Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

২৫ মে ২০২২ ই-পেপার

URL Copied
Something isn't right! Please refresh.

গ্যালারির টিটকিরিকে সেঞ্চুরি ‘উপহার’ দু’প্লেসির

অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে তৃতীয় টেস্ট শুরুর আগে যাবতীয় আলোচনার কেন্দ্রে ছিলেন তিনি। অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে তৃতীয় টেস্টের প্রথম দিনের শেষেও দেখা গ

সংবাদ সংস্থা
অ্যাডিলেড ২৫ নভেম্বর ২০১৬ ০৩:১২
Save
Something isn't right! Please refresh.
একাই একশো। বৃহস্পতিবার অ্যাডিলেডে সেঞ্চুরির পরে। ছবি: এএফপি।

একাই একশো। বৃহস্পতিবার অ্যাডিলেডে সেঞ্চুরির পরে। ছবি: এএফপি।

Popup Close

অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে তৃতীয় টেস্ট শুরুর আগে যাবতীয় আলোচনার কেন্দ্রে ছিলেন তিনি। অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে তৃতীয় টেস্টের প্রথম দিনের শেষেও দেখা গেল, তর্কবিতর্ক ওই এক জনকে নিয়েই— ফাফ দু’প্লেসি।

দক্ষিণ আফ্রিকান অধিনায়কের বিরুদ্ধে বল বিকৃতির অভিযোগ ওঠার পর থেকে অস্ট্রেলীয় মিডিয়া তাঁর উপর ঝাঁপিয়ে পড়েছিল। চ্যানেল নাইনের এক সাংবাদিকের বিরুদ্ধে নিগ্রহের পাল্টা অভিযোগও তুলেছিল দক্ষিণ আফ্রিকা। তাঁকে নিয়ে অস্ট্রেলীয় ক্রিকেটমহল এতটাই উত্তপ্ত ছিল যে, এ দিন তিনি ব্যাট করতে নামার সময় গ্যালারি রীতিমতো গর্জে ওঠে তাঁর বিরুদ্ধে। শুধু তাই নয়, সে সময় তাঁর টিমের অবস্থাও খুব ভাল ছিল না। ৪৪-৪ হয়ে গিয়েছিল দক্ষিণ আফ্রিকা।

এটা আমার সেরা সেঞ্চুরি। এই সপ্তাহটা যা গিয়েছে, তার পর এ রকম একটা ইনিংস ভীষণ দরকার ছিল। ফাফ দু’প্লেসি

Advertisement

এই আবহে এ দিন অ্যাডিলেডে দিন-রাতের টেস্ট খেলতে নামেন দু’প্লেসি। এবং অধিনায়ক হিসেবে গোলাপি বলে প্রথম সেঞ্চুরির নজির গড়েন। ‘‘এটা আমার সেরা সেঞ্চুরি। এই সপ্তাহটা যা গিয়েছে, তার পর এ রকম একটা ইনিংস ভীষণ দরকার ছিল,’’ পরে বলেছেন দু’প্লেসি। সঙ্গে যোগ করেছেন, ‘‘জানতাম গ্যালারি আমার বিরুদ্ধে থাকবে। কিন্তু এতটা থাকবে, বুঝতে পারিনি। ক্রিজে নামার সময় টিটকিরিগুলো কানে গিয়েছে। সেঞ্চুরির পরেও যে সেটা শুনতে হল, দেখে হতাশ লাগছে।’’

পারথে সিরিজ শুরু হওয়ার পর থেকে এই প্রথম অস্ট্রেলীয় বোলিংয়ে কিছুটা পাল্টা লড়াইয়ের আগুন দেখা যাচ্ছিল। তিন জন অভিষেককারী-সহ পাঁচ নতুন ক্রিকেটার নিয়ে অ্যাডিলেড টেস্টে নেমেছেন স্টিভ স্মিথ। পিচের বাউন্স কাগে লাগাচ্ছিলেন মিচেল স্টার্কও। তাঁর একটা ডেলিভারি সটান দু’প্লেসির পাঁজরে গিয়ে লাগে। দক্ষিণ আফ্রিকান অধিনায়ক যখন সেটা তুলে স্টার্ককে ফেরত দিতে যাচ্ছেন, গ্যালারি ফের তাঁকে টিটকিরি দেয়। তাঁর প্রায় প্রতিটা বাউন্ডারিও একই রকম ‘অভ্যর্থনা’ পেয়েছে এ দিন।

যদিও শেষমেশ তাতে লাভ হয়নি। দু’প্লেসি ১১৮ রানে অপরাজিত থেকে গিয়েছেন। অপ্রত্যাশিত ভাবে ৭৬ ওভারের মধ্যে ইনিংস ডিক্লেয়ার করে অস্ট্রেলীয় টিমকে বাড়তি বিরক্তিও উপহার দিয়েছেন। দক্ষিণ আফ্রিকা যখন ২৫৯-৯, দু’প্লেসি নিজে যখন ক্রিজে, তখন হঠাৎ ইনিংস ছেড়ে দেন তিনি। অস্ট্রেলিয়া তার পর ১২ ওভার ব্যাট করে দিনের শেষে ১৪-০। মনে করা হচ্ছে, মাঠে বেশ কিছুক্ষণ ছিলেন না বলে ওপেন করতে পারতেন না ডেভিড ওয়ার্নার। তার ফায়দা তুলতে অত তাড়াতাড়ি ডিক্লেয়ার করে দেন দু’প্লেসি। উসমান খোয়াজার (৩ ন.আ.) সঙ্গে ক্রিজে আছেন ম্যাট রেনশ (৮ ন.আ.)।

‘‘ট্রিটমেন্ট নিতে শেষের দিকে উঠে গিয়েছিল ওয়ার্নার। অনেকক্ষণ মাঠের বাইরে ছিল। তাই দক্ষিণ আফ্রিকা এ রকম করল, যাতে ওয়ার্নার ওপেন না করতে পারে। স্মিথ তো বটেই, দলের সবাই বিরক্ত,’’ সাংবাদিক সম্মেলনে বলেছেন জশ হ্যাজলউড। যদিও তাঁর সিদ্ধান্তের ব্যাখ্যায় দু’প্লেসি বলেছেন, ‘‘আমাদের হাতে গোটা তিন উইকেট থাকলে ডিক্লেয়ার করতাম না। ৩০০ করার চেষ্টা করতাম। ২৫০ বিশাল স্কোর নয়। কিন্তু দিন-রাতের টেস্টের পরিসংখ্যান বলছে, এ সব ম্যাচ পাঁচ দিন গড়ায় না। এখানে আড়াইশোটা তাই সাড়ে তিনশোর সমান।’’

এ দিকে, আইসিসি ম্যাচ রেফারির সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে আবেদন করবেন বলে জানিয়েছেন দু’প্লেসি। বল বিকৃতির অভিযোগে তাঁর একশো শতাংশ ম্যাচ ফি জরিমানা হয়েছে। সেই সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধেই আবেদন করবেন দু’প্লেসি।



Something isn't right! Please refresh.

আরও পড়ুন

Advertisement