Advertisement
০৫ অক্টোবর ২০২২
India

Indian women’s cricket team: রমেশ পওয়ারের সঙ্গে মিতালির বিবাদ অতীত, ফের এক টেবিলে কোচ-অধিনায়ক

চাকরি খুইয়েছিলেন ভারতের এই প্রাক্তন অফ স্পিনার। সেই রমেশ পওয়ার আবার তাঁর পুরনো দায়িত্বে ফিরে এসেছেন।

রমেশ পওয়ারকে নিয়ে সামনের দিকে এগোতে চাইছেন মিতালি রাজ।

রমেশ পওয়ারকে নিয়ে সামনের দিকে এগোতে চাইছেন মিতালি রাজ।

নিজস্ব প্রতিবেদন
কলকাতা শেষ আপডেট: ৩০ মে ২০২১ ২১:৩৬
Share: Save:

পুরনো বিবাদের কাসুন্দি না ঘেঁটে সামনের দিকে এগোতে চাইছেন ভারতের মহিলা দলের অধিনায়ক মিতালি রাজ। ২০১৮ সালে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের সময় তাঁর সঙ্গে রমেশ পওয়ারের বিবাদ নিয়ে উত্তাল হয়েছিল ক্রিকেট দুনিয়া। চাকরি খুইয়েছিলেন ভারতের এই প্রাক্তন অফ স্পিনার। সেই রমেশ পওয়ার আবার তাঁর পুরনো দায়িত্বে ফিরে এসেছেন।

কিন্তু তাঁর সঙ্গে কাজ করতে সমস্যা হবে না? টেস্ট ও একদিনের দলের অধিনায়ক মিতালি বলছেন, “সমস্যা আবার কিসের! সব পরিবারেই এমন ঘটনা ঘটে থাকে। তাই বলে কি অতীত নিয়ে বসে থাকব! আমি সেই সব কঠিন দিন ভুলে গিয়েছি। গত ২১ বছর ধরে ভারতীয় দলের অবিচ্ছেদ্য অংশ। কোনওদিন নিজের জন্য খেলিনি। ব্যক্তিগত ইচ্ছাকে দলের উপর চাপিয়ে দিতে চাইনি। এখনও সমান খিদে নিয়ে মাঠে নামি। তাই ব্যক্তিগত ইচ্ছা-অনিচ্ছা দূরে সরিয়ে রেখে আগামী ইংল্যান্ড সফর নিয়ে চিন্তা করছি।”

বিরাট কোহলী, রোহিত শর্মাদের সঙ্গে মুম্বইয়ের একই হোটেলে নিভৃতবাসে রয়েছেন ঝুলন গোস্বামী, হরমনপ্রীত কৌররা। আগামী ২ জুন একই বিমানে বিলেত উড়ে যাবে ভারতের পুরুষ ও মহিলা দল। এর আগে রবিবার মিতালিদের টেস্ট দলের জার্সি উন্মোচন হয়ে গেল। নিভৃতবাসে থাকার সময় নেট মাধ্যমে মুখ্য প্রশিক্ষকের সঙ্গে আসন্ন সফরের আলোচনা সেরে নিচ্ছেন মিতালি ও তাঁর প্রমীলা বাহিনী।

সেই বিষয়ে মিতালি বলছেন, “ও যখন দায়িত্ব নিয়েছে তখন ওর নিশ্চয়ই কিছু পরিকল্পনা আছে। সেগুলো আমাদের শোনা উচিত। কারণ আমাদের উদ্দেশ্য কিন্তু দেশের জয়। আর সেই লক্ষ্য নিয়েই এগিয়ে যাচ্ছি। রোজই ওর সঙ্গে আলোচনা হয়। এর মধ্যে আবার আগামী বছর বিশ্বকাপ রয়েছে। সেখানে ভাল ফল করাই লক্ষ্য। তাই সবাইকে একজোট হয়ে কাজ করতে হবে।”

তবে ভারতীয় মহিলা দল প্রস্তুতি নিলেও কঠিন পরীক্ষার মধ্য দিয়ে সফরটা শুরু হবে। ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে একমাত্র টেস্টের আগে বেশ চাপে রয়েছে। ২০১৮ সাল থেকে মহিলাদের ঘরোয়া ক্রিকেট লাল বলে খেলা হয় না। এমনকি মিতালি তাঁর ২১ বছরের লম্বা সফরে মাত্র ১০টি টেস্ট খেলেছেন। এর মধ্যে ২০১৪ সালে দক্ষিণ আফ্রিকার বিরুদ্ধে ঘরের মাঠে খেলেছিলেন শেষ টেস্ট ম্যাচ। ঝুলন, স্মৃতি মান্ধানা, হরমনপ্রীতদেরও ছিল সেটাই শেষ টেস্ট ম্যাচ।

যদিও মহিলাদের একদিনের ক্রিকেটের সর্বোচ্চ রান সংগ্রাহক জোর দিয়ে বলছেন, “কাজটা কঠিন হলেও আমাদের ইতিবাচক মানসিকতা বজায় রাখতে হবে। নিজেদের উপর আস্থা রাখতে হবে। তবে এটাও ঠিক যে ভারত ও ইংল্যান্ডের পরিবেশ এক নয়। ব্রিস্টলে ১৬ জুন থেকে টেস্ট শুরু হওয়ার আগে আমরা কয়েক দিন অনুশীলন করতে পারব। সেই দিকেই তাকিয়ে আছি। শুধু তো ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে টেস্ট নয়, অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে আমরা প্রথম বার দিন-রাতের টেস্ট খেলব। আমাদের মহিলাদের কাছে এটা কিন্তু বড় প্রাপ্তি।”

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, Twitter এবং Instagram পেজ)
Follow us on: Save:
Advertisement
Advertisement

Share this article

CLOSE
Popup Close
Something isn't right! Please refresh.