Advertisement
২২ ফেব্রুয়ারি ২০২৪
Mohun Bagan

বদলায় বিশ্বাসী নন ফেরান্দো, সমীহ করলেও ওড়িশাকে বাড়তি গুরুত্ব দিচ্ছেন না মোহনবাগান কোচ

কয়েক দিন আগে এএফসি কাপের ম্যাচে ওড়িশা এফসির কাছে হারতে হয়েছে মোহনবাগানকে। বুধবার ঘরের মাঠে আইএসএলের ম্যাচে প্রতিপক্ষ সেই ওড়িশাই। তিন পয়েন্ট ছাড়া ভাবছে না সবুজ-মেরুন শিবির।

picture of Juan ferrando

জুয়ান ফেরান্দো। —ফাইল চিত্র।

আনন্দবাজার অনলাইন ডেস্ক
কলকাতা শেষ আপডেট: ০৫ ডিসেম্বর ২০২৩ ২২:৪১
Share: Save:

এএফসি কাপে সদস্য, সমর্থকদের প্রত্যাশা পূরণ করতে পারেননি মোহনবাগান ফুটবলারেরা। সেই হতাশা থাকলেও জুয়ান ফেরান্দোর দলের লক্ষ্য এখন ইন্ডিয়ান সুপার লিগ। এএফসি কাপের ম্যাচে ওড়িশা এফসির কাছে হারের বদলা আইএসএলে নিতে চায় সবুজ-মেরুন শিবির।

মোহনবাগান কোচের মতে, ছোট ছোট ভুল শুধরে ফুটবলারেরা নিজেদের খেলা খেলতে পারলেই ম্যাচের ফল তাঁদের পক্ষে আসতে পারে। একই বক্তব্য দলের মিডফিল্ডার অনিরুদ্ধ থাপার। তিনি বদলায় বিশ্বাসী নন। তাঁর লক্ষ্য ভুল শুধরে আইএসএলে জয়ের ধারা বজায় রাখা।

মঙ্গলবার সাংবাদিক বৈঠকে কোচ ফেরান্দো বলেন, “বদলা নিয়ে ভাবছি না। আমাদের সামনে একটা ম্যাচ আছে। সেটার জন্য তৈরি হতে হবে। শনিবার হায়দরাবাদের বিরুদ্ধে খেলে রবিবার ফিরেছি আমরা। তার পরে হাতে দু’দিন ছিল। এখনও আমাদের ২২টা ম্যাচ বাকি। এই ম্যাচগুলোতে ধারাবাহিকতা বজায় রাখাটা খুবই গুরুত্বপূর্ণ। খেলায় হারজিত থাকবেই। অতীত বদলানো সম্ভব নয়। ভাল খেলা এবং জেতাই লক্ষ্য আমাদের।”

দলের বড় কোনও পরিবর্তনের কথা ভাবছেন না মোহনবাগান কোচ। তিনি বলেছেন, ‘‘বিশাল কিছু পরিবর্তনের প্রয়োজন নেই। আমাদের বল নিয়ন্ত্রণে রাখতে হবে। জায়গা তৈরি করতে হবে। এর চেয়ে বেশি বিশেষ কিছু করার নেই। ঘরের ম্যাচ সব সময় গুরুত্বপূর্ণ। তাই বলে বেশি আত্রমণাত্মক ফুটব আমরা খেলব না। তিন পয়েন্ট নিয়ে মাঠ ছাড়তে চাই আমরা।’’

অনিরুদ্ধ বলেছেন, “আমরা এখন ভাল ফুটবল খেলছি। এএফসি কাপের ম্যাচে আমরা শুরুতেই দুটো গোল খেয়ে যাই। ম্যাচটা আমরা জিততে পারিনি। পেশাদার ফুটবলার হিসেবে সব ম্যাচ জেতার জন্য খেলি। সেরাটা দেওয়ার চেষ্টা করি। সে দিনও একই লক্ষ্য ছিল আমাদের। শুরুটা খারাপ হয়নি। তাও জয় আসেনি। বুধবার আবার ওদের বিরুদ্ধেই ম্যাচ। ভুল শুধরে নিতে হবে। সবাইকে ভাল খেলতে হবে। আগের ভুলগুলো করা চলবে না।’’

গত শনিবার হায়দরাবাদ এফসি-র বিরুদ্ধে শেষ ১১ মিনিটে দু’টি গোল করে জয় এনে দেন ব্রেন্ডান হ্যামিল ও আশিস রাই। ফরোয়ার্ডেরা গোল পাননি। এ ব্যাপারে অবশ্য উদ্বিগ্ন নন ফেরান্দো। তাঁর বক্তব্য, কে গোল করল সেটা গুরুত্বপূর্ণ নয়। যে কেউ করতে পারেন। ম্যাচের ফলই আসল তাঁর কাছে। ঘরের মাঠে ম্যাচ হলেও ওড়িশাকে সমীহ করছে মোহনবাগান শিবির।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)
Follow us on: Save:
Advertisement

Share this article

CLOSE