Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

০৬ ডিসেম্বর ২০২১ ই-পেপার

তিওয়ারির জায়গায় সুযোগ পেয়ে ‘সৌরভ’ ছড়ালেন ঈশান

নিজস্ব প্রতিবেদন
কলকাতা ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২০ ০১:০৩
দুরন্ত খেলেও ঈশান কিষাণ জেতাতে পারলেন না দলকে। ছবি: সোশ্যাল মিডিয়া

দুরন্ত খেলেও ঈশান কিষাণ জেতাতে পারলেন না দলকে। ছবি: সোশ্যাল মিডিয়া

দুশোর উপরে রান তুলেও নিশ্চিন্ত থাকা যায় না আইপিএলে। মুম্বই ইন্ডিয়ান্স বনাম রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স ব্যাঙ্গালোর ম্যাচে আরও একবার তা প্রমাণিত হল। বিরাট কোহালি ব্যাট হাতে ব্যর্থ হলেও দেবদত্ত পাদিকাল, অ্যারন ফিঞ্চ, এবি ডি’ভিলিয়ার্সদের দাপটে প্রথমে ব্যাট করে ২০১ রান তোলে ব্যাঙ্গালোর। একসময়ে পর পর উইকেট হারিয়ে দেওয়ালে পিঠ ঠেকে যাওয়ার অবস্থা হয়েছিল মুম্বইয়ের। এই কঠিন পরিস্থিতিতে মুম্বইয়ের ত্রাতা হয়ে ধরা দিয়েছিলেন ঈশান কিষাণ। তাঁর ব্যাটিং দাপটে এবং অবশ্যই কেইরন পোলার্ডের তাণ্ডবে প্রায় জেতার মতো জায়গায় পৌঁছে গিয়েছিল মুম্বই। কিন্তু খেলাটা তো ক্রিকেট। যে কোনও সময়ে ম্যাচের ভরকেন্দ্র বদলে যায়। যখন মনে হচ্ছে উদানার শেষ ওভারে ম্যাচ বের করে আনবেন ঈশান, ঠিক সেই সময়েই ঘটল বিপর্যয়।

ছক্কা মারতে গিয়ে ৯৯ রানে আউট হয়ে গেলেন ঈশান। নিজের উপর রাগে শূন্যে ব্যাট ছুড়তেও দেখা গেল তাঁকে। উদানার শেষ বলে চার মেরে পোলার্ড যখন মুম্বইকে নিয়ে গেলেন সুপার ওভারে, তখন ডাগ আউটে মাথা নীচু করে বসে থাকতে দেখা গেল ঈশানকে। ম্যাচের রং কীভাবে বদলে গেল সুপার ওভারে, তা দেখলেন সামনে থেকে। বিরাট কোহালিরা ম্যাচ জিতে নেওয়ায় আরও হতাশায় ডুবে গেলেন ঈশান। ট্র্যাজিক নায়ক হয়েই থেকে গেলেন তিনি।

এ দিন খেলার কথাই ছিল না ঈশানের। সৌরভ তিওয়ারি পুরোদস্তুর ফিট না থাকায় সুযোগ এসে গিয়েছিল তাঁর সামনে। ৫৮ বলে ৯৯ রানের দুরন্ত ইনিংস খেলেন ঈশান। মারেন ছটা ছক্কা। শেষ ওভারের ওই শট বাদ দিলে গোটা ইনিংসে পরিণতিবোধের পরিচয় দেন তিনি। উদানার শেষ ওভারে পর পর দু' বলে ছক্কা মেরেছিলেন ঈশান। পরের বলটাও মারতে গিয়ে নায়ক হওয়া আর হল না তাঁর। ম্যাচ সুপার ওভারে যেতে সবাই ধরেই নিয়েছিলেন আরও একবার ব্যাট হাতে দেখা যাবে ঈশানকে। কিন্তু সকলকে অবাক করে দিয়ে তাঁকে ডাগ আউটে বসে থাকতেই দেখা গেল। ম্যাচ শেষে অধিনায়ক রোহিত বলেন, “ক্লান্ত হয়ে পড়েছিল ঈশান। ওর পক্ষে সুপার ওভারে আবার ব্যাট করতে যাওয়া সম্ভব ছিল না।”

Advertisement

ঝাড়খণ্ডের এই উইকেটকিপার ব্যাটসম্যানের দুই আইডল প্রাক্তন ভারত অধিনায়ক মহেন্দ্র সিংহ ধোনি এবং প্রাক্তন অজি কিংবদন্তি অ্যাডাম গিলক্রিস্ট। তাঁদের মতোই মারকুটে ব্যাটিং করতে পছন্দ করেন। প্রথম শ্রেণির ক্রিকেটে তাঁর সর্বোচ্চ রান ২৭৩ রান। দস্তানা হাতেও ৪৪ ম্যাচে শিকার ১০১। আজ তিনি হেরে গেলেন কিন্তু মন জিতে নিলেন সবার।

আরও পড়ুন: রোহিতের হাতেই জমা পড়ল বিরাট-ক্যাচ

আরও পড়ুন: ঘরের মাঠে ভারত-ইংল্যান্ড সিরিজ করতে চান সৌরভ​

আরও পড়ুন

Advertisement