Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

২৪ মে ২০২২ ই-পেপার

URL Copied
Something isn't right! Please refresh.

ক্ষুব্ধ বুফন, গড়াপেটার অভিযোগ কিয়েল্লিনির

সংযুক্ত সময়ে জুভেন্তাসের বিরুদ্ধে পেনাল্টি দেন রেফারি। লাল কার্ড দেখে মাঠ ছাড়েন বুফন। তার পরেই গোল করে রিয়ালকে জেতান ক্রিশ্চিয়ানো রোনাল্ডো।

নিজস্ব প্রতিবেদন
১৩ এপ্রিল ২০১৮ ০৩:৩৪
Save
Something isn't right! Please refresh.
বিতর্ক: বুফনকে লাল কার্ড দেখাচ্ছেন রেফারি। বুধবার মাদ্রিদে। ছবি:এএফপি

বিতর্ক: বুফনকে লাল কার্ড দেখাচ্ছেন রেফারি। বুধবার মাদ্রিদে। ছবি:এএফপি

Popup Close

গত মরসুমে চ্যাম্পিয়ন্স লিগের ফাইনালে রিয়াল মাদ্রিদের বিরুদ্ধে হেরেই স্বপ্নভঙ্গ হয়েছিল জানলুইজি বুফন, জর্জো কিয়েল্লিনিদের। বুধবার রাতেও সান্তিয়াগো বের্নাবাউয়ে ছবিটা বদলাল না। সেই রিয়ালের বিরুদ্ধে হেরেই ছিটকে গেল জুভেন্তাস। তবে এ বার কোয়ার্টার ফাইনাল থেকে। হারের জন্য ইংল্যান্ডের রেফারি মাইকেল অলিভারকেই দায়ী করছেন জুভেন্তাসের ফুটবলাররা।

সংযুক্ত সময়ে জুভেন্তাসের বিরুদ্ধে পেনাল্টি দেন রেফারি। লাল কার্ড দেখে মাঠ ছাড়েন বুফন। তার পরেই গোল করে রিয়ালকে জেতান ক্রিশ্চিয়ানো রোনাল্ডো। বৃহস্পতিবার তুরিনে পৌঁছে রেফারির বিরুদ্ধে ক্ষোভ উগরে দেন বুফন। ইতালির সংবাদমাধ্যমে তিনি বলেছেন, ‘‘রেফারির হৃদয় বলে কিছু ছিল না। পুরোটাই আবর্জনায় ভর্তি।’’ বুফনের বিরুদ্ধে রেফারিকে গালাগালি ও ধাক্কা দেওয়ার অভিযোগ রয়েছে। ৪০ বছর বয়সি ইতালির কিংবদন্তি গোলরক্ষকের দাবি, ‘‘আমি শুধু রেফারিকে বলেছিলাম, এ ভাবে একটা ক্লাবের স্বপ্ন আপনি ধ্বংস করতে পারেন না।’’ সঙ্গে যোগ করেছেন, ‘‘রেফারির বোঝা উচিত, ওঁর জন্য কী বিপর্যয় ঘটে গিয়েছে। এই ধরনের ম্যাচের চাপ যদি নিতে না পারেন, তা হলে ওঁর উচিত ছিল গ্যালারিতে বসে মুচমুচে কিছু খাওয়া।’’

বুফনের চেয়েও আক্রমণাত্মক কিয়েল্লিনি। রেফারির বিরুদ্ধে পক্ষপাতিত্বের অভিযোগ করে জুভেন্তাস ডিফেন্ডারের তোপ, ‘‘এ তো পুরো ডাকাতি! আমরা যে এ ভাবে ঘুরে দাঁড়াব, তা অনেকেই ভাবতে পারেনি।’’ ক্ষুব্ধ কিয়েল্লিনি ম্যাচ গড়াপেটার মারাত্মক অভিযোগও করেছেন। তিনি বলেছেন, ‘‘গত মরসুমে এ ভাবেই রিয়ালের বিরুদ্ধে হেরে ছিটকে গিয়েছিল বায়ার্ন মিউনিখ। এ বার আমাদের ক্ষেত্রে একই ঘটনার পুনরাবৃত্তি ঘটল। রিয়াল যে জিতবে, তা আগে থেকেই ঠিক করা ছিল। তাই খারাপ লাগলেও বিস্মিত নই।’’

Advertisement

জুভেন্তাস ম্যানেজার মাসিমিলিয়ানো আলেগ্রি ভিএআর প্রযুক্তি (ভিডিয়ো দেখে সিদ্ধান্ত নেওয়া) ব্যবহারের দাবি তুললেন। তিনি বলেছেন, ‘‘ভিএআর প্রযুক্তি ব্যবহার করলে বিতর্ক এড়ানো অনেক সহজ হয়। কিন্তু চ্যাম্পিয়ন্স লিগে সেই সুবিধে আমরা পাই না।’’ রেফারির সঙ্গেও কথা বলতে দেখা গিয়েছিল ক্ষুব্ধ জুভেন্তাস ম্যানেজারকে। আলেগ্রির ব্যাখ্যা, ‘‘আমি শুধু রেফারিকে বলেছিলাম, পেনাল্টি আদৌ ছিল কি না তা কিন্তু স্পষ্ট নয়।’’

জিনেদিন জিদান অবশ্য মনে করেন যোগ্য দল হিসেবেই জিতেছে রিয়াল। যদিও বিতর্কিত পেনাল্টি নিয়ে তাঁর প্রতিক্রিয়া, ‘‘আমি দেখিনি। তবে সবাই আমাকে বলেছে, পেনাল্টির সিদ্ধান্ত সঠিক ছিল। রেফারির সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে কখনও মন্তব্য করা উচিত নয়।’’ বুফনের লাল কার্ড প্রসঙ্গে জিদানের মন্তব্য, ‘‘বুফন অসাধারণ ফুটবলার। কিন্তু ওর এ ভাবে মাঠ ছেড়ে চলে যাওয়াটা হতাশাজনক। আশা করছি, এটাই ওর শেষ চ্যাম্পিয়ন্স লিগ নয়।’’



Something isn't right! Please refresh.

আরও পড়ুন

Advertisement