×

আনন্দবাজার পত্রিকা

Advertisement

১২ এপ্রিল ২০২১ ই-পেপার

বিরাট-ধোনি থাকতে প্রেরণার জন্য দলের বাইরে তাকাতে হয় না: হার্দিক

সংবাদ সংস্থা
২৫ অক্টোবর ২০১৬ ১৮:০১
ধোনি-বিরাটের ব্যাটেই সিরিজে এগিয়ে ভারত। ছবি: এএফপি।

ধোনি-বিরাটের ব্যাটেই সিরিজে এগিয়ে ভারত। ছবি: এএফপি।

এই প্রজন্মের ভারতীয় দলের ক্রিকেটাররা সত্যিই খুব ভাগ্যবান। তাঁরা তাঁদের পাশেই খেলার সুযোগ পাচ্ছেন যাঁদের দেখে বড় হয়ে উঠেছেন, যাঁদের দেখে ক্রিকেট খেলার স্বপ্ন দেখেছেন। সেই কথাই এদিন স্বীকার করে নিলেন ভারতীয় একদিনের দলের অল-রাউন্ডার হার্দিক পাণ্ড্য। তাঁর মতে তাঁর খেলা কঠিন পরিস্থিতেই বেশি খোলে। আর তার জন্য বেশি দূর তাকানোর প্রয়োজন নেই। পাশেই পেয়ে যান এমন দু’জনকে যাঁরা তাঁর অনুপ্রেরণা। দুই ক্যাপ্টেন কুলকে যখন দেখেন ঠান্ডা মাথায় কঠিন পরিস্থিতেও ব্যাট হাতে দুরন্ত ছন্দে, তখনই বারতি তাগিদ অনুভব করেন তিনি। রাঁচিতে বসে বলছিলেন, ‘‘যখন বিরাট কোহালি ও মহেন্দ্র সিংহ ধোনি ব্যাট করে এক সঙ্গে তখন অনেক কিছু শেখার থাকে। ওদের ব্যাটিং, রানিং বিটউইন উইকেট প্রেরণা জোগায়। ওদের একসঙ্গে ব্যাট করতে দেখাটাই দারুণ উপভোগ্য।’’

নিউজিল্যান্ডের বিরুদ্ধে চতুর্থ একদিনের ম্যাচ খেলতে এই মুহূর্তে ধোনির শহরে ভারতীয় দল। তৃতীয় ম্যাচেই কোহালি-ধোনির ব্যাটে জয়ে ফিরে সিরিজে ২-১ এ এগিয়ে গিয়েছে ভারত। পাঁচ ম্যাচের সিরিজ এক ম্যাচ বাকি থাকতেই জিতে নিতে মুখিয়ে রয়েছে ধোনি ব্রিগেড। আর সেটা যদি হয় খোদ ধোনির শহরেই তার থেকে ভাল আর কী হতে পারে। হার্দিক বলেন, ‘‘খুভ সদর্থক একটা ব্যাপার কাজ করে। ধোনির ব্যাটিং আমি খুব উপভোগ করি। একজন ব্যাটসম্যান হিসেবে আমি যে পজিশনেই ব্যাট করতে আসি না কেন ম্যাচের পরিস্থিতি অনুযায়ী ব্যাট করতে হবে। এটাই সবার কাজ। আমরা যাঁরা পরের দিকে ব্যাট করতে আসি তাঁদের আত্মবিশ্বাস বাড়ায় ওই ব্যাটিং।’’

হার্দিক এও জানিয়ে রাখলেন, আমি সব পজিশনে, সব সিচুয়েশনে ব্যাট করার জন্য তৈরি। ধর্মশালায় নিউজিল্যান্ডের বিরুদ্ধে ভারতের ছ’উইকেটে জয়ের ম্যাচে বল হাতে সাফল্য পেয়েছেন (৩/৩১)। নিজেকে অনেকটাই আত্মবিশ্বাসী মনে হচ্ছে তাঁর। বলেন, ‘‘আমি এখন অনেকটাই শক্তিশালী। তবে ফিটনেসের উপর আরও কাজ করতে হবে।’’ দ্বিতীয় একদিনের ম্যাচে ব্যাট হাতে ৩২ বলে তাঁর ৩৬ রান জয় এনে দিতে না পারলেও কঠিন পরিস্থিতে যে তিনি রুখে দাঁড়াতে পারেন তা প্রমাণ হয়ে গিয়েছে।

Advertisement

কোহালির উপর দলের অনেক বেশি নির্ভরশীলতার কথাও মেনে নিয়েছেন হার্দিক। ‘‘বিরাট যখন ওর পুরো ফর্মে থাকে তখন দলের আত্মবিশ্বাস এমনিতেই বেড়ে যায়। দলের উপর ওর একটা প্রভাব রয়েছে। আর সে কারণেই ও দ্রুত আউট হয়ে গেলে চাপ তৈরি হয়।’’ শেষ বেলায় অবশ্য কেদার যাদবের প্রশংসাও শোনা গেল হার্দিকের গলায়।

চতুর্থ ওয়ান ডে: ভারত বনাম নিউজিল্যান্ড (রাঁচি, বুধবার, দুপুর ১.৩০টা)

আরও খবর

রায়না বাদ, অপরিবর্তিতই থাকল বাকি ভারতীয় দল

Advertisement