পড়ুন

Advertisement