Advertisement
২১ এপ্রিল ২০২৪
Sourav Ganguly

বিদেশিদের শুধু অজুহাত, ভারতীয়দের সহ্য ক্ষমতা অনেক বেশি, বললেন সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়

বিসিসিআই প্রধান সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায় মনে করেন বিদেশিদের থেকে ভারতীয়দের সহ্য ক্ষমতা অনেক বেশি।

ভারতীয় ক্রিকেটারদের পাশে দাঁড়ালেন সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়।

ভারতীয় ক্রিকেটারদের পাশে দাঁড়ালেন সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়। ফাইল চিত্র

নিজস্ব সংবাদদাতা
কলকাতা শেষ আপডেট: ০৬ এপ্রিল ২০২১ ১৭:০৮
Share: Save:

মাসের পর মাস কঠিন জৈব সুরক্ষা বলয়ে থাকা অবশ্যই কঠিন। মাঠ থেকে হোটেল, এর বাইরে খেলোয়াড়দের যাওয়ার উপায় নেই। ফলে খেলোয়াড়দের মধ্যে ব্যাপক মানসিক চাপ তৈরি হচ্ছে। অনেকটা সময় ধরে বলয়ে থাকার জন্য ভারত অধিনায়ক বিরাট কোহলী পর্যন্ত এর নিন্দা করেছেন। যদিও বিসিসিআই প্রধান সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায় মনে করেন বিদেশিদের থেকে ভারতীয়দের সহ্য ক্ষমতা অনেক বেশি।

সৌরভ বলেন, “দীর্ঘ ক্রিকেট জীবনে অনেক বিদেশির বিরুদ্ধে খেলেছি। ওরা শুধু মানসিক অবসাদে থাকার অজুহাত দেয়। সেই জায়গা থেকে আমাদের ভারতীয়দের সহ্য ক্ষমতা অনেক বেশি।” যদিও কিছুক্ষণ পরে তিনি ফের যোগ করলেন, “গত ছয়-সাত মাসে ক্রিকেটারদের কাছে জীবন বেশ কঠিন হয়ে পড়েছে। জৈব বলয়ে থেকে খেলার জন্য মাঠ ও টিম হোটেলের ঘর ছাড়া তাদের অন্য কোথায় যাওয়ার উপায় নেই। এই বলয়ে থাকতে হলেও পেশাদার জগতে সবাইকে মাঠে গিয়ে নিজেদের মেলে ধরতে হয়। এটা আরও বেশি চাপের ব্যাপার। সত্যি বলতে করোনার জন্য খেলোয়াড়দের জীবন একেবারে বদলে গিয়েছে।”

উদাহরণ হিসেবে কয়েক মাস আগে ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়ার দক্ষিণ আফ্রিকা সফর বাতিল করে দেওয়ার প্রসঙ্গও উঠে এল। সৌরভ আবার বলেন, “ভারতের বিরুদ্ধে সিরিজের পর অস্ট্রেলিয়ার কিন্তু দক্ষিণ আফ্রিকা যাওয়ার কথা ছিল। কিন্তু ওরা সেই সফর বাতিল করে দেয়। দেখুন কোভিডের আতঙ্ক সব জায়গায় রয়েছে। কিন্তু খেলা ও জীবন তো চালিয়ে নিয়ে যেতে হবে। আর সেটা করার জন্য মানসিকভাবে হতে হবে চাঙ্গা। সেটার জন্য আলাদা প্রস্তুতি দরকার।”

এই প্রসঙ্গে আলোচনা করতে গিয়ে নিজের ক্রিকেট জীবনের খারাপ সময়ের কথাও তুলে ধরেছেন ভারতের প্রাক্তন অধিনায়ক। শেষে বললেন, “টেস্টে অভিষেক হওয়ার আগে এক রকম চাপ ছিল। যখন দলে প্রতিষ্ঠা পেলাম তখন অন্য রকম চাপ তৈরি হয়েছিল। এরপর যখন অধিনায়ক হলাম তখন চাপ আরও বাড়ল। ২০০৫ সালে দল থেকে বাদ যাওয়া কিংবা প্রত্যাবর্তনের চাপ ছিল অনেক বেশি কঠিন। তাই পেশাদার জগতে টিকে থাকতে হলে চাপ নেওয়ার মানসিক ও শারীরিক শক্তি থাকতেই হবে।”

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)
সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের মাধ্যমগুলি:
Advertisement
Advertisement

Share this article

CLOSE