Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

২৯ জানুয়ারি ২০২২ ই-পেপার

ভারতকে ‘আবেগের দৈত্য’ বললেন ফিফা প্রেসিডেন্ট

একের পর এক ক্লাব টিম তুলে নিচ্ছে। আই লিগে খেলার জন্য টিম পেতে বিজ্ঞাপন দিতে হচ্ছে ফেডারেশনকে। ফ্র্যাঞ্চাইজি দলের আইএসএল হয়ে দাঁড়াচ্ছে দেশের

নিজস্ব প্রতিবেদন
২৮ সেপ্টেম্বর ২০১৬ ০৩:৫৫
লোগো উন্মোচন।

লোগো উন্মোচন।

একের পর এক ক্লাব টিম তুলে নিচ্ছে। আই লিগে খেলার জন্য টিম পেতে বিজ্ঞাপন দিতে হচ্ছে ফেডারেশনকে। ফ্র্যাঞ্চাইজি দলের আইএসএল হয়ে দাঁড়াচ্ছে দেশের প্রধান টুর্নামেন্ট।

এ দেশের ফুটবলের যখন এই অবস্থা তখন ফিফা প্রেসিডেন্ট জিয়ানি ইনফ্যান্টিনো গোয়ায় এসে প্রশংসা করে গেলেন ফেডারেশনের কাজের। যা শুধু হাস্যকর নয়, চমকপ্রদও। প্রাক্তন ফিফা প্রেসিডেন্ট সেপ ব্লাটার ভারতকে বলেছিলেন, ‘ঘুমন্ত দৈত্য’ আর বর্তমান প্রেসিডেন্ট জিয়ান্নি বললেন, ‘‘প্যাশনেট জায়ান্ট।’’ এখানেই থেমে থাকেননি তিনি। ফেডারেশন ও অনূর্ধ্ব-১৭ বিশ্বকাপের লোগো উদ্বোধন করার পর বর্তমান ফিফা প্রেসিডেন্টের মন্তব্য, ‘‘বিশ্ব চ্যাম্পিয়ন হওয়ার মতো আবেগ আছে ভারতে। ভারত তো আবেগের দৈত্য। এখনকার ফেডারেশন দারুণ কাজ করছে। প্রতিদিন ফুটবলের উন্নতি হচ্ছে। ফুটবল নিয়ে যুব, ছাত্র, দর্শকদের মধ্যে দারুণ আবেগ কাজ করে সব সময়। সে জন্যই মনে হচ্ছে এখনকার ফুটবল ক্রমশ উন্নতির শিখরে উঠছে।’’ তাঁর আরও মন্তব্য, ‘‘ভারতে যুবদের মধ্যে এক নম্বর খেলা হিসাবে ফুটবলকে তুলে আনার জন্য ফেডারেশন ও ফিফা একসঙ্গে কাজ করবে।’’ তাঁর পাশে দাঁড়িয়ে ফেডারেশন প্রেসিডেন্ট প্রফুল্ল পটেলের মন্তব্য, ‘‘সামনের বছর অনূর্ধ্ব-১৭ বিশ্বকাপ ভারতীয় ফুটবলের মাইলস্টোন হিসাবে কাজ করবে। এটা এ দেশের ফুটবলে ইতিহাস তৈরি করবে।’’ যা শুনে ফুটবল মহলের অনেকেই হাসছেন। কারণ ফিফা প্রেসিডেন্টের সামনে গালভরা প্রতিশ্রুতির ফুলঝুরি ছোটালেও প্রফুল্লরা তো আই লিগের চ্যাম্পিয়নদের হাতে পুরস্কার দেওয়ার জন্যও মাঠে আসার সময় পান না। আর তাঁদের অনেকেরই বক্তব্য, ফিফা প্রেসিডেন্ট তো ফেডারেশনের তৈরি করা কাগজপত্র দেখেই ‘প্যাশনেট জায়ান্ট’ মন্তব্য করেছেন। এ দেশের ফুটবলের প্রকৃত চিত্রটাই যে তাঁকে দেখানো হয়নি।

Advertisement

আরও পড়ুন

Advertisement