×

আনন্দবাজার পত্রিকা

Advertisement

১৮ জুন ২০২১ ই-পেপার

অ্যাডিলেডে রান আউট করার জন্য কোহালির কাছে সেদিনই ক্ষমা চেয়েছিলেন রাহানে

নিজস্ব প্রতিবেদন
কলকাতা ২৫ ডিসেম্বর ২০২০ ১৬:০৩
ইতিবাচক মানসিকতায় জোর দিচ্ছেন রাহানে। ছবি টুইটার থেকে নেওয়া।

ইতিবাচক মানসিকতায় জোর দিচ্ছেন রাহানে। ছবি টুইটার থেকে নেওয়া।

প্রথম টেস্টে তাঁর সঙ্গে ভুল বোঝাবুঝিতে রান আউট হতে হয়েছিল বিরাট কোহালিকে। তার জন্য সেদিনই কোহালির কাছে ক্ষমা চেয়ে নিয়েছিলেন অজিঙ্ক রাহানে। অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে বক্সিং ডে টেস্টের আগে সাংবাদিক সম্মেলনে এসে জানালেন বাকি সিরিজে ভারতের নতুন অধিনায়ক।

রাহানের কথায়, “প্রথম দিনের খেলা শেষ হওয়ার পর ‘সরি’ বলেছিলাম বিরাটকে। ও মেনে নিয়েছিল। বুঝেছিল। তবে ক্রিকেটে এগুলো ঘটেই থাকে। আর সেটা মেনেই চলতে হয়।”

দেশে ফেরার আগে বিরাট উৎসাহ জুগিয়েছেন দলকে, জানিয়েছেন রাহানে। তিনি বলেছেন, “টিম ডিনারে প্রত্যেকের সঙ্গে ও কথা বলেছিল। দল হিসেবে নিজেদের মেলে ধরতে বলেছিল ও। সবাইকে ইতিবাচক থাকতেও বলেছিল। আর আমরা সারা বছর ধরে এটাই করে এসেছি। একে অন্যের জন্য খেলা, একে অন্যর সাফল্য উপভোগ করা, এগুলোই হল শক্তি।” পিতৃত্বকালীন ছুটি নিয়ে ফেরা কোহালিকে আর বিরক্ত করতে চান না রাহানে। বলেছেন, “এই সময়টা স্পেশাল। ওর পরিবারকে শুভেচ্ছা জানাচ্ছি। আর বিরক্ত করতে চাই না এই সময়ে।”

Advertisement

আরও পড়ুন: এনডোর্সমেন্ট বিতর্কের মাঝেই নতুন মাস্ক নিয়ে ফের ময়দানে দাদা

চাপে নেই একেবারেই। বরং বিরাট কোহালির অনুপস্থিতিতে জাতীয় দলের নেতৃত্বকে সুযোগ হিসেবেই দেখছেন অজিঙ্ক রাহানে।

মেলবোর্নে বক্সিং ডে টেস্ট শুরুর আগের দিন তিনি সোজাসুজি বলেছেন, ‘নিজের উপর ফোকাস রাখছি না। ভাবছি দল নিয়েই। ভারতের নেতৃত্ব দিতে পারা আমার কাছে গর্বের মুহূর্ত। এটা দুর্দান্ত সুযোগ। একই সঙ্গে দায়িত্বও। আমি কোনও চাপ নিতে চাইছি না।” এর আগে ২০১৭ সালে ধরমশালায় অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে নেতৃত্ব দিয়েছিলেন রাহানে। সেই টেস্ট জিতেছিল ভারত। রাহানে বলেছেন, “২০১৭ সালের সেই টেস্টে আমি শিখেছিলাম অধিনায়ক হিসেবে সহজাত প্রবৃত্তি মেনে চলতে। আর চাপের মুখে শান্ত থাকতে। আমি তাই নিজের মতো করে চলতে চাইব। ওই টেস্ট থেকে এটাই শিখেছি।”



কিন্তু অ্যাডিলেডে গোলাপি বলে দিন-রাতের টেস্টে ৮ উইকেটে হারের পর সিরিজে ফেরার লড়াই সহজ নয়। রাহানে স্বীকার করেছেন তা। তবে এটাও বলেছেন, “আমাদের একটা সেশন খারাপ গিয়েছিল। কিন্তু টেস্টের প্রথম দুই দিন আমরা ভাল খেলেছি। আমাদের ব্যাটিং ও বোলিং বেশ ভাল। আমরা প্রাথমিক দিক গুলো মেনেই খেলব। পরিকল্পনা অনুসারে চলতে হবে। অ্যাডিলেডে আমাদের শুধু একটা ঘন্টা বাজে গিয়েছিল। আমরা তাই ইতিবাচক থাকছি। নিজেদের ক্ষমতায় ভরসা রাখছি।” নিজের ব্যাটিং নিয়ে রাহানে বলেন, ‘‘আমি নিজে শান্ত থাকি, মাথা ঠান্ডা রাখি। কিন্তু, আমার ব্যাটিং আক্রমণাত্মক। যেটা আমার সহজাত, সেভাবেই ব্যাট করি আমি।’’

ভারতীয় শিবিরের মানসিক অবস্থা এখন কেমন? রাহানে বলেন, “শেষ টেস্টে একটা ঘন্টা বাজে খেলায় ম্যাচ হেরে গিয়েছিলাম। কিন্তু,তার পর আমরা দল ও ব্যক্তি হিসেবে নিজেদের শক্তি মেলে ধরায় জোর দিয়েছি। প্রথম টেস্টে আমাদের যা পরিকল্পনা ছিল, সেটাই প্রয়োগ করতে হবে।”

আরও পড়ুন: বক্সিং ডে টেস্ট থেকে বাদ ঋদ্ধি, বড়দিনে বড় দুঃখের দিন বাঙালির​​

বক্সিং ডে টেস্টে ভারতের হয়ে ওপেন করবেন ময়াঙ্ক আগরওয়াল ও শুভমন গিল। প্রথম টেস্টে ওপেন করা পৃথ্বী শ-কে বাদ দিয়েছে ভারত। রাহানে বলেছেন, “শুধু অস্ট্রেলিয়াতেই নয়, সর্বত্রই ওপেনারদের ভূমিকা গুরুত্বপূর্ণ। তবে আমি ওপেনারদের উপর কোনও চাপ দিতে চাই না। ওদের স্বাধীনতা দিতে চাই নিজেদের মেলে ধরার জন্য। তবে আবার বলছি, ওপেনারদের ভূমিকা খুব গুরুত্বপূর্ণ। বড় জুটি হলে পরের দিকের ব্যাটসম্যানদের কাজটা সহজ হয়ে যায়। আর আমরা অবশ্যই মিস করব বিরাটকে। ও থাকা মানেই একটা বড় ভরসা। তাই নিশ্চিত ভাবেই মিস করব ওকে।”

দ্বিতীয় টেস্টের প্রস্তুতি নিয়ে খুশি রাহানে। তিনি বলেছেন, “গত কয়েকটা নেট সেশনে খুব ভাল প্রস্তুতি নেওয়া হয়েছে। দলের প্রত্যেকে ভাল খেলার ক্ষমতা ধরে। আমাদের ইতিবাচক থাকতে হবে, নিজেদের ক্ষমতায় ভরসা রাখতে হবে আর ব্যাটিংয়ে জুটি গড়তে হবে।”

Advertisement