Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

২৬ জানুয়ারি ২০২২ ই-পেপার

ঘূর্ণি পিচে ২১৫ রানে গুটিয়েও দিনের শেষে স্বস্তিতে ভারত

ইঙ্গিতটা আগেই ছিল। কিন্তু বোঝা যায়নি টেস্ট ম্যাচের প্রথম ঘণ্টা থেকেই বল ঘুরতে থাকবে। যার জেরে বুধবার সকালে টস জিতে প্রথম ব্যাটিং নিয়ে ভারতের

নিজস্ব প্রতিবেদন
২৫ নভেম্বর ২০১৫ ১৮:১১

ইঙ্গিতটা আগেই ছিল। কিন্তু বোঝা যায়নি টেস্ট ম্যাচের প্রথম ঘণ্টা থেকেই বল ঘুরতে থাকবে। যার জেরে বুধবার সকালে টস জিতে প্রথম ব্যাটিং নিয়ে ভারতের ইনিংস ২১৫ রানে শেষ হয়ে গেলেও দক্ষিণ আফ্রিকা শেষবেলায় দু’উইকেট হারিয়ে ফের চাপে। এবং মোহালি টেস্ট ম্যাচের মতোই এই নাগপুর টেস্টও চার দিনের মধ্যে এবং ভারতের পক্ষে শেষ হওয়ার সম্ভাবনা জাগিয়ে তুলেছে।

ঘরের মাঠে স্পিনিং ট্র্যাক যে সিরিজের সব ম্যাচেই হতে চলেছে এটা মোহালি টেস্টের পরেই বোঝা গিয়েছিল। তবে বোঝা যায়নি প্রথম থেকেই বল এতটা ঘুরতে থাকবে। দক্ষিণ আফ্রিকার মতো দেশও যেখানে প্রথম আধ ঘণ্টার মধ্যে স্পিনার নিয়ে আসতে বাধ্য হয়। এবং তাঁদের অনিয়মিত স্পিনাররাও এক হাত করে বল ঘোরাতে থাকেন। এবং ভারতীয় ইনিংসের শেষে অফ স্পিনার সাইমন হার্মার চার উইকেট নিয়ে প্রোটিয়াদের সেরা বোলার।

স্পিনিং ট্র্যাক হবে। দক্ষিণ আফ্রিকার ব্যাটসম্যানরা তাতে চাপে পড়বেন। অশ্বিন বিধ্বংসী হয়ে উঠবেন। এ সবই প্রত্যাশিত। কিন্তু যা প্রত্যাশিত নয়, তা হল, ভারতীয় ব্যাটিংয়ের এ ভাবে আত্মসমর্পণ। মোহালির পর এখানেও প্রথম দিনেই অল আউট। সর্বোচ্চ ওপেনার মুরলী বিজয়ের ৪০ রান। শেষ দিকে ঋদ্ধিমান সাহা (৩২) এবং রবীন্দ্র জাডেজা (৩৪) হাল না ধরলে ভারতের দুশো পেরোত কি না সন্দেহ। ঋদ্ধি আরও বড় রানের দিকে এগোচ্ছিলেন, কিন্তু শর্ট মিড অন অঞ্চলে দাঁড়ানো দুমিনি শূন্যে উড়ে গিয়ে অসাধারণ একটা ক্যাচে বাংলার উইকেটকিপারকে ফিরিয়ে দেন।

Advertisement

ভারত আবার এই টেস্টে এক জন অতিরিক্ত ব্যাটসম্যান খেলাচ্ছে এক জন পেসারকে বসিয়ে। রোহিত শর্মা। কিন্তু তা সত্ত্বেও স্কোরবোর্ডে ব্যাটিংয়ের অবস্থান কিছু বদলাচ্ছে না। রোহিত এ দিন ২ করলেন। অজিঙ্ক রাহানে ১৩। বিরাট কোহলি ২২। কিন্তু সেট হয়ে যাওয়ার পর কোহলি যে ভাবে মর্নি মর্কেলের বাইরের বল তাড়া করতে গিয়ে উইকেটকিপারকে ক্যাচ দিয়ে ফিরলেন, তাতে রীতিমতো ক্ষুব্ধ সুনীল গাওস্কর। টিভি-তে ধারাভাষ্য দিতে দিতে গাওস্কর বলে ওঠেন, ‘‘কোহলি এ ভাবে অতীতে বেশ কয়েক বার আউট হয়েছে। ব্যাটিংয়ের এই ত্রুটিটা ওকে সারাতে হবে।’’

ভারতীয় ব্যাটিংয়ের রোগটা এখনও না সারলেও স্পিনাররা কিন্তু কাজে নেমে পড়েছেন। অশ্বিন চার ওভারের মধ্যে এবং জাডেজা তিন ওভারের মধ্যে একটা করে উইকেট তুলে নিয়েছেন।

এই টেস্টটাও যদি চেনা পথেই এগোয়, তা হলে আবার সেই ভারতীয় স্পিনার বনাম এবি ডে’ভিলিয়ার্সের যুদ্ধটা দেখা যাবে দ্বিতীয় দিন। যা হয়তো ঠিক করে দেবে এই টেস্ট এবং এই সিরিজের ভাগ্য।

আরও পড়ুন

Advertisement