Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

২২ জানুয়ারি ২০২২ ই-পেপার

‘ইস্টবেঙ্গলকে চ্যাম্পিয়ন করার আরও একটা সুযোগ দিয়েছেন ঈশ্বর’

নিজস্ব সংবাদদাতা
কলকাতা ০৭ মার্চ ২০১৯ ১৮:০৬
ইস্টবেঙ্গল ছেড়ে গেলেও আমনার শ্বাসপ্রশ্বাসে পুরনো ক্লাব। ছবি: এএফপি

ইস্টবেঙ্গল ছেড়ে গেলেও আমনার শ্বাসপ্রশ্বাসে পুরনো ক্লাব। ছবি: এএফপি

শনিবার আই লিগের ‘ফাইনাল’। কোয়ম্বত্তূরে চেন্নাই সিটি এফসি-র সামনে মিনার্ভা পঞ্জাব। অন্য দিকে, কোঝিকোড়ে ইস্টবেঙ্গলের প্রতিপক্ষ গোকুলম। আই লিগ চ্যাম্পিয়ন হওয়ার সমীকরণ সহজ নয় ইস্টবেঙ্গলের। লাল-হলুদ ব্রিগেডকে শেষ ম্যাচ জিততেই হবে। একইসঙ্গে পয়েন্ট হারাতে হবে চেন্নাইকে।

আলেসান্দ্রো মেনেনদেজ-ব্রিগেডের স্বপ্ন পূরণ ও ভাঙার মাঝখানে দাঁড়িয়ে মিনার্ভা পঞ্জাবের মাহমুদ আল আমনা। শনিবার সিরিয়ান ম্যাজিশিয়ানের পায়ে চেন্নাইয়ের স্বপ্ন ভাঙলে লাল-হলুদ সমর্থকদের মুখে খেলা করবে হাজার ওয়াটের আলো।

খেলার কুইজ

Advertisement

ইস্টবেঙ্গল থেকে মিনার্ভায় সই করা আল আমনা বৃহস্পতিবার কোয়ম্বত্তূর থেকে ফোনে আনন্দবাজারকে বললেন, ‘‘ইস্টবেঙ্গলকে চ্যাম্পিয়ন করার উদ্দেশ্য নিয়েই কলকাতায় গিয়েছিলাম। আমরা খুব কাছে পৌঁছেও চ্যাম্পিয়ন হতে পারিনি। খুব দুঃখ পেয়েছিলাম। সমর্থকদের যন্ত্রণাও অনুভব করতে পারি।’’

আরও পড়ুন: ছ’ম্যাচ সাসপেন্ড জবি, ফের হবে কাশ্মীরের খেলা

আরও পড়ুন: চেন্নাইকে ম্যাচ ছাড়বে না মিনার্ভা, টুইট করে ইস্টবেঙ্গলকে বাজাজের আশ্বাস

এখানেই থামছেন না আমনা। তাঁর আরও সংযোজন, ‘‘প্রিয় ক্লাব আই লিগ চ্যাম্পিয়ন হবে এই আশায় প্রতি বার বুক বাঁধেন ওঁরা। প্রতি বারই ওদের সমর্থকদের আশা ভেঙে যায়। আমার সময়ে ইস্টবেঙ্গল চ্যাম্পিয়ন হতে পারেনি। এ বার ইস্টবেঙ্গলকে চ্যাম্পিয়ন করা এবং সমর্থকদের মুখে হাসি ফোটানোর আরও একটা সুযোগ ঈশ্বর আমাকে দিয়েছেন। আমরা প্রাণপন লড়াই করব।’’

আই লিগের পয়েন্ট তালিকায় চেন্নাই ৪০ পেয়ে শীর্ষে। ইস্টবেঙ্গল এক পয়েন্ট পিছনে। চেন্নাই সিটি এফসি-র কোচ আকবর নওয়াস নিজেদেরই ফেভারিট বলেছেন মেগা ম্যাচের আগে। কিন্তু আমনা কাকে এগিয়ে রাখছেন? ইস্টবেঙ্গল ও চেন্নাই— দুটো দলেরই চ্যাম্পিয়ন হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে বলে মত তাঁর।

চলতি মরসুমের মাঝপথে চোটের জন্য ছেড়ে দেওয়া হয় আমনাকে। চোখের জলে প্রিয় ক্লাবকে বিদায় জানিয়েছিলেন তিনি। নতুন ঠিকানা খুঁজে পেলেও আমনার শ্বাসপ্রশ্বাসে জড়িয়ে রয়েছে কলকাতা ও ফুটবলপাগল সমর্থকেরা। ছ’নম্বর জার্সিধারী বলছেন, ‘‘কলকাতায় আমার অনেক স্মৃতি জড়িয়ে রয়েছে। খুব ভাল সময় কাটিয়েছি। কলকাতার সমর্থকদের আমি মিস করি। শ্রদ্ধা করি ফুটবলের প্রতি ওঁদের আবেগকে।’’

লাল-হলুদ জার্সি পরে তিনি ছিলেন সব অর্থেই টিমম্যান। নতুন ক্লাবে গিয়ে পুরনো ক্লাবকে চ্যাম্পিয়ন করতে চান সিরিয়ান ফুটবলার। এখনও যে তিনি আগের মতোই টিমম্যান!

(মোহনবাগান, ইস্টবেঙ্গল থেকে এটিকে। কলকাতা ডার্বি, আইলিগ থেকে আইএসএল, কলকাতা ময়দানের সমস্ত খবর জানতে পড়ুন আমাদের খেলা বিভাগ।)

আরও পড়ুন

Advertisement