Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

০৫ ডিসেম্বর ২০২১ ই-পেপার

গেলের তাণ্ডব থামাতে নতুন অস্ত্র নারাইনের

ইন্দ্রজিৎ সেনগুপ্ত
২৭ মার্চ ২০১৯ ০৩:৫৬
প্রস্তুতি: নতুন কায়দায় বোলিং মহড়া নারাইনের। ছবি: সুদীপ্ত ভৌমিক

প্রস্তুতি: নতুন কায়দায় বোলিং মহড়া নারাইনের। ছবি: সুদীপ্ত ভৌমিক

তাঁর বোলিং যে ক্রমশ পড়ে ফেলা যাচ্ছে তা নিশ্চয়ই বুঝতে পারছেন সুনীল নারাইন। সেই বিষাক্ত স্পিন ফিরিয়ে আনতে নানা ধরনের পরীক্ষা-নিরীক্ষা চালিয়ে যাচ্ছেন ক্যারিবিয়ান স্পিনার। মঙ্গলবারই যেমন নতুন অ্যাকশন আবিষ্কার করে ফেললেন।

ডেলিভারির আগে কোমরের পিছনে হাত লুকিয়ে রাখছেন নারাইন। বল ছাড়ার আগে তাঁর হাত দেখার উপায় ব্যাটসম্যানের নেই। বল পড়ার আগে বোঝার উপায়ও নেই কোন দিকে তাঁর বল স্পিন করতে চলেছে। এ দিনই যেমন নারাইনের বলে বেশ কয়েক বার পরাস্ত হন শুভমন গিল, ক্রিস লিন, রবিন উথাপ্পারা। কেকেআর সূত্রে খবর, বিপক্ষে তাঁর ক্যারিবিয়ান সতীর্থকে পরাস্ত করার জন্যই নতুন ফাঁদ তৈরি করেছেন কলকাতা নাইট রাইডার্সের বিস্ময় স্পিনার। নারাইনের এই চালে

‘গেল-ঝড়’ থামে কি না তার জন্য অপেক্ষা করবে বুধবারের ইডেন।

Advertisement

গত বার ইডেনে কেকেআরের বিরুদ্ধে ৩৮ বলে অপরাজিত ৬২ রান করে পঞ্জাবকে জিতিয়েছিলেন গেল। এ বার ‘ইউনিভার্স বস’-কে স্বমহিমায় দেখার সুযোগ আরও বেড়েছে। কারণ, রাজস্থান রয়্যালসের বিরুদ্ধে মরসুমের প্রথম ম্যাচেই ৪৭ বলে ৭৯ রানের উপহার দিয়েছেন জয়পুরের সমর্থকদের। এ ছাড়া ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে শেষ ওয়ান ডে সিরিজের পাঁচ ম্যাচে ৩৯টি ছয় মেরেছেন গেল। সিরিজের শেষ ম্যাচে ২৭ বলে তাঁর ৭৭ রানের ইনিংস কেউ ভোলেননি।

বুধবারের ম্যাচে নারাইন আদৌ খেলবেন কি না তা নিয়ে আশঙ্কা ছিল কেকেআর সমর্থকদের। কিন্তু মঙ্গলবার তাঁর অনুশীলন দেখেই বোঝা গেল যে, আঙুলে আর কোনও ব্যথা নেই। নির্দ্বিধায় বল করলেন। নেটে ব্যাটও করলেন বেশ কিছুক্ষণ। সাংবাদিক বৈঠকে লকি ফার্গুসন এসে বললেন, ‘‘আমি যতদূর জানি, নারাইন একেবারে সুস্থ। আশা করি, কাল ওর খেলতে কোনও অসুবিধা হবে না।’’ নারাইন খেললে কলকাতার বোলিং বিভাগের চাপ অনেকটাই কমে যাবে। কিন্তু বুধবারের ম্যাচে গেল যতক্ষণ না আউট হচ্ছেন, তাঁকে নিয়ে উদ্বেগ কমবে না কেকেআর শিবিরে। ফার্গুসন বলছিলেন, ‘‘খুব ভাল ছন্দে রয়েছে গেল। রাজস্থানের বিরুদ্ধে অসাধারণ ব্যাট করেছে। ওর ব্যাটিং সত্যি খুব উপভোগ্য। শেষ রাতে ওর খেলা দেখে বুঝেছি বেশ কয়েকটা জায়গা রয়েছে যেখানে ওকে আক্রমণ করা সম্ভব। আমাদের পরিকল্পনায় তা রয়েছে।’’ তিনি আরও বলেন, ‘‘শুধু গেল নিয়ে ভাবলে চলবে না। বাকিরাও যথেষ্ট শক্তিশালী। কিন্তু ওদের শক্তির কথা ভাবার চেয়েও আমাদের শক্তির উপর কাজ করা উচিত। তবেই সব চেয়ে ভাল ফল পাওয়া যাবে।’’

কলকাতার শক্তি বলতেই আন্দ্রে রাসেল। সানরাইজার্স হায়দরাবাদের বিরুদ্ধে ১৯ বলে অপরাজিত ৪৯ রান করে দলকে জিতিয়েছিলেন। প্রীতি জিন্টার দলের বিরুদ্ধে তিনিই কেকেআর শিবিরের মূল অস্ত্র। মঙ্গলবার ব্যাটিংয়ের পরেই চলে তাঁর স্প্রিন্টের মহড়া। লকি জানিয়ে দিলেন, রাসেলের মতো ইনিংস তিনি আগে কখনও দেখেননি। ‘‘রাসেল অবিশ্বাস্য ইনিংস খেলেছে। এ রকম ব্যাটিং আমি সত্যি আগে কখনও দেখিনি। সব চেয়ে ভাল বিষয় হল, আমরা একই দলে রয়েছি। ভাগ্যিস ম্যাচে ওকে আমার বল করতে হচ্ছে না,’’ মত লকির।

পঞ্জাবের বিরুদ্ধে ইডেনের যে বাইশ গজে খেলা হবে তাতে বেশ কিছু ঘাস দেখা গেল এ দিন। হয়তো বিপক্ষে আর অশ্বিন, মুজিব উর রহমান, বরুণ চক্রবর্তীর মতো স্পিনারের বিষ দাঁত ভেঙে দেওয়ার জন্যই এ ধরনের পিচে বিপক্ষকে স্বাগত জানানোর

ভাবনা রয়েছে নাইট শিবিরে।

আরও পড়ুন

Advertisement