Advertisement
২২ জুন ২০২৪
FIFA World Cup 2022

‘বেঞ্জেমাকে খেলানোই হল না, কোচের জন্যই বিশ্বচ্যাম্পিয়ন হতে পারেনি ফ্রান্স’, দুষলেন কে?

বিশ্বকাপ শুরুর আগে অনুশীলনে চোট পান বেঞ্জেমা। তাঁকে তড়িঘড়ি দেশে ফেরত পাঠানো হয়। তিন জন বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকের পরামর্শে দ্রুত চোট মুক্ত হলেও তাঁকে আর দলে ফেরানো হয়নি।

ফ্রান্স বিশ্বকাপ চ্যাম্পিয়ন হতে না পারার জন্য কোচ দেশঁকে দোষারোপ শুরু।

ফ্রান্স বিশ্বকাপ চ্যাম্পিয়ন হতে না পারার জন্য কোচ দেশঁকে দোষারোপ শুরু। ছবি: টুইটার।

নিজস্ব প্রতিবেদন
শেষ আপডেট: ২৭ ডিসেম্বর ২০২২ ২০:২৬
Share: Save:

বিশ্বের দ্বিতীয় দেশ হিসাবে পর পর দু’বার বিশ্বকাপ জেতার সুযোগ ছিল ফ্রান্সের সামনে। ফাইনালে উঠলেও সেই নজির গড়তে পারেননি কিলিয়ান এমবাপেরা। বিশ্বকাপ জিততে না পারার জন্য দোষারোপ করা শুরু হল কোচ দিদিয়ের দেশঁকে।

বেঞ্জেমার এজেন্ট করিম জাজ়িরি বলেছেন, ‘‘দেশঁর সিদ্ধান্তের মাশুল দিতে হয়েছে ফ্রান্সকে। বিশ্বকাপের নকআউট পর্বে খেলার জন্য প্রস্তুত ছিল বেঞ্জেমা। অথচ ওকে কোচ ডাকলেনই না। বিশ্বকাপের দলে থাকা এক জন অভিজ্ঞ ফুটবলার চোট সারিয়ে মাঠে নামার জন্য প্রস্তুত। অথচ তাকে উপেক্ষা করলেন কোচ!’’ তিনি আরও বলেছেন, ‘‘দ্রুত চোট সারানোর জন্য তিন জন বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকের পরামর্শ নেওয়া হয়েছিল। চলতি মরসুমে দারুণ ছন্দে ছিল বেঞ্জেমা। অনুশীলনে চোট পেতে তড়িঘড়ি ওকে দেশে ফেরত পাঠানো হল। অথচ সুস্থ হওয়ার পর আর দলে ফেরানো হল না।’’

২০১৬ সালে ইউরো কাপ এবং ২০১৮ সালে ফ্রান্সের বিশ্বকাপ জয়ে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা নিয়েছিলেন ৩৫ বছরের স্ট্রাইকার। দেশের হয়ে ৯৭টি ম্যাচে ৩৭টি গোল রয়েছে তাঁর। তবু চোট সারার পর দেশঁ তাঁকে আর এ বার বিশ্বকাপের দলে ফেরাননি। ফ্রান্স কোচের এই সিদ্ধান্তের তীব্র সমালোচনা করেছেন জাজ়িরি। তাঁর মতে, বেঞ্জেমা দলে থাকলে অন্য রকম ফলাফল হতেও পারত।

২০১৮ সালে কোচ হিসাবে ফ্রান্সকে বিশ্বকাপ দিয়েছিলেন দেশঁ। এ বারও তাঁর দলকে নিয়ে অনেক আশা ছিল ফরাসিদের। কিন্তু ফাইনালে আর্জেন্টিনার কাছে টাইব্রেকারে হেরে যান এমবাপেরা। দ্রুত চোট সারিয়ে বিশ্বকাপের নকআউট পর্বে মাঠে নামতে প্রস্তুত ছিলেন বেঞ্জেমা। কাতারে গিয়ে দলের সঙ্গে যোগ দেওয়ার ইচ্ছাও প্রকাশ করেছিলেন তিনি। বিশ্বকাপের পরই আন্তর্জাতিক ফুটবল থেকে অবসর ঘোষণা করেছেন ফ্রান্সের অভিজ্ঞ স্ট্রাইকার।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)
সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের মাধ্যমগুলি:
Advertisement

Share this article

CLOSE