Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

১৯ জানুয়ারি ২০২২ ই-পেপার

রোহিত ঝড়ে উড়ে গেলেন কেকেআরের সাড়ে পনেরো কোটির তারকা কামিন্স

নিজস্ব প্রতিবেদন
কলকাতা ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২০ ২৩:০১
মুম্বইয়ের বিরুদ্ধে প্রথম ম্যাচে ব্যর্থ প্যাট কামিন্স। ছবি: সোশ্যাল মিডিয়া

মুম্বইয়ের বিরুদ্ধে প্রথম ম্যাচে ব্যর্থ প্যাট কামিন্স। ছবি: সোশ্যাল মিডিয়া

সাড়ে পনেরো কোটির তারকাকে প্রথম ম্যাচেই উড়িয়ে দিলেন রোহিত শর্মা। এবারের নিলামে এই আকাশছোঁয়া দামেই প্যাট কামিন্সকে কিনেছিল কলকাতা নাইট রাইডার্স। আইপিএলের বল গড়ানোর আগে থেকেই প্রত্যাশার চাপ বাড়ছিল অজি বোলারের উপরে। প্রথম ম্যাচে সেই চাপ কাটিয়ে উঠতে পারলেন না কামিন্স। এ দিন পুরো চার ওভার তাঁকে দিয়ে বলই করাতে পারলেন না কলকাতার অধিনায়ক দীনেশ কার্তিক।

গত বছরের আইপিএলে পেসারদের নিয়ে ভুগতে হয়েছিল নাইটদের। এ বার তাই সাড়ে পনেরো কোটি টাকা দিয়ে কলকাতা কিনেছিল অজি পেসারকে। টেস্টে এক নম্বর বোলার তিনি। তাই কলকাতা ভক্তরা আশা করেছিলেন রোহিতের দলকে বেগ দেবেন তিনি। পঞ্চম ওভারে তাঁর হাতে বল তুলে দেন কার্তিক। প্রথম বল ওয়াইড দিয়ে শুরু করেন। সেই ওভারে 'হিটম্যান' দু’টি ছয় মারেন তাঁকে। তিন ওভার বল করে প্যাট কামিন্স খরচ করেন ৪৯ রান। তাঁর আকাশছোঁয়া দরের মতোই প্রচুর রান করলেন কামিন্স। কার্তিক আর তাঁর হাতে বল তুলে দেওয়ার সাহস দেখাননি।

মাঠে মুম্বই ব্যাটসম্যানরা তাঁর উপরে নির্দয় ছিলেন। সোশ্যাল মিডিয়ায় তাঁকে নিয়ে শুরু হয়ে যায় রসিকতা। নেটাগরিকদের মধ্যে অনেকে লেখেন, ‘সাড়ে পনেরো কোটি জমা করে দিলেন রোহিত।’ কেউ লেখেন, ‘পনেরো কোটি। পনেরো রান প্রতি ওভারে।’ কেউ আবার ব্যঙ্গাত্মক ছবিতে তুলে ধরেন কেকেআর মালিক শাহরুখ খানের অবস্থা।

Advertisement




মঙ্গলবার এক সাক্ষাৎকারে ভারতের প্রাক্তন অধিনায়ক সুনীল গাওস্কর এই প্রত্যাশার চাপের কথাই বলেছিলেন। তিনি বলেছিলেন, “সাড়ে পনেরো কোটি টাকা দিয়ে তাঁকে নিয়েছে কেকেআর। চাপ থাকবে সেই বিশাল অঙ্কের। কামিন্সকে পারফর্ম করে প্রমাণ করতে হবে যে এই অর্থ ব্যয় বৃথা যায়নি।” প্রথম ম্যাচে সেই চাপ কাটাতে পারেননি কামিন্স। একের পর এক বল ভুল লেন্থে করে গেলেন। পাশে দাঁড়িয়ে তরুণ শিবম মাভি দু’টি উইকেট নিয়ে গেলেও, তাঁর ঝুলি ফাঁকা। রোহিত যখন কলকাতার বোলিংকে নিয়ে ছেলেখেলা করছেন, অভিজ্ঞ বোলার হিসেবে তাঁকে থামাতে ব্যর্থ হন অজি পেসার।

আরও পড়ুন: সুযোগ আসবেই, যন্ত্রণার দিনগুলোতেও সঞ্জু ছিলেন প্রতিজ্ঞাবদ্ধ

আইপিএল যেমন নতুন তারকার জন্ম দিয়েছে, তেমনই অনেক দামি তারকাকে ফিরতে হয়েছে লজ্জা নিয়ে। যদিও প্রথম ম্যাচের লজ্জা কাটানোর সুযোগ পাবেন কামিন্স। সন্দেহ নেই পরের ম্যাচগুলোয় তাঁর উপরে চাপ আরও বেড়ে গেল। এই চাপ নিজেকে প্রমাণ করার।

আরও পড়ুন: প্রথম ম্যাচের আগে কেকেআরকে শুভেচ্ছা মমতার

আরও পড়ুন

Advertisement