Advertisement
১২ জুলাই ২০২৪

পুণেতেও চহালদের কাঁটা শিশির

সমুদ্র উপকুলের শহর বিশাখাপত্তনমে শিশির সমস্যায় পড়ার পরে কুলদীপ-যুজবেন্দ্র চহালদের তৃতীয় ওয়ান ডে-তেও একই সমস্যায় পড়তে হতে পারে মহারাষ্ট্রের বাণিজ্যনগরী পুণেতেও। গত কয়েক দিন ধরে রাতের দিকে বেশ ভাল রকম শিশির পড়ছে বলে স্থানীয় ক্রিকেটকর্তাদের বক্তব্য।

আগমন: পুণেতে পৌঁছল ভারত। বিমানবন্দরে রোহিত-জাডেজারা। পিটিআই

আগমন: পুণেতে পৌঁছল ভারত। বিমানবন্দরে রোহিত-জাডেজারা। পিটিআই

রাজীব ঘোষ
পুণে শেষ আপডেট: ২৬ অক্টোবর ২০১৮ ০৪:০২
Share: Save:

শুধু শেই হোপ বা শিমরন হেটমায়ার নন, ভারতীয় বোলারদের যে আরও এক প্রতিদ্বন্দ্বীর বিরুদ্ধেও লড়াই করতে হচ্ছে চলতি ওয়ান ডে সিরিজে, তা বুধবার বিশাখাপত্তনমে দ্বিতীয় ম্যাচের পরেই জানান চায়নাম্যান বোলার কুলদীপ যাদব। শিশিরের জন্য যে বুধবার দ্বিতীয় ইনিংসে বল ঠিকমতো গ্রিপ করতেই পারছিলেন না, তা টাই হওয়া ম্যাচের শেষে স্বীকার করে নেন তিনি।

সমুদ্র উপকুলের শহর বিশাখাপত্তনমে শিশির সমস্যায় পড়ার পরে কুলদীপ-যুজবেন্দ্র চহালদের তৃতীয় ওয়ান ডে-তেও একই সমস্যায় পড়তে হতে পারে মহারাষ্ট্রের বাণিজ্যনগরী পুণেতেও। গত কয়েক দিন ধরে রাতের দিকে বেশ ভাল রকম শিশির পড়ছে বলে স্থানীয় ক্রিকেটকর্তাদের বক্তব্য। তাই পুণের মাঠেও পরে বল করলে ভারতীয় বোলাররা সমস্যায় পড়তে পারেন। একই অসুবিধে অবশ্য হবে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বোলারদেরও। তাই শনিবার তৃতীয় ওয়ান ডে-তে টস গুরুত্বপূর্ণ হতে চলেছে বলে বক্তব্য পুণের ক্রিকেট মহলের।

মহারাষ্ট্র ক্রিকেট সংস্থার প্রশাসন এখন মূলত যাঁর কথায় অনেকটাই চলে, সেই সচিব রিয়াজ বাগওয়ান বৃহস্পতিবার বলে দেন, ‘‘বিশাখাপত্তনমে যদি শিশিরের সমস্যা হয়ে থাকে ভারতের বোলারদের, তা হলে এখানেও তা হতে পারে। কারণ, গত কয়েক দিন ধরেই আমরা লক্ষ্য করছি সন্ধের পর থেকেই ভাল শিশির পড়ছে। শনিবারের ম্যাচে যে দল পরে বোলিং করবে, তাদের অসুবিধে হতেই পারে। তাই টস এই ম্যাচে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা নেবে বলেই মনে হয়।’’ তবে শিশির সামলানোর জন্য কিছু ব্যবস্থা নিয়েছেন সংগঠকরা। যেমন, দড়ির সাহায্যে ঘাস থেকে শিশির মোছা, রাসায়নিক স্প্রে-র সাহায্যে শিশিরের প্রভাব কমানো। যে ব্যবস্থা গত কয়েক দিন থেকেই কার্যকর হয়েছে। চলবে ম্যাচের দিনেও।

গত বছর এক টিভি চ্যানেলের গোপন ক্যামেরা অভিযানে পুণের পিচ কিউরেটর পান্ডুরঙ্গ সালগাওকরের উইকেট সংক্রান্ত তথ্য পাচারের কীর্তি ফাঁস হয়ে যাওয়ার পর থেকে পুণের ক্রিকেট মহলে পিচ নিয়ে আলোচনা প্রায় বন্ধই হয়ে গিয়েছে। সালগাওকরের বিরুদ্ধে অভিযোগ ওঠে, তিনি অর্থের বিনিময়ে উইকেটের চরিত্র বদল করে দিতেও নাকি রাজি ছিলেন। এই অপরাধে ছ’মাস নির্বাসিত থাকার পরে এ বছর আইপিএলের সময় থেকে তিনি ফের কাজে ফিরে এলেও মুখ পুরোপুরি বন্ধ হয়ে গিয়েছে তাঁর। শোনা গেল, তাঁকে এই শর্তেই ফেরানো হয়েছে যে, মাঠ বা উইকেট নিয়ে কারও সঙ্গে কোনও কথাই বলবেন না।

তাঁর জায়গায় ছ’মাস যিনি পুণের এমসিএ স্টেডিয়ামের উইকেটের দেখভাল করছিলেন, সেই মহারাষ্ট্রের প্রাক্তন ক্রিকেটার ও কোচ সুরেন্দ্র ভাবেও এ দিন বলেন, ‘‘এই সময়ে পুণেতে শিশিরের সমস্যা হয়। এটাও ঠিক যে গত কয়েক দিন ধরে শিশির স্বাভাবিকের চেয়ে বেশি পড়তে দেখা যাচ্ছে। জানি না শনিবার কতটা শিশির পড়বে। তবে এই সমস্যা দূর করার সব চেয়ে ভাল উপায় নেট প্র্যাকটিসে বল ভিজিয়ে নিয়ে বোলিং করা। আমার মনে হয়, কুলদীপরা পুণেয় এসে সেটা করবে।’’ ভাবের প্রত্যাশা অবশ্য পূরণ হওয়ার সম্ভাবনা নেই। কারণ, আজ, শুক্রবার, ম্যাচের আগের দিন ভারতীয় ক্রিকেটারেরা অনুশীলন করবেন না।

নেটে বল ভিজিয়ে বোলিং অনুশীলন করা অবশ্য ভারতীয় বোলারদের কাছে নতুন কিছু নয়। বছরের শেষের দিকে ঘরের মাঠে এ রকম সমস্যার কথাও তাদের জানা। ইডেনেও শীতকালে বোলারদের বল ভিজিয়ে অনুশীলন করতে দেখা গিয়েছে একাধিকবার। যদিও পুণেতে সে রকম কিছু হচ্ছে না।

শিশিরের সঙ্গে উইকেটের চরিত্রেও গত ম্যাচের সঙ্গে মিল খুঁজে পেতে পারেন বিরাট কোহালিরা। ছ’মাস ধরে পুণের যে উইকেটের দেখভাল করেছেন, সেই উইকেটের চরিত্র নিয়ে ভাবে বলেন, ‘‘এখানে বরাবরই প্রচুর রান ওঠে। পুণের পিচ সব সময় ব্যাটসম্যানদের সুবিধে দেয়। বিশেষ করে ওয়ান ডে ও টি-টোয়েন্টিতে। এই মাঠে যে তিনটে ওয়ান ডে ম্যাচ হয়েছে, সেই তিনটেতেই মোট ৫০০-৬০০ করে রান উঠেছে। আর এখনও উইকেটের চরিত্র একই রয়েছে। তাই আমার মনে হয় শনিবারও প্রচুর রান উঠবে এখানে।’’

ভারতীয় দলে দুই সেরা পেসার যশপ্রীত বুমরা ও ভুবনেশ্বর কুমার ফেরায় অবশ্য ওয়েস্ট ইন্ডিজের দুই তারকা ব্যাটসম্যান হোপ ও হেটমায়ার চাপে পড়ে যেতে পারেন। ‘‘পুণে থেকেই শুরু হবে হোপ-দের আসল পরীক্ষা,’’ মনে করছেন মহারাষ্ট্রের প্রাক্তন ওপেনিং ব্যাটসম্যান।

বৃহস্পতিবার সন্ধেয় দুই দল পুণে শহরে ঢুকে পড়ার আগেই অবশ্য জেগে উঠেছে এখানকার ক্রিকেটপ্রেমী জনতা। জানা গেল, একটাও টিকিট পড়ে নেই, হাহাকার সর্বত্র। অনেকেই এই ম্যাচে ভারতের সিরিজ জয় দেখার কথা ভেবে হয়তো টিকিট কেটে রেখেছিলেন। দ্বিতীয় ওয়ান ডে টাই হওয়ায় সেই উপায় আর নেই। তবে ওয়েস্ট ইন্ডিজের ব্যাটসম্যানরা পাল্টা চ্যালেঞ্জ ছুড়ে দেওয়ায় একটা হাড্ডাহাড্ডি লড়াই দেখার আশা নিয়েই হয়তো শনিবার ছুটির দিনে ম্যাচ দেখতে আসবেন দর্শকরা।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)

অন্য বিষয়গুলি:

Cricket India West Indies ODI Pune Dew
সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের মাধ্যমগুলি:
Advertisement

Share this article

CLOSE