Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

২১ মে ২০২২ ই-পেপার

URL Copied
Something isn't right! Please refresh.

ফাইনালে উঠে ধোনিকে নেচে কুর্নিশ জানালেন ব্রাভো

সানরাইজার্স হায়দরাবাদের বিপক্ষে চরম নাটকীয় ম্যাচে চোখধাঁধানো পারফরম্যান্স করেননি ধোনি। উইকেটের পিছনে দু’টি ক্যাচ, একটা রান আউট। ব্যাট হাতে স

সংবাদ সংস্থা
মুম্বই ২৩ মে ২০১৮ ১২:১০
Save
Something isn't right! Please refresh.
ব্রাভোর নাচ উপভোগ করছেন মাহি। ছবি: টুইটারের সৌজন্যে।

ব্রাভোর নাচ উপভোগ করছেন মাহি। ছবি: টুইটারের সৌজন্যে।

Popup Close

অন্যান্য ম্যাচের মতো কোনও চমক নয়। হায়দরাবাদের বিরুদ্ধে বরং বেশ সাদামাটা পারফরম্যান্স ছিল অধিনায়ক মহেন্দ্র সিংহ ধোনির। তা সত্ত্বেও আইপিএলের প্রথম কোয়ালিফায়ারে ‘ধোনি ফ্যাক্টরটাই’ যেন বড় হয়ে দাঁড়াল। ডাগ আউটে বসেই যেন টিমমেটদের মধ্যে সেই ফ্যাক্টরটা ছড়িয়ে দিলেন। হারার আগে হার না মেনে দুরন্ত কামব্যাক করে আইপিএল ফাইনালে উঠল চেন্নাই সুপার কিংস। সুপার কুল নেতার সামনে তাই নেচেই কুর্নিশ জানালেন ডোয়েন ব্রাভো। মঙ্গলবার মাঝরাতে সেই ভিডিয়োই টুইট করেছে সিএসকে। বুধবার সকাল পর্যন্ত তার ভিউয়ারশিপ ছাড়িয়েছে ৪৭ হাজারেরও উপরে।

ওই ভিডিয়োতে দেখা গিয়েছে, ড্রেসিং রুমের চেয়ারে বসে ধোনি। তাঁর সামনে নিচু হয়ে নাচছেন ব্রাভো। মিউজিক নেই। তাতে কী! ডিজে ব্রাভো নিজের গলা খুললেন। সেই ছন্দের তালে তাল মেলালেন হরভজন সিংহও। চলে এলেন দলের অন্যরা। গোটাটাই বেশ উপভোগ করছেন এমএসডি।

সানরাইজার্স হায়দরাবাদের বিপক্ষে চরম নাটকীয় ম্যাচে চোখধাঁধানো পারফরম্যান্স করেননি ধোনি। উইকেটের পিছনে দু’টি ক্যাচ, একটা রান আউট। ব্যাট হাতে সাকুল্যে ১৮ বলে ৯ রান। প্যাভিলিয়নে ফিরে গেলেন রশিদ খানের বল পড়তে না পেরে। এর পর সতীর্থদের ব্যাটিং দেখতে বসলেন ডাগআউটে। প্যাডস খোলেননি। সে ভাবেই বসে রইলেন গোটা ম্যাচে। গোটা স্টেডিয়াম টেনশনে ভুগলেও নিজে নির্লিপ্ত। সেখান থেকেই ধোনির ঠান্ডা মাথাটা যেন পর্দার পিছনের ডিরেক্টরের মতো নির্দেশ দিল টিমমেটদের।

Advertisement

চরম উত্তেজনার মধ্যে দিয়ে শার্দূল ঠাকুরকে সঙ্গী করে ম্যাচের রং বদলে দিলেন ফ্যাফ ডুপ্লেসি। ১৮তম ওভারে কার্লোস ব্রেথওয়েটকে পিটিয়ে সিএসকে ঘরে তুলে নিল ২০ রান। তার আগে পাল্লা ভারী ছিল হায়দরাবাদের দিকেই। কিন্তু, ওই ওভারের পরেই ম্যাচ ঘুরে গেল সিএসকে-র দিকে। পরের ওভারে সিদ্ধার্থ কলের ৫ বলে থেকে এল ১৫ রান। অফস্টাম্পের বাইরে খোঁচা, লেগস্টাম্পের বাইরে বল ঠেলে দেওয়া— ফ্যাফরা ভাগ্যের সহায়তাও পেলেন। হার দূরে থাকলেও তাকে জয়ে পরিণত করলেন শার্দূল ঠাকুররা। আর সেটাই যেন আত্মবিশ্বাস হয়ে ঝরে পড়ল ফ্যাফের ব্যাট থেকে। শেষ ওভারের প্রথম বলেই ভুবনেশ্বর কুমারকে তুলে ছয় মেরে অবিশ্বাস্য জয় কুড়িয়ে নিল ধোনি বাহিনী। এই নিয়ে সাত বার ফাইলানের কোঠায় তারা। ফাইনালেও যে এই আত্মবিশ্বাসী পারফরম্যান্স দেখা যাবে তারও ইঙ্গিত দিল সিএসকে!



Something isn't right! Please refresh.

আরও পড়ুন

Advertisement