Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

২০ মে ২০২২ ই-পেপার

URL Copied
Something isn't right! Please refresh.

বিরাটের অভাব নিয়ে দুই মেরুতে গাওস্কর-বর্ডার

গাওস্কর মনে করেন, কোহালির না থাকাটা ভারতীয় দলকে উদ্দীপিত করবে আরও ভাল খেলার জন্য। তাঁর কথায়, ‘‘অস্ট্রেলিয়ার কাছে কোহালির না থাকাটা দারুণ ব্য

কৌশিক দাশ
কলকাতা ১৫ ডিসেম্বর ২০২০ ০৪:৫১
Save
Something isn't right! Please refresh.
কিংবদন্তি: যাঁদের নামে টেস্টের ট্রফি। গাওস্কর-বর্ডার। ফাইল চিত্র

কিংবদন্তি: যাঁদের নামে টেস্টের ট্রফি। গাওস্কর-বর্ডার। ফাইল চিত্র

Popup Close

আর দু’দিন বাদে বর্ডার-গাওস্কর ট্রফির জন্য টেস্ট দ্বৈরথে নামতে চলেছে ভারত-অস্ট্রেলিয়া। তার আগে দু’দেশের দুই কিংবদন্তি— অ্যালান বর্ডার এবং সুনীল গাওস্করকে দেখা গেল সম্পূর্ণ দুই মেরুতে।

সোমবার আসন্ন টেস্ট সিরিজের সম্প্রচারকারী চ্যানেল সোনি স্পোর্টস নেটওয়ার্কের একটি অনুষ্ঠানে অস্ট্রেলিয়া থেকে ভারতীয় সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়েছিলেন দু’দেশের দুই কিংবদন্তি। প্রশ্ন করা হয়, প্রথম টেস্টের পরে কোহালির ফিরে আসায় কতটা ধাক্কা খাবে ভারতীয় দল? গাওস্করের দিকে তাকিয়ে বর্ডার বলে ওঠেন, ‘‘সানি, তুমি আমাকে আগে বলেছিলে কোহালি পুরো টেস্ট সিরিজই খেলবে। দেশে ফিরবে না। এখন কী বলবে?’’ গাওস্করের জবাব, ‘‘হ্যাঁ, কয়েক মাস আগে বলেছিলাম। কিন্তু তখন টেস্ট সিরিজের নতুন তারিখ ঘোষণা হয়নি। টেস্ট সিরিজ আগেই শেষ হয়ে যাওয়ার কথা ছিল।’’

গাওস্কর মনে করেন, কোহালির না থাকাটা ভারতীয় দলকে উদ্দীপিত করবে আরও ভাল খেলার জন্য। তাঁর কথায়, ‘‘অস্ট্রেলিয়ার কাছে কোহালির না থাকাটা দারুণ ব্যাপার। অস্ট্রেলিয়ায় ওর ছ’টা সেঞ্চুরি আছে। কিন্তু কোহালি ছাড়াও ভারত টেস্ট জিতেছে। ধর্মশালায় অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে। পরে আফগানিস্তানের বিরুদ্ধে। কোহালির না থাকাটা দল হিসেবে ভাল করার একটা প্রেরণাও ভারতের কাছে। এই রকম পরিস্থিতিতে অতীতে ভারতীয় দল কিন্তু নিজেদের তুলে ধরেছে।’’ গাওস্কর আরও মনে করেন, অধিনায়ক হিসেবে রাহানের উপরেও কোনও চাপ থাকবে না।

Advertisement

আরও পড়ুন: মুস্তাক আলি টি-টোয়েন্টির জন্য বাংলার সম্ভাব্য দল ঘোষিত হল

বর্ডার বলে দিচ্ছেন, ‘‘কোহালি না থাকায় ভারতীয় ব্যাটিংয়ে বিশাল শূন্যতা তৈরি হবে। অস্ট্রেলীয়রা যেটা দারুণ উপভোগ করবে। কোহালির বিকল্প পাওয়া খুব কঠিন। কোহালি ছাড়া তিনটে টেস্টে অস্ট্রেলিয়াই ফেভারিট।’’

আরও পড়ুন: নেতৃত্ব চাপে ফেলবে না রাহানেকে, বিশ্বাস গাওস্করের

একে অপরকে খোঁচা দিতেও ছাড়েননি বর্ডার-গাওস্কর। ভারতের কিংবদন্তি ওপেনার এখন অ্যাডিলেডে। অনুষ্ঠানের সঞ্চালক বর্ডারকে প্রশ্ন করেন, ‘‘আপনি কি ওঁকে নৈশভোজে ডাকবেন?’’ বর্ডারের জবাব, ‘‘আমার বাড়ি তো ব্রিসবেনে। সিরিজের শেষ টেস্ট হবে ওখানে। তত ক্ষণে সম্ভবত ভারত ০-৩ পিছিয়ে যাবে। সানি কি আর আসবে আমার বাড়িতে? তবে বন্ধুর জন্য আমন্ত্রণ রইল।’’ খোঁচার জবাব গাওস্কর দেন পরে এক প্রশ্নে। কে জিতবে বর্ডার-গাওস্কর ট্রফি? গাওস্কর বলে ওঠেন, ‘‘ভারত ২-১ জিতবে। প্রথম টেস্টে হারের পরে বাকি দু’টো জিতবে। ব্রিসবেনে শেষ টেস্ট বৃষ্টিতে ভেস্তে যাবে!’’

১৭ ডিসেম্বর থেকে শুরু অ্যাডিলেডে দিনরাতের টেস্টে ভারতের হয়ে কাদের ওপেন করা উচিত? গাওস্করের জবাব, ‘‘আমার পছন্দ মায়াঙ্ক আগরওয়াল ও শুভমন গিল।’’ অস্ট্রেলিয়ার ওপেনিং জুটি নিয়ে বর্ডারের মন্তব্য, ‘‘মার্কাস হ্যারিস ও ম্যাথু ওয়েডকে শুরুতে দেখতে চাই।’’ তবে ভারতীয় ‘এ’ দলের প্রস্তুতি ম্যাচের সময় সিডনিতে হাজির থাকা বর্ডার এক জন তরুণ ভারতীয় ব্যাটসম্যানের কথা আলাদা করে বলছেন। তিনি শুভমন। বর্ডারের মন্তব্য, ‘‘শুভমন ছেলেটার ব্যাটিং দেখে দারুণ লেগেছে।’’

ভারতের আর একটা সিদ্ধান্তের জায়গা, উইকেটকিপার হিসেবে কে খেলবেন। ঋদ্ধিমান সাহা না ঋষভ পন্থ? গাওস্কর মনে করেন, ব্যাটিং শক্তি বাড়াতে পন্থই খেলবেন। গাওস্করের কথায়, ‘‘পন্থ সদ্য সেঞ্চুরি করেছে। যেখানে স্টাম্পের কাছে দাঁড়িয়ে স্পিনারদের ঘূর্ণি সামলাতে হয়, সেখানে সেরা উইকেটকিপারকে নামাতে হবে। তখন ঋদ্ধিকে দরকার। অস্ট্রেলিয়ায় বেশির ভাগ সময়ই অনেকটা পিছনে দাঁড়াতে হবে।’’

সিরিজে কে হতে পারে দু’দলের তুরুপের তাস? গাওস্করের মতে: মায়াঙ্ক এবং মার্নাস লাবুশেন। বর্ডারের পছন্দ: যশপ্রীত বুমরা এবং ক্যামেরন গ্রিন। দুই কিংবদন্তির মধ্যে কার ভবিষ্যদ্বাণী ফলে, সেটাই এখন দেখার।



Something isn't right! Please refresh.

আরও পড়ুন

Advertisement