Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

২৩ মে ২০২২ ই-পেপার

URL Copied
Something isn't right! Please refresh.

বাউন্ডারির বিচারে জয়ের নিয়মে ক্ষুব্ধ যুবরাজেরা

টুইটারে ভারতীয় সহ-অধিনায়ক রোহিত শর্মা বলেছেন, ‘‘ক্রিকেটের বেশ কিছু নিয়ম রয়েছে যা নিয়ে ভেবে দেখা প্রয়োজন।’’

নিজস্ব প্রতিবেদন
১৬ জুলাই ২০১৯ ০৪:৪২
Save
Something isn't right! Please refresh.
নিজের উইকেট বাঁচাতে বেন স্টোকসের ঝাঁপ।—ছবি রয়টার্স।

নিজের উইকেট বাঁচাতে বেন স্টোকসের ঝাঁপ।—ছবি রয়টার্স।

Popup Close

বাউন্ডারির নিরিখে ইংল্যান্ডকে বিশ্বকাপ তুলে দেওয়ার সিদ্ধান্ত মেনে নিতে পারেননি অনেকেই। রোহিত শর্মা থেকে যুবরাজ সিংহ এই নিয়মের বিরুদ্ধে তীব্র সমালোচনা করেছেন। আইসিসি-কে এই নিয়ম বদলানোর বিষয়ে ভেবে দেখার অনুরোধ করেছেন।

টুইটারে ভারতীয় সহ-অধিনায়ক রোহিত শর্মা বলেছেন, ‘‘ক্রিকেটের বেশ কিছু নিয়ম রয়েছে যা নিয়ে ভেবে দেখা প্রয়োজন।’’ যুবি আরও তীব্র প্রতিবাদ করে লিখেছেন, ‘‘এই নিয়মের সঙ্গে একেবারেই আমি একমত নই। কিন্তু নিয়ম তো নিয়মই হয়। ইংল্যান্ডকে অভিনন্দন প্রথম বিশ্বকাপ জেতার জন্য। কিন্তু আমার হৃদয়কে থামাতে পারছি না। নিউজ়িল্যান্ডকে দেখে সত্যি কান্না পাচ্ছে।’’ সঙ্গে যোগ করেন, ‘‘এটাই বিশ্বকাপের সেরা ফাইনাল।’’

নিউজ়িল্যান্ডের প্রাক্তন অধিনায়ক স্টিভন ফ্লেমিং নিয়ম মানতে পারেননি। এক কথায় তাঁর টুইট, ‘‘নিষ্ঠুর’’। তাঁকে রিটুইট করে মিচেল ম্যাকলেনাঘান লেখেন, ‘‘প্রচণ্ড নিষ্ঠুর।’’ আইসিসি-কে কটাক্ষ করে টুইট করেছেন প্রাক্তন অলরাউন্ডার স্কট স্টাইরিশ। লিখেছেন, ‘‘অসাধারণ কাজ করল আইসিসি। ক্রিকেটকে মজায় পরিণত করার জন্য ধন্যবাদ।’’ প্রাক্তন পেসার ব্রেট লিও ক্ষোভ উগড়ে দিয়েছেন নিজের টুইটার হ্যান্ডলে। ‘‘ইংল্যান্ডকে অবশ্যই ধন্যবাদ। নিউজ়িল্যান্ডকে আমার ভালবাসা। ওদের চেয়ে হয়তো বেশি আর কেউ কষ্ট পাচ্ছে না। একটা কথাই বলতে পারি, বিশ্বকাপের চ্যাম্পিয়ন বাছার জন্য এর মতো অযৌক্তিক ও হাস্যকর নিয়ম হতে পারে না। অবিলম্বে এই নিয়ম পাল্টে ফেলা দরকার।’’

Advertisement

প্রাক্তন ভারতীয় ক্রিকেটার মহম্মদ কাইফও একেবারেই এই হার মানতে পারছেন না। তাঁর টুইট, ‘‘এই নিয়ম হজম করা সম্ভব নয়। ফুটবলে যে রকম ‘সাডেন ডেথ’-এর মাধ্যমে সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। তেমনই সুপার ওভারও চালিয়ে যাওয়া যায়। হয়তো সময় বেশি লাগবে বলে এ ধরনের নিয়ম চালু হয়েছে।’’ আরও বলেন, ‘‘তবে এ ভাবে জেতার চেয়ে ট্রফি ভাগাভাগি করে নেওয়া বেশি শান্তির।’’



Something isn't right! Please refresh.

আরও পড়ুন

Advertisement