Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

১৬ অগস্ট ২০২২ ই-পেপার

URL Copied
Something isn't right! Please refresh.

আইপিএল ফাইনাল ২৪ মে, ম্যাচ শুরু হয়তো সাড়ে ৭টায়

বোর্ডের সূত্র সংবাদসংস্থাকে জানিয়েছে, পুরো সূচি এখনও ঠিক না হলেও শুরু এবং শেষের তারিখ ঠিক হয়েছে। তাতে দেখা যাচ্ছে, সাধারণত যে ৪৫ দিনের প্রতি

নিজস্ব প্রতিবেদন
কলকাতা ০৮ জানুয়ারি ২০২০ ০৩:৫৮
Save
Something isn't right! Please refresh.
আইপিএল-এর পুরো সূচি এখনও ঠিক না হলেও শুরু এবং শেষের তারিখ ঠিক হয়েছে।

আইপিএল-এর পুরো সূচি এখনও ঠিক না হলেও শুরু এবং শেষের তারিখ ঠিক হয়েছে।

Popup Close

গত বারের চ্যাম্পিয়ন মুম্বই ইন্ডিয়ান্সের ঘরের মাঠে আগামী ২৯ মার্চ শুরু হচ্ছে ২০২০ আইপিএল। ফাইনাল ২৪ মে। সব মিলিয়ে ৫৭ দিনের প্রতিযোগিতা। মেয়াদ বেশি হওয়ায় ধরে নেওয়া হচ্ছে, সম্প্রচারকারী চ্যানেলের দাবি মেনে সম্ভবত প্রত্যেক দিন একটি করেই ম্যাচ রাখা হবে এ বার। অর্থাৎ, আগের মতো বিকাল চারটের ম্যাচ এ বারে হয়তো আর দেখা যাবে না।

বোর্ডের সূত্র সংবাদসংস্থাকে জানিয়েছে, পুরো সূচি এখনও ঠিক না হলেও শুরু এবং শেষের তারিখ ঠিক হয়েছে। তাতে দেখা যাচ্ছে, সাধারণত যে ৪৫ দিনের প্রতিযোগিতা হয়, তার চেয়ে ১২ দিন বেশি হচ্ছে ২০২০-তে। ‘‘এই কারণে দিনে একটি করে ম্যাচ আয়োজন হলেও অসুবিধা নেই,’’ বলেছেন বোর্ডের এক কর্তা। এখানেই শেষ নয়। আরও পরিবর্তন হতে পারে। ম্যাচ শুরুর সময় আটটার বদলে সাড়ে সাতটা করে দেওয়া হতে পারে। অনেক দিন ধরেই সম্প্রচারকারী চ্যানেল চেষ্টা করে যাচ্ছে, ম্যাচ শুরুর সময় আধ ঘণ্টা এগিয়ে নিয়ে আসতে। প্রাইম টাইম টিভি দর্শক ধরার লক্ষ্যেই এই পরিবর্তন আনার ভাবনা। বোর্ড এত দিন সায় দিচ্ছিল না। এ বার সেই পরিবর্তনও হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে।

যদিও কর্তারা টিআরপি-ই যে সময় পাল্টানোর কারণ, তা স্বীকার করছেন না। তাঁদের বক্তব্য, ‘‘গত কয়েক বছরের ম্যাচগুলো দেখুন। কত রাতে গিয়ে শেষ হচ্ছে। শেষ মরসুমে বেশ কয়েক বার অধিক রাতে ম্যাচ শেষ হওয়া নিয়ে সমস্যা হয়েছে।’’ এঁরা যোগ করছেন, ‘‘টিআরপি নিশ্চয়ই সকলে চায়। কিন্তু সেটাই একমাত্র কারণ নয়। দেরিতে ম্যাচ শেষ হওয়া আটকানোও একটা বড় কারণ। যাঁরা মাঠে এসেছিলেন খেলা দেখতে, অধিক রাতে ম্যাচ শেষ হওয়ার পরে বাড়ি ফিরতে গিয়েও সমস্যায় পড়েছেন।’’ এখনও বোর্ডের আভ্যন্তরীণ স্তরে আলোচনার স্তরেই রয়েছে সন্ধে ৭.৩০-এ খেলা শুরু করার বিষয়টি। তবে যা ইঙ্গিত, এ বারে সেই প্রস্তাব পাশ হয়ে গেলেও অবাক হওয়ার থাকবে না।

Advertisement

ফ্র্যাঞ্চাইজিরা এই বদলের সঙ্গে একমত কি না, তা অবশ্য নিশ্চিত নয়। কয়েক জন ফ্র্যাঞ্চাইজি কর্তা আবার পাল্টা ধরিয়ে দিচ্ছেন, ‘‘মেট্রো শহরের বাসিন্দারা ৭.৩০-এর মধ্যে মাঠে ঢুকতে গিয়ে বেশি সমস্যায় পড়বেন। অফিস শেষ করে ট্র্যাফিক জ্যাম থেকে নিষ্কৃতি পেয়ে বাড়ি পৌঁছে, পরিবারকে নিয়ে মাঠে আসতে চাইলে অনেক দিনই ঠিক সময়ে পৌঁছতে পারবেন না দর্শকেরা।’’ তাঁদের বক্তব্য, এই বিষয়টি নিয়ে আরও আলোচনা হোক।

চারটের ম্যাচ তুলে দেওয়ার কথা ভাবা হচ্ছে কেন? এ নিয়েও তর্ক-বিতর্ক চলছে। কেউ কেউ বলছেন, এটাও সম্প্রচারকারী চ্যানেলের ভাবনা এবং টিআরপি-নির্ভর প্রস্তাব। অন্যরা সওয়াল করছেন, ফ্র্যাঞ্চাইজিগুলোও বিকেল চারটের সময় রোদের মধ্যে ম্যাচ করলে ক্ষতির মুখে পড়ে। সব ম্যাচে দর্শকাসন ভর্তি হয় না। তাই সকলের স্বার্থেই বিকেল চারটের ম্যাচ বাতিলের কথা ভাবা হচ্ছে।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, Twitter এবং Instagram পেজ)


Something isn't right! Please refresh.

Advertisement